বুধবার, ২৪ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ৩১ জানুয়ারী, ২০১৮, ০৭:৪২:২৬

এসএসসি পরীক্ষা শুরু বৃহস্পতিবার, পরীক্ষার্থী ২০ লাখ-শিক্ষামন্ত্রী

এসএসসি পরীক্ষা শুরু বৃহস্পতিবার, পরীক্ষার্থী ২০ লাখ-শিক্ষামন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্টঃ-শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হতে যাচ্ছে। এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ৩ হাজার ৪১২টি কেন্দ্রে ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮শ ৮৯ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবেন। এর মধ্যে ১০ লাখ ২৩ হাজার ২শ ১২ জন ছাত্র এবং ছাত্রী রয়েছেন ১০ লাখ ৮ হাজার ৬শ ৮৭ জন। গত বছরের চেয়ে এবার পরীক্ষার্থী বেড়েছে ২ লাখ ৪৫ হাজার ২৮৬ জন। গত বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬শ ১৩ জন।
বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান তিনি।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এসএসসিতে মোট পরীক্ষার্থী ১৬ লাখ ২৭ হাজার ৩৭৮ জন, মাদ্রাসা বোর্ডের অধীন দাখিল পরীক্ষায় দুই লাখ ৮৯ হাজার ৭৫২ জন এবং কারিগরিতে এক লাখ ১৪ হাজার ৭৬৯ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।
তিনি আরও বলেন, ১ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) তত্ত্বীয় বিষয়ের ২৪ দিনে ১৭ দিন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকালে ১০টা থেকে বেলা ১টা এবং বিকেলে ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা।

এই বিভাগের আরও খবর

  সরকারি হলো আরো ১৯ স্কুল ও তিন কলেজ

  পদোন্নতি পাচ্ছেন মাধ্যমিকের ৫০ শতাংশ শিক্ষক

  পদোন্নতি পেলেন ৪২০ সহকারী শিক্ষক

  ‘পরীক্ষা কেন্দ্রের ২০০ মিটারের মধ্যে মোবাইল নিলেই গ্রেপ্তার’

  প্রশ্ন ফাঁসকারীকে ধরিয়ে দিলে ৫ লাখ টাকা পুরস্কার-নাহিদ

  এসএসসি পরীক্ষা শুরু বৃহস্পতিবার, পরীক্ষার্থী ২০ লাখ-শিক্ষামন্ত্রী

  ১ ফেব্রুয়ারি এসএসসি পরীক্ষাঃ আজ থেকেই সকল কোচিং সেন্টার বন্ধ, ‘প্রশ্ন ফাঁসের প্রমাণ মিললেই পরীক্ষা বাতিল’

  জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ৩০ ডিসেম্বর

  জেএসসি-জেডিসিঃ প্রথম দিনে অনুপস্থিত ৬০ হাজার ৮৯৩ পরীক্ষার্থী, বহিষ্কার ১৬ জন

  শুরু হলো জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা

  ৩৭তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৫৩৭৯ জন

  0

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?