মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ৩১ মে, ২০১৯, ০২:৩৪:৪৭

নুসরাত হত্যা: আদালতে আইনজীবীদের গালাগালি করলেন আসামিরা

নুসরাত হত্যা: আদালতে আইনজীবীদের গালাগালি করলেন আসামিরা

ডেস্ক রিপোর্টঃ-মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার চার্জশিটভূক্ত ১৬ জনসহ মোট ২১ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়েছে। আদালতে নিয়ে আসার সময় এরা নিজেদের নির্দোষ দাবি করে চিৎকার করতে থাকেন। বলতে থাকেন নুসরাত আত্মহত্যা করেছেন। এছাড়া আসামিরা হ্যান্ডকাপ পরা অবস্থায় বাদীদের দিকে তেড়ে আসেন। তাদের আদালতে উঠানো হলে বাদী পক্ষের আইনজীবীদের লক্ষ্য করে অশ্লীল ভাষায় গালাগালিও করেন।
বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় ফেনী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসেনের আদালতে ২১ আসামিকে হাজির করা হয়। মামলাটি পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে হস্তান্তর করেন আদালত। একইসঙ্গে মামলাটির পরবর্তী তারিখ ১০ জুন ধার্য করেছেন আদালত।
নুসরাতের ভাই বাদী আবদুল্লাহ আল নোমান জানান, অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলাসহ তার অনুগত বাহিনীর কয়েকজন হাতে হ্যান্ডকাপ ও কোমরে দড়ি বাধা অবস্থায় বাদীদেরকে লক্ষ্য করে অশ্লীল ভাষায় গালাগালিসহ হামলা করার জন্য তেড়ে আসার চেষ্টা করে। এসময় পুলিশ তাদের নিয়ন্ত্রণে রাখে।
মোয়াজ্জেম হোসেন এবং সাংবাদিক আবুল হোসেন রিপনকে অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানান। কারণ, ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন ও সাংবাদিক আবুল হোসেনের যোগসাজশে গ্রেফতারকৃত আসামিরা তার বোন নুসরাতের গায়ে আগুন লাগিয়েছে বলে তিনি মনে করেন।
তিনি বলেন, মামলার ধার্য তারিখে তিনি তার আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করে উক্ত দুই ব্যক্তিকে চার্জশিটে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য ট্রাইব্যুনালে বিচারকের নিকট আবেদন করবেন।
এর আগে গত বুধবার বহুল আলোচিত ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলা ও আওয়ামী লীগের দুই স্থানীয় নেতাসহ মোট ১৬ জনের বিরুদ্ধে ফেনীর আদালতে চার্জশিট জমা দেয় তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। এতে প্রত্যেক আসামির মৃত্যুদণ্ড চাওয়া হয়। অধ্যক্ষ সিরাজকে আসামি করা হয়েছে নুসরাতকে হত্যার ‘হুকুমদাতা’ হিসেবে।
কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. গোলাম জিলানী জানান, আগামী ১০ জুন নারী নির্যাতন ও শিশু দমন ট্রাইব্যুনাল আদালত অভিযোগপত্রের ওপর শুনানি হবে।
এ মামলার শুরুতে একজন আইনজীবী মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলার পক্ষে দাঁড়ানোয় আওয়ামী লীগের হাই কমান্ড থেকে তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। এরপর ফেনী জেলা আইনজীবী সমিতির কোন আইনজীবী যেন আসামিদের পক্ষে না দাঁড়ান, সে জন্য অনুরোধও জানানো হয়।
ফলে, গত ২ মাসে আসামিদের পক্ষ নিয়ে কোনো আইনজীবীকে আদালতে দাঁড়াতে দেখা যায়নি। তবে বৃহস্পতিবার নুসরাত হত্যার মামলাটি আদালতে উঠানো হলে, বারের সিনিয়র আইনজীবী গিয়াস উদ্দিন নান্নু আসামি কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা মোকছেদ আলমের পক্ষে জামিনের আবেদন করেন। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে পরবর্তী ধার্য তারিখে ট্রাইব্যুনালে আবেদন করার পরামর্শ দেন।
২৭ মার্চ অধ্যক্ষের নিপীড়নের ঘটনায় নুসরাতের মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা করেন। এরপর গত ৬ এপ্রিল সকালে নুসরাত আলিম পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসায় যান। এ সময় মাদ্রাসার এক ছাত্রী তার বান্ধবী নিশাতকে ছাদের ওপর কেউ মারধর করছে- এমন সংবাদ দিলে নুসরাত ওই ভবনের চার তলায় যান। সেখানে বোরখা পরা চার-পাঁচজন তাকে সিরাজ উদদৌলার বিরুদ্ধে মামলা ও অভিযোগ তুলে নিতে চাপ দেয়। রাফি অস্বীকৃতি জানালে তার গায়ে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়। গত ১০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নুসরাত জাহান রাফি।

এই বিভাগের আরও খবর

  একটি ব্রীজের অভাবে পাঁচ গ্রামের মানুষের চরম দূর্ভোগ

  রাঙ্গামাটি কলেজ গেইট এলাকার জমি বিরোধ নিয়ে প্রয়াত ডা.একে দেওয়ান পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

  বান্দরবানে দুদকের হানা, গ্রেফতার সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ক্যচিং অং মার্মা

  রাঙ্গামাটির খাদ্য অফিসে প্রতি সিডিউল ৩শ টাকা বেশী নেয়ার অভিযোগ!

  সংঘাতের পর নাইক্ষ্যংছড়ি মাদরাসায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কম, উৎকন্ঠায় অভিভাবকরা

  রাঙ্গামাটি ডিসি অফিস সংলগ্ন এলাকায় প্রকাশ্যে ধুমপান করার দায়ে ৬ ব্যক্তিকে জরিমানা

  প্রায় চার বছর পর সম্মেলনের পথে খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগ

  পাহাড়ি কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে গ্রীষ্মকালীন টমেটো উৎপাদন বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ

  রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে গুর্খা সম্প্রদায়ের সৌজন্য সাক্ষাৎ

  রুমার সামাখাল পাড়া থেকে ৬ জনকে অপহরণ করেছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা

  জীবিত এরশাদের চেয়ে মৃত এরশাদ অনেক শক্তিশালী-সোলায়মান আলম শেঠ



 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন