শনিবার, ২১ অক্টোবর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ০৪ আগস্ট, ২০১৭, ০১:০৪:৫৯

সেন্টমার্টিন বঙ্গোপসাগর থেকে ৩ লাখ পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৬ নাগরিক আটক, ট্রলার জব্দ

সেন্টমার্টিন বঙ্গোপসাগর থেকে ৩ লাখ পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৬ নাগরিক আটক, ট্রলার জব্দ

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফঃ-রোহিঙ্গারা প্রতিনিয়ত মিয়ানমার হতে সাগর পথে নিত্য নতুন কৌশল এখতিয়ার করে মরন নেশা ইয়াবা পাচার করে যাচ্ছে। সে ইয়াবার পাচার বন্ধ করতে আজ টেকনাফের জেলেরা রাতের বেলায় মাছ শিকার ও করতে পারছেনা। তার পর ও  কোন মতে দমন করা যাচ্ছে না এসব কারবার। ফের টেকনাফের সেন্টমার্টিন বঙ্গোপসাগরে থেকে অভিযান চালিয়ে ৩ লাখ পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের ৬জন নাগরিককে আটক করেছে কোস্টগার্ডের সদস্যরা। এসময় একটি ট্রলার ও জব্দ করা হয়। বৃহস্পতিবার (৩ আগষ্ট) সেন্টমার্টিনের ছেড়া দ্বীপের পূর্বে এলাকা থেকে ইয়াবাসহ ৬ মাঝিমাল্লাকে আটক করা হয়েছে।
আটকতৃকরা হলো, মিয়ানমারের মংডু শহরের মৃত সোলতান আহাম্মদের ছেলে রহিম উল্লাহ (৫০), মৃত কাদের আহাম্মদের ছেলে এনামুল হোসেন (১৬), মকবুল হোসেনের ছেলে নাজির আহমেদ (৬৫), মৃত হাবিলের ছেলে মো. করিম (১৭), মৃত মোহাম্মদ মো. রফিক (১৪) ও মৃত রহিম উল্লাহর ছেলে মো. ফারুক (১৫)।
টেকনাফ কোস্টগার্ড ষ্টেশন কর্মান্ডার লে. এম জাফর ইমান সজীব জানান বৃহস্পতিবার ভোর রাতে মিয়ানমারের মাছ ধরার একটি ট্রলার নিয়ে ৬জন মাঝিমাল্লা সাগরে মাছ ধরার বেশ ধরে একটি ইয়াবা বড় চালান পাচার করছে এমন গোপন সংবাদ পেয়ে তার নেতৃত্বে কোস্টগার্ডের একটি বিশেষ টিম সেন্টমার্টিনের ছেড়াদ্বীপের পূর্বে অবস্থান নেন। এসময় মিয়ানমারের সীমান্ত থেকে আসা একটি ট্রলারকে থামানো সংকেত প্রদান করে। তারা সংকেত অমান্য করে পালানোর চেষ্টা করে। পরে ধাওয়া করে মিয়ানমারের ৬জন মাঝিমাল্লাসহ একটি ইঞ্জিন সালিত ট্রলার জব্দ করা হয়। ট্রলারে তল্লাশি চালিয়ে ইঞ্জিনের বক্সের ভেতর থেকে একটি বস্তা উদ্ধার করে। উদ্ধার বস্তার ভেতর থেকে ৩ লাখ পিস ইয়াবা বড়ি পাওয়া যায়। যার দাম ১৫ কোটি টাকা। তাদের বিরুদ্ধে মাদক ও অবৈধ অনুপ্রবেশ দায়ে পৃথক মামলা দিয়ে থানায় সোর্পদ করা হবে। এছাড়া ইয়াবা রোধে নাফনদী ও সাগরে কোস্টগাডের টহল জোরদার করা হয়েছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

এই বিভাগের আরও খবর

  ভুখন্ড রক্ষা ও মানুষের ভোগান্তি লাঘবে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে-এমপি বদি

  অবশেষে শাহপরীরদ্বীপবাসীর দাবী বিধ্বস্থ বেড়িবাঁধ বাস্তবায়নের পথে

  একদিনে আরো অর্ধলক্ষাধিক রোহিঙ্গার প্রবেশ

  টেকনাফে আবার ও নৌকা ডুবি ১১মৃতদেহ উদ্ধারঃ নিখোঁজ-৩৮

  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বন্যহাতির আক্রমণ, একই পরিবারে নিহত-৪, আহত-২

  টেকনাফে আরও এক রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার

  টেকনাফে ফের সাড়ে ২৮ হাজার মালিক বিহীন ইয়াবা উদ্ধার

  সাঁতার কেটে নদী পাড়ি দিয়ে ১১ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে

  টেকনাফে নৌকা ডুবি: আরও ১১ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার

  নাফ নদীতে নৌকাডুবি, শিশুসহ ১২ রোহিঙ্গার প্রাণহানি

  বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে ৯১ হাজার রোহিঙ্গা নিবন্ধিত

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ সম্পূর্ণ মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিলেও এখন এটা বাংলাদেশের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আপনি কি তার এ বক্তব্যের সঙ্গে একমত?