সোমবার, ২৩ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৮, ০৮:১৪:৩০

সরকার সকল সম্প্রদায়ের মানুষের উৎসব উদযাপনের সুযোগ নিশ্চিত করেছে-ড. গওহর রিজভী

সরকার সকল সম্প্রদায়ের মানুষের উৎসব উদযাপনের সুযোগ নিশ্চিত করেছে-ড. গওহর রিজভী

রাঙ্গামাটিঃ-ধর্ম যার যার উৎসব সবার। এই নীতিতে বর্তমান সরকার দেশের সকল সম্প্রদায়ের মানুষের উৎসব উদযাপনে সুযোগ নিশ্চিত করেছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী।
বৃহস্পতিবার (১২ এপ্রিল) দুপুরে রাঙ্গামাটিতে পাহাড়ীদের বৈসাবি উৎসবের র‌্যালী ও কাপ্তাই হ্রদে ফুল ভাসানোর অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।
ড. গওহর রিজভী বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক ও ধর্ম নিরপেক্ষ দেশ। এদেশে অনেক ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠির বসবাস। তারা তাদের নিজস্ব বৈশিষ্ট নিয়ে সকলেই স্বাধীন ভাবে যার যার ধর্ম ও উৎসব পালন করছে। এটা আমাদের দেশের জন্য গৌরবের এবং আনন্দের।
এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা, ভাইস চেয়ারম্যান তরুন কান্তি ঘোষ, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, রাঙ্গামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম ফারুক, জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর কবির উপস্থিত ছিলেন।
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা বলেন, আমাদের পাহাড়ের পার্বত্য চট্টগ্রামের সব চেয়ে বড়  একটা উৎসব। যেখানে জাতি ধর্ম বর্ণ সম্প্রদায় নির্বিশেষে আমরা সবই এই উৎসব পালন করে থাকি। আমরা অত্যন্ত আনন্দিত যে ফুল বিজুর ফুল ভাসানোর দিনে আমরা আমাদের প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর ড. গওহর রিজভী মহোদয়কে আমরা পেয়েছি। আমরা মনে করি যে এবার আমাদের উৎসবে আমাদের সাথে মিলিত হয়েছেন এটা আমাদের সৌভাগ্যের বিষয়।
তিনি বলেন, পাহাড়ের প্রতিটি গ্রামে প্রতিটি মৌজায় খুব জাগজমকপূর্ণ ভাবে উদযাপিত হচ্ছে এবং এই জন্য সরকার এখানকার পার্বত্যবাসী যারা আছেন এবং পার্বত্য জেলায় যারা বসবাস করেন ও তার বাইরেও যারা আছেন সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারী যারা আছেন তাদের জন্য তিন দিনের ঐচ্ছিক ছুটির ব্যবস্থা করা হয়েছে। কাজেই আজকে যারা বাইরে চাকুরী করেন অনেকেই এই উৎসবে সমবেত হয়েছেন। তাই আমি মনে করি যে সবার জন্য এই বৈসাবী মঙ্গল বয়ে আনবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
এর আগে ড. গওহর রিজভী বৈসাবির র‌্যালীর উদ্বোধন করেন এবং ফুল বিজু উপলক্ষে কাপ্তাই হ্রদে ফুল ভাসান। এসময় ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের গড়াইয়া ও বিজু নৃত্য পরিবেশন করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  পরিবেশ ও মানব জীবনে বৃক্ষের ভূমিকা অপরিসীম-বীর বাহাদুর এমপি

  ২০২১ সালের মধ্যেই বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে রুপান্তরিত হবে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  কাপ্তাইয়ে হাসপাতালে লাশ ফেলে স্বজনের পলায়ন

  কাপ্তাই হ্রদে খাচায় মাছ চাষ পদ্ধতি সফল হলে ২৫ ভাগ মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে

  সরকারের উন্নয়নের ধারবাহিকতা সাধারণ মানুষের দৌঁড়গোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  ৩০ লক্ষ শহীদদের স্মরনেঃ রাঙ্গামাটিতে ৬০৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৫৬ হাজার গাছের চারা রোপন

  খাগড়াছড়ির বিভিন্ন উপজেলায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর আয়োজন

  শহীদদের স্মরণে ৩০ লক্ষ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালনে অংশ নিল "প্রিয় রাঙ্গামাটি"

  জুরাছড়িতে শহীদদের স্মরণে বৃক্ষ রোপন

  দীঘিনালায় মৎস্য দপ্তরের সংবাদ সম্মেলনঃ এবার বন্যায় মাছ চাষীদের ২ কোটি টাকার অধিক ক্ষতি

  লংগদুতে মুক্তিযোদ্ধে শহীদদের স্মরণে প্রশাসনের বৃক্ষরোপন



 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন