মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১১ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৮:০৩:২২

অথনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন অগ্রযাত্রা জনগণের দোড়গৌড়ায় পৌঁছে দিতে দিতে হবে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

অথনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন অগ্রযাত্রা জনগণের দোড়গৌড়ায় পৌঁছে দিতে দিতে হবে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

রাঙ্গামাটিঃ-সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পর্কে জনগণকে অবহিত ও জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট প্রকল্প গ্রহণকে ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে রাঙ্গামাটিতে তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার আয়োজন করেছে জেলা প্রশাসন। রাঙ্গামাটি কুমার সুমিত রায় জিমনেশিয়াম প্রাঙ্গণে শুরু হওয়া এই মেলা চলবে আগামী শনিবার পর্যন্ত।
বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারী) সকালে নিজ কার্যালয় থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে শুরু হওয়া উন্নয়ন মেলা উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পর বেলুন ও শান্তির পায়রা উড়িয়ে রাঙ্গামাটিতে মেলার উদ্বোধন করেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের সচিব নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা।
এর আগে সকাল ৯টায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক কাার্যালয়ের চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কুমার সমিত রায় জিমনেসিয়াম প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়। পরে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক মানজারুল মান্নানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের সচিব নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা।
এসময় রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের চেয়াম্যান বৃষকেতু চাকমা, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মানজারুল মান্নান, জোন কমান্ডার রেদুয়ানুল ইসলাম, রাঙ্গামাটি প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রাণেনেন্দু চাকমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের সচিব নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত মধ্যম আয়ের বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যেকে সামনে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশে টেকসই অথনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন অগ্রযাত্রা জনগণের দোড়গৌড়ায় পৌঁছে দিতে দিতে হবে।
তিনি আরো বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের জন্য প্রধানমন্ত্রী যথেষ্ট আন্তরিক। তাই পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নের জন্য আলাদা মন্ত্রাণালয় গঠন করেছেন। ২০০৯ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত দেশের অন্যান্য জেলার পাশাপাশি পার্বত্য চট্টগ্রামে অনেকাংশে উন্নয়ন তরান্বিত হয়েছে। এর এই উন্নয়নের অংশীদার ও অর্জন এলাকার সবার। আর এই উন্নয়নকে এলাকার মানুষদের কাছে তুলে ধরতে এবং তার সাথে জনগণকে একাত্ম করতেই আয়োজন করা হচ্ছে উন্নয়ন মেলা। এতে করে বর্তমান সরকারের সময় নেওয়া বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের সঙ্গে দেশের প্রান্তিক জনগণসহ আপামর জনগোষ্ঠীগুলো দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা জানতে পারবে।
আলোচনা সভা শেষে উদ্বোধন শেষে মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা ও জেলা প্রশাসকসহ অন্যান্য সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তাবৃন্দ। তৃতীয় বারের রাঙ্গামাটির এই উন্নয়ন মেলায় ৭০টি স্টল বসেছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  একমাত্র শেখ হাসিনার সরকারেই পারে সকল ধর্মের উৎসবকে মূখরিত করে তুলতে-বীর বাহাদুর এমপি

  শিশুদের সুস্থ ও সবল মন নিয়ে বেড়ে উঠা প্রয়োজন-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  পাহাড়ে অপরাধ বন্ধে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডকে আরো বেগবান করতে হবে-সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী

  রাঙ্গামাটি ও বান্দরবানে অস্ত্রসহ আটক-২

  খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ওপর সন্ত্রাসীদের হামলা, আটক-৪

  বান্দরবানে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, আহত-১৩

  পার্বত্য অঞ্চলের জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূলধারায় নিয়ে আসতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  খাগড়াছড়িতে ব্রাশ ফায়ারে ২ দিনের ব্যবধানে ইউপিডিএফ কর্মী খুন, প্রতিপক্ষের হামলায় তিন কর্মী আহত

  মিড-ডে মিল’ চালু হলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আর অভুক্ত থাকবে না-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  আলীকদমে ত্রাণের ঢেউটিন বিক্রিঃ মেম্বারসহ দুইজনের নামে মামলা

  বান্দরবানে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের তথ্য নিয়ে সাংবাদিকদের ওরিয়েন্টশন কর্মশালা



 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন