মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ০৩:৫৫:০৯

প্রিয়জনদের সাথে ভুল বোঝাবুঝি হয় যেভাবে

প্রিয়জনদের সাথে ভুল বোঝাবুঝি হয় যেভাবে

ডেস্ক রিপোর্টঃ-সম্পর্ক থাকলে সেখানে মান অভিমান, কথা কাটাকাটি হবেই। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আবার তা মিটেও যাবে। কিন্তু প্রতিটা সম্পর্কের ক্ষেত্রে একটা ব্যাপার খুব বেশি দেখা যায়। তা হল ভুল বোঝাবুঝি। আমরা কখনও কখনও কাছের মানুষটাকে ভুল বিচার করে ফেলি। দেখা যায় হয়তো সে একরকম বোঝাতে চাইছে, অথচ আমরা সেটা না বুঝে তাকে ভুল বুঝছি। এই ভুল বোঝাবুঝি থেকেই সম্পর্কে জটিলতা, দূরত্ব এমনকি বিচ্ছেদ পর্যন্ত হতে পারে।
যখনই আমরা কোনো সম্পর্কে থাকি, তখন মনে করি আমাদের সঙ্গীরাও আমাদের মতো করেই ভাববে। কিন্তু আমাদের প্রত্যেকের আলাদা আলাদা চিন্তা শক্তি রয়েছে। আমরা সবাই আলাদা করে ভাবি।
প্রতিটা বিষয়ের বিশ্লেষণ সবার কাছে আলাদা হয়। দেখা যায়, কখনও কখনও আমাদের খুব কাছের কারও সঙ্গে কোনো বিষয় নিয়ে মতের মিল হল না। তখনই তার প্রতি আমাদের চিন্তাধারা পাল্টে যায়।
একবার যদি কারও সঙ্গে মতের অমিল হওয়া শুরু হয়, তখন সেই ব্যক্তির কোন কিছুই আমাদের পছন্দ হয় না। মনে মনে তার প্রতি একটা বাজে ধারণা জন্ম নিতে শুরু করে। কাওকে ভুল বিচার করার সূত্রপাত এখান থেকেই হয়।
এরকম সমস্যা দেখা দিলে একটা বিষয় আমাদের মাথায় রাখতে হবে যে, আমরা সবাই আলাদা আলাদা ভাবে ভাবি। তাই সব বিষয় যে মতের মিল হবেই অনেক ক্ষেত্রে এমন নাও হতে পারে। এর নিরিখে কাউকে বিচার করা উচিৎ নয়। সম্পর্কের জটিলতা এড়াতে তাই প্রত্যেকের চিন্তাধারাকে তার মতো করে মেনে নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। নাহলে অকারণেই মানসিক চাপ বাড়ে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?