সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৭, ০৭:৫০:৪২

যুদ্ধের জন্য অস্ত্র নির্মাতাদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ পুতিনের

যুদ্ধের জন্য অস্ত্র নির্মাতাদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ পুতিনের

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-যুদ্ধ বাধলে স্বল্প দিনের নোটিসে প্রচুর পরিমাণে অস্ত্রশস্ত্র নির্মাণের জন্য ব্যবসায়ীদের প্রস্তুত থাকতে নির্দেশ দিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বুধবার সেনাপ্রধান ও অস্ত্র নির্মাতাদের এক সম্মেলনে যোগ দিতে গিয়ে সোচিতে গিয়ে এই কথা বলেন পুতিন।
পুতিন জানিয়েছেন, স্বল্প দিনের নোটিশে প্রচুর অস্ত্রশস্ত্র নির্মাণের দক্ষতা থাকলে তবেই বোঝা যায় কোনও দেশ প্রতিরক্ষা খাতে কতটা উন্নত। পুতিন আশা প্রকাশ করেছেন, কৌশলগত দিক থেকে এগিয়ে থাকতে রুশ অস্ত্র ব্যবসায়ীরা নিশ্চয় প্রচুর পরিমাণ অস্ত্রশস্ত্র নির্মাণের জন্য তৈরি রয়েছেন।
এই বক্তব্যের মাত্র ২৪ ঘণ্টা আগেই দেশের সেনার দুই প্রধান বাহিনী, পদাতিক ও নৌসেনা বাহিনীকে নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। রুশ সেনা যে বিশ্বের সবচেয়ে আধুনিক অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রস্তুত রয়েছে যে কোনও যুদ্ধের মোকাবেলা করতে, সেটাও বুঝিয়ে দিতে ছাড়েননি তিনি।
২০০৮-এর জর্জিয়ান যুদ্ধের পর থেকে রুশ মিলিটারির বৈপ্লবিক আধুনিকীকরণ হয়েছে। সোভিয়েত জমানার পুরনো সমস্ত সামরিক সরঞ্জাম ফেলে নতুন মারণাস্ত্র নিয়ে ম্যারাথন পরীক্ষা নিরীক্ষা হয়েছে। বেড়েছে প্রতিরক্ষা খাতে খরচও। এবার রুশ সেনার জন্য বার্ষিক ৩ ট্রিলিয়ন রুবল বরাদ্দ করা হয়েছে। যা দেশের মোট জিডিপির প্রায় ৩.৩%।

এই বিভাগের আরও খবর

  আফগানিস্তানে বিমান হামলায় ৫ জঙ্গি নিহত

  ভয়াবহ হয়ে উঠছে ‘টমাস ফায়ার’, দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়া জুড়ে আতঙ্ক

  ভয়ঙ্কর পরমাণু অস্ত্রের মজুদে শীর্ষে যারা

  রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নির্মূল বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রস্তাব পাশ

  তুরস্কে মিনিবাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত-১১

  পরমাণু কেন্দ্রে মিসাইল হামলা, তোলপাড় আরব দুনিয়া

  ঘুর্ণিঝড়ে ভারত ও শ্রীলঙ্কায় ১৬ জন নিহত, নিখোঁজ শতাধিক

  পৃথিবীর সর্বত্র আঘাত হানতে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উ. কোরিয়ার

  আইএস নির্মূলে যুদ্ধবিমান থেকে মিসাইল ছুড়ছে ইরাক

  সিরিয়ার রুশ বিমান হামলায় ২১ শিশুসহ নিহত-৫৩

  আন্দোলনকারীদের গ্রেফতার করায় পরিস্থিতির অবনতিঃ পাকিস্তানে সংঘর্ষে নিহত ৬

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহিদুল হক বলেছেন, ‘দেশকে জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে হলে পুলিশের পাশাপাশি জনগণকে কাজ করতে হবে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন?