বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ,২০১৭

Bangla Version
SHARE

সোমবার, ০৯ অক্টোবর, ২০১৭, ০৭:১০:৩৩

নয়াদিল্লীতে দীপাবলির সময়ে আতসবাজি ফোটানো নিষিদ্ধ

নয়াদিল্লীতে দীপাবলির সময়ে আতসবাজি ফোটানো নিষিদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ-ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লীতে হিন্দুদের সবচেয়ে জমকালো উৎসব দীপাবলিকে সামনে রেখে আতসবাজি ফোটানো নিষিদ্ধ করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। আদালত বলেছে, সবচেয়ে দূষিত বায়ুর শহরগুলো মধ্যে অন্যতম দিল্লীর এতে বায়ুর মানের উন্নতি হয় কী না সেটা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।
নভেম্বরের ১ তারিখ পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে, ১৮ অক্টোবর দীপাবলি অনুষ্ঠিত হবে। উত্তর ভারতে হিন্দুদের সবচেয়ে বড় উৎসব দীপাবলি, পটকা ফুটিয়ে দ্বীপ জ্বেলে মন্দের উপর ভালোর বিজয় উদযাপন করা হয়। ২০১৬ সালের নভেম্বরে দিল্লিতে পটকা ফোটানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় যা নভেম্বরে প্রত্যাহার করা হয়। সেই সময় সুপ্রিম কোর্ট বলেছিল, পূর্ণাঙ্গ নিষেধাজ্ঞা হবে অনেক বড় সেই নিষেধাজ্ঞা পুনরায় বহাল করার জন্য বেশ কয়েকটি পিটিশনের প্রেক্ষিতে সু্প্রিম কোর্ট এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করল।
ভারতের কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো এই নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল হোক সেটা চেয়েছিল। তবে ইতিমধ্যে যারা আতসবাজি কিনে ফেলেছেন তারা সেটি ফোটাতে পারবেন। গত বছর দীপাবলির পরে দিল্লির বায়ু দূষণের মাত্রা বিপর্যয় পর্যায়ে চলে যায়। ধোয়ার কারণে তিনদিন স্কুল বন্ধ রাখতে হয়। বিবিসি।

এই বিভাগের আরও খবর

  বিশ্ব স্থিতিশীলতায় রাশিয়া, চীন ও ভারতের শক্তিশালী ভূমিকা পালন করা উচিত

  ভারতের মেঘালয়ে ৪ দশমিক ৭ মাত্রার ভূমিকম্প

  আফগানিস্তানে বিমান হামলায় ৫ জঙ্গি নিহত

  ভয়াবহ হয়ে উঠছে ‘টমাস ফায়ার’, দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়া জুড়ে আতঙ্ক

  ভয়ঙ্কর পরমাণু অস্ত্রের মজুদে শীর্ষে যারা

  রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নির্মূল বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রস্তাব পাশ

  তুরস্কে মিনিবাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত-১১

  পরমাণু কেন্দ্রে মিসাইল হামলা, তোলপাড় আরব দুনিয়া

  ঘুর্ণিঝড়ে ভারত ও শ্রীলঙ্কায় ১৬ জন নিহত, নিখোঁজ শতাধিক

  পৃথিবীর সর্বত্র আঘাত হানতে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উ. কোরিয়ার

  আইএস নির্মূলে যুদ্ধবিমান থেকে মিসাইল ছুড়ছে ইরাক

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহিদুল হক বলেছেন, ‘দেশকে জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে হলে পুলিশের পাশাপাশি জনগণকে কাজ করতে হবে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন?