মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৫৯:২০

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

মুরগীর খামারে শান্তনা চাকমার সাফল্য

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-কামিলাছড়ি এলাকার বাসিন্দা শান্তনা চাকমা মুরগির খামার করে সাফল্য পেয়েছেন। পারিবারিক গৃহস্থালী কাজের পাশাপাশি শান্তনা এই মুরগীর খামার গড়ে তুলেছেন বলে জানা গেছে। তার খামারে শতাধিক দেশী মুরগি রয়েছে। প্রতিদিন সকাল দুপুর বিকাল শান্তনা চাকমা নিজ হাতে মুরগীদের খাবার দেন। খাবারের সময় হলে কিছু মুরগী দল বেঁধে খামারের সামনে চলে আসে। আবার কিছু কিছু মুরগি পাহাড়ের আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়ায় আর পোকা মাকড় খায়। মুরগিদের খাবার দেবার জন্য শান্তনা বিশেষ এক ধরনের ব্যবস্থা করেছেন। একটি মোটা বাঁশকে দুই ফালি করে একটি ফালি শুন্যে ঝলিয়ে রাখেন। পরে ঐ বাঁশের ফালির মধ্যে শান্তনা নিজ হাতে খাবার রাখেন। মুরগির দল বাঁশের ফালির মধ্যে রাখা খাবার খায়।
শান্তনা জানান, তার খামারে বিভিন্ন ধরনের মুরগি রয়েছে। বড় রাতা মুরগি আছে ১২টি। ডিম পাড়া মুরগি আছে ৪০টি। এছাড়াও বিভিন্ন রকমের মুরগি খামারে রয়েছে। শান্তনা প্রতিদিন খামার থেকে বেশ কিছু দেশী মুরগীর ডিম পান। ঐ ডিম নিজেরা খান। পাশাপাশি আত্মীয় স্বজন ও পাড়া প্রতিবেশীদেরও দেন। কিছু ডিম বাজারে বিক্রি করেন। তিনি বলেন, বাজারে দেশী মুরগির ডিমের যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। বাজারে নেবার সাথে সাথে ডিম বিক্র হয়ে যায়। অনেকে ডিমের জন্য আগাম টাকা দিয়ে রেখেছেন। ডিম পাওয়া গেলেই টাকা প্রদানকারীদের আগে ডিম সরবরাহ করেন বলেও তিনি জানান। মুরগী লালন পালনের জন্য শান্তনা চাকমা বাড়ীর আঙ্গীনায় একটি ঘর বানিয়েছেন। মুরগির দল সারাদিন বাহিরে ঘুরে বেড়ায়। আর সন্ধ্যা হলেই ঘরে চলে আসে। শান্তনা বলেন, পাহাড়ী মুরগির প্রতিও অনেকের আগ্রহ আছে। সাংসারিক প্রয়োজনে তিনি প্রায় সময় মুরগি বিক্রি করতে স্থানীয় বাজারে নিয়ে যান। বাজারে নেবার আগেই পথ থেকে অনেকে মুরগি কিনে নিয় যায় বলে শান্তনা জানান। মুরগির খামার করে শান্তনা সাফল্য পেয়েছেন বলেও এই প্রতিনিধিকে জানান। প্রতিনিয়ত মুরগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় শান্তনা অনেক খুশি।

এই বিভাগের আরও খবর

  একমাত্র শেখ হাসিনার সরকারেই পারে সকল ধর্মের উৎসবকে মূখরিত করে তুলতে-বীর বাহাদুর এমপি

  পাহাড়ে অপরাধ বন্ধে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডকে আরো বেগবান করতে হবে-সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী

  রাঙ্গামাটি ও বান্দরবানে অস্ত্রসহ আটক-২

  খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ওপর সন্ত্রাসীদের হামলা, আটক-৪

  বান্দরবানে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ, আহত-১৩

  পার্বত্য অঞ্চলের জনগোষ্ঠীকে উন্নয়নের মূলধারায় নিয়ে আসতে কাজ করে যাচ্ছে সরকার-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  খাগড়াছড়িতে ব্রাশ ফায়ারে ২ দিনের ব্যবধানে ইউপিডিএফ কর্মী খুন, প্রতিপক্ষের হামলায় তিন কর্মী আহত

  মিড-ডে মিল’ চালু হলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আর অভুক্ত থাকবে না-কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

  আলীকদমে ত্রাণের ঢেউটিন বিক্রিঃ মেম্বারসহ দুইজনের নামে মামলা

  বান্দরবানে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের তথ্য নিয়ে সাংবাদিকদের ওরিয়েন্টশন কর্মশালা

  কর বৃদ্ধি ছাড়াই লামা পৌরসভার ১৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা



 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন