শনিবার, ১৮ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ০১ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৮:০২:৪৭

ইরানে বিক্ষোভ বাড়ছেই, ১০ জনের প্রাণহানি

ইরানে বিক্ষোভ বাড়ছেই, ১০ জনের প্রাণহানি

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-ধীরে ধীরে সমগ্র ইরান জুড়ে ছড়িয়ে পড়ছে বিক্ষোভ। দেশটির বিভিন্ন জায়গা থেকে আরো বিক্ষোভ ও মৃত্যুর খবর আসছে। সরকারি সংবাদ মাধ্যমেই এখন বলা হচ্ছে, কয়েকদিনের বিক্ষোভ-সহিংসতায় এ পর্যন্ত ১০ জন নিহত হয়েছে। এসব মৃত্যু কোথায় বা কিভাবে ঘটেছে তা রাষ্ট্রীয় টিভিতে বলা হয় নি।
তবে প্রেসিডেন্ট রুহানি জনগণকে শান্তি রক্ষার আহ্বান জানানো স্বত্বেও বিভিন্ন সূত্র থেকে সহিংসতার খবর আসছে। রবিবার রাতে দক্ষিণাঞ্চলীয় ইজেহ শহরে গুলিবিদ্ধ হয়ে দু’জন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। পশ্চিম ইরানের দোরুদে বিক্ষোভকারীরা একটি অগ্নিনির্বাপক গাড়ি ছিনিয়ে নেয় এবং তারপর তা অন্য দুটি গাড়িতে আঘাত করে। এতে দু’জন নিহত হয়। দোরুদ শহরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রথম দিনের সহিংসতায় দু’জন গুলিতে মারা যায় এবং তারা সহিংসতার জন্য উগ্রপন্থী সুন্নি মুসলিম ‘তকফিরি’ গোষ্ঠীকে দায়ী করেন।
এ পর্যন্ত প্রায় ৪শ’ লোককে গ্রেফতার করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ টেলিগ্রাম বা ইন্সটাগ্রামের মত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ করে দিয়ে বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, জনগণের প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করার অধিকার আছে কিন্তু সহিংসতা মেনে নেয়া হবে না। ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী হুঁশিয়ারি দেয় যে, বিক্ষোভ চলতে থাকলে তারা রাষ্ট্রের ‘লৌহকঠিন মুষ্টির’ সম্মুখীন হবে। এ বিক্ষোভ শুরু হয়েছিল গত বৃহস্পতিবার মাশাদ শহর থেকে। মূলত জিনিসপত্রের দামবৃদ্ধির মত অর্থনৈতিক ইস্যু নিয়ে প্রতিবাদ শুরু হলেও এখন বিক্ষোভকারীরা ধর্মীয় নেতা-নিয়ন্ত্রিত ইরানি সরকারকে উৎখাত করার ডাক দিচ্ছে। বিবিসি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?