বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

বুধবার, ১০ এপ্রিল, ২০১৯, ০৯:৪৮:৩৪

সেন্টমার্টিন বঙ্গোপসাগরে ৩ ফিশিং ট্রলার ডুবিঃ ৮ জেলে নিখোঁজ

সেন্টমার্টিন বঙ্গোপসাগরে ৩ ফিশিং ট্রলার ডুবিঃ ৮ জেলে নিখোঁজ

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফঃ-কক্সবাজার টেকনাফের প্রবালদ্বীপ সেন্টমার্টিনের অদূরে বঙ্গোপসাগরে ৩টি ফিশিং ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় ১ট্রলারসহ  ৮ জেলে নিখোঁজ রয়েছে
সুত্রে জানা যায়, বুধবার (১০ এপ্রিল) ভোর রাতে বৈরী আবহাওয়ায় ট্রলার গুলি ডুবে যায়। আশেপাশে বহু ফিশিং ট্রলার মাছধরারত ছিল। এসব ট্রলারের মাঝি-মাল্লারা ৩টি ট্রলারের ২৪ জন মাঝি-মাল্লার মধ্যে ১৮জনকে উদ্ধার করে বুধবার সন্ধ্যায় শাহপরীরদ্বীপ ঘাটে নিয়ে আসে। উদ্ধার ও নিখোঁজ জেলেরা টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপ এলাকার বাসিন্দা।
 ডুবে যাওয়া ট্রলারের মালিক ও উদ্ধার জেলেদের সাথে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে। ট্রলারের মালিক টেকনাফ শাহ পরীর দ্বীপের বাসিন্দা বদিউল আলম, কবির আহমদ, মো. জোবায়ের বলে জানা যায়।
শাহপরীর দ্বীপের স্থানীয় ইউপি মহিলা মেম্বার ছেনুয়ারা  ট্রলার মালিকদের বরাত দিয়ে জানান, বুধবার (১০ এপ্রিল) ভোর রাতে বৈরী আবহাওয়ায় তিনটি ট্রলার ডুবে গেলে ট্রলারের মাঝি-মাল্লারা ৩টি ট্রলারের ২৪ জন মাঝি-মাল্লার মধ্যে ১৮জনকে উদ্ধার করে বুধবার সন্ধ্যায় শাহপরীরদ্বীপ ঘাটে নিয়ে আসে। এখেনো ৮জেলে নিখোঁজ রয়েছে।
টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট ফয়েজুল ইসলাম মন্ডল বলেন, ট্রলার ডুবির ঘটনা এখনো শুনিনি। এ ব্যাপারে কেউ আমাদের জানায়নি। এরপরও খোঁজ নিয়ে দেখছি।

এই বিভাগের আরও খবর

  ২২ আগস্ট থেকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু

  টেকনাফে পুলিশের গুলিতে মাদক কারবারী নিহত, তিন পুলিশ আহত

  টেকনাফে চিকিৎসকসহ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত-৮

  টেকনাফে রোহিঙ্গা ডাকাত হাকিমের ভাই ও স্ত্রীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

  টেকনাফে গবাদি পশুর হাটঃ মিয়ানমারের গবাদি পশু’র সয়লাব

  টেকনাফ বিজিবির সাথে মাদককাবারীর গুলাগুলিঃ রোহিঙ্গাসহ নিহত-২,আহত-৪

  টেকনাফে পুলিশ-ডাকাত বন্দুকযুদ্ধ নিহত-৪, অস্ত্রসহ আটক-২

  ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে টেকনাফ ব্যবসায়ীর মৃত্যু

  টেকনাফ সাগর উপকুলে গুলাগুলিতে নিহত-১, আহত-২, অস্ত্র, ইয়াবাও অটোরিকসা জব্দ

  টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

  রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?