মঙ্গলবার, ২১ মে ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯, ০৭:১২:৫৯

টেকনাফে গরু-মহিষের মাংস বিক্রিতে গলাকাঁটা বাণিজ্যঃ ভোক্তা অধিকার আইন আছে প্রয়োগ নেই

টেকনাফে গরু-মহিষের মাংস বিক্রিতে গলাকাঁটা বাণিজ্যঃ ভোক্তা অধিকার আইন আছে প্রয়োগ নেই

টেকনাফঃ-ভোক্তা অধিকার আইন আছে প্রয়োগ নেই। এমনই অবস্থা চলছে দেশের সর্বদক্ষিন সীমান্ত টেকনাফ পৌরসভাসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে।
গরু-মহিষের মাংস বিক্রিতে সিন্ডিকেট সৃষ্টি করে ক্রেতাদের উপর চালিয়ে যাচ্ছে গলাকাঁটা বাণিজ্য। ফলে মাংস ব্যবসায়ীরা চড়া মূল্যে মাংস বিক্রিতে হাতাশায় ভোগছেন সাধারন ক্রেতারা। রবিবার (২১ এপ্রিল) সকালে টেকনাফ পৌরশহর ও আশপাশের এলাকায় এমন চিত্র দেখা গেছে।
কিছু অসাধু ব্যবসায়ীদের কারণে মাংসের বাজার নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে গেলেও প্রশাসনের কোন  নজরদারী নেই বলে অভিযোগ করেছেন ভোক্তারা। এনিয়ে ফেইজবুকসহ সোশ্যাল মিডিয়াতে চলছে ক্ষোভে তোলপাড়া।
টেকনাফ পৌর বাস ষ্টেষনে কথা হয় পুরাতন পল্লান পাড়ার আবদুল হাকিম নামের এক গোস্ত ক্রেতার সাথে, তিনি জানান ৬শ পঞ্চাশ টাকা দামে শবেবরাত উপলক্ষে গোস্ত ক্রয় করেছেন। সাবরাং আছারবনিয়া এলাকার আদনান ফারুক জানান দক্ষিন নয়াপাড়া বাজার হতে তিনি ৭শ টাকা দামে গরুর মাংস করেছে।
এভাবে চড়া মূল্যে মাংস বিক্রি করার ফলে নিম্ন আয়ের অনেকে মাংস ক্রয় করতে না পেরে হতাশা ব্যক্ত করেছেন। আসন্ন রমজান মৌসুমে এই মূল্য আরো বাড়তে পারে বলে অনেকে ধারনা করছেন। এমনকি টেকনাফ উপজেলা প্রশাসন চত্বরেও অতিরিক্তি মুল্যে মাংস বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।অথচ প্রশাসন এব্যাপারে বে-খবর। এনিয়ে ভোক্তাদের মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে। স্থানীয় সচেত মহলের দাবী মজার মনিটরিং না থাকায় বাজার নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে যাচ্ছে। শীঘ্রই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে যেকোনো ঘটনা ঘটে যেতে পারে। প্রভাব পড়তে পারে মাংসের দামের ওপর। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী মাংসের অতিরিক্ত দাম রাখায় এ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে অভিযোগও শুনা যায়। প্রশাসনের বাজার মনিটরিং এবং ভ্রাম্যমান আদালত কার্যক্রম ব্যবস্থা ঝিমিয়ে পড়ার কারণে অসাধু কসাইরা এ সুযোগ হাতে নিয়েছে বলে অভিযোগ ক্রেতাসাধারনের।

এই বিভাগের আরও খবর

  কক্সবাজারে বজ্রাঘাতে ভাই-বোনসহ তিনজন নিহত, আহত-৫

  টেকনাফে ফের কথিত বন্দুক যুদ্ধে নিহত

  টেকনাফে আটকের পর ইয়াবা উদ্ধারে গিয়ে 'বন্দুকযুদ্ধে' কারবারি নিহত

  কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-৩

  ফের সমুদ্রপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা, রোহিঙ্গা নারীসহ উদ্ধার-৮

  রোহিঙ্গা শিবিরে পাহাড় ধসে দুই শিশু নিহত

  টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক বিক্রেতা নিহত

  জলসীমা অতিক্রম করে মিয়ানমার অভ্যন্তরে প্রবেশের চেষ্টা নৌকাসহ বাংলাদেশী জেলে আটক

  কক্সবাজারে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-২

  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ২০ মাসে লক্ষাধিক শিশুর জন্ম, জনমনে উদ্বেগ!

  পাকস্থলীতে করে ইয়াবা পাচারকালে পটিয়ার মাহবুব আটক

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ভোটের পর থেকে সংসদে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে আসা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলের নির্বাচিতদের শপথ নেওয়ায় সম্মতি দিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সঠিক কাজটিই করেছেন। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?