মঙ্গলবার, ২১ মে ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৪ এপ্রিল, ২০১৯, ০৭:০৮:২০

আধিপত্য বিস্তার ও ভাগভাটোয়ারাকে কেন্দ্র করে স্বশস্ত্র ডাকাতের হাতে ডাকাত খুন

আধিপত্য বিস্তার ও ভাগভাটোয়ারাকে কেন্দ্র করে স্বশস্ত্র ডাকাতের হাতে ডাকাত খুন

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফঃ-কক্সবাজার টেকনাফে নয়াপাড়া শর্ণার্থী ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ে অবস্থান নেওয়া রোহিঙ্গা স্বশস্ত্র ডাকাত গ্রুপের প্রকাশ্য গুলিতে হাশেম ডাকাত নামে এক ব্যক্তি খুন হয়েছে। খুন হওয়া ডাকাত হাশেম কথিত শিশু অপহরণের মূলহোতা।
সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টারদিকে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়ণের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের মাহমুদুল হাসান, জকির ও কালা সেলিমের নেতৃত্বে পার্শ্ববর্তী পাহাড় হতে বিশেষ পোশাক (স্বশস্ত্র গ্রুপের) পরিহিত এবং মুখোশধারী ১০/১২জনের স্বশস্ত্র একটি ডাকাত গ্রুপ নেমে নয়াপাড়া ক্যাম্পের এইচ ব্লকে গিয়ে পীর মোহাম্মদের পুত্র ও কথিত শিশু অপহরণের মূল হোতা মোঃ হাশেম ওরফে ডাকাত হাশেম (৩৫) কে বাড়ি থেকে বের করে এলোপাতাড়ি গুলিকরে রক্তাক্ত ও আহতাবস্থায় ফেলে বীরদর্পে পাহাড়ের দিকে চলে যায় বলে দাবী করেন প্রত্যক্ষদর্শী রোহিঙ্গারা। ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ হাশেমকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ক্যাম্পের হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল সোয়া ১১টায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
নয়াপাড়া শরর্ণার্থী ক্যাম্প পুলিশের উপ-পরিদর্শক আব্দুস সালাম জানান, নয়াপাড়া ক্যাম্পের এইচ ব্লক হতে গুলিবিদ্ধ হাশেমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে হাসপাতালে মারা যায়। তার মৃতদেহ উদ্ধার করে কক্সবাজার  মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
এদিকে স¤প্রতি উদ্ধার হওয়া শিশু কাউছারের স্বজনের দাবী, শিশু অপহরণের অভিযোগে আটক দুই রোহিঙ্গা দূর্বৃত্তদের অপকর্মের মূলনায়ক, প্রকাশ্যে দূবৃর্ত্তদের গুলিতে নিহত মোঃ হাশেম বলে জানায়।
ক্যাম্পে বসবাসরত রোহিঙ্গা সুত্রে জানা যায়, স¤প্রতি নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে আধিপত্য বিস্তারের জেরধরে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার চেষ্টা, খুন, ভাড়াটে, মাদকের চালান লুটপাট ও শিশু অপহরণ করে মুক্তিপণ বাণিজ্য নিয়ে মুখোমুখী অবস্থানে রয়েছে। ক্যাম্পে আইন-শৃংখলা রক্ষায় নিয়োজিত বাহিনীর স্বাভাবিক কার্য্যক্রম চ্যালেঞ্জিং হয়ে পড়ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে নয়াপাড়া রেহিঙ্গা ক্যাম্পে আধিপত্য বিস্তার ও ভাগভাটোয়ারাকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা নেতাসহ একাধিক ব্যাক্তি নিহত হয়েছে। এই ধরনের অপতৎপরতায় প্রাণহানির ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি, স্থানীয় পার্শ্ববর্তী জনসাধারণ পর্যন্ত উদ্মিগ্ন ও আতংকের মধ্যে রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  কক্সবাজারে বজ্রাঘাতে ভাই-বোনসহ তিনজন নিহত, আহত-৫

  টেকনাফে ফের কথিত বন্দুক যুদ্ধে নিহত

  টেকনাফে আটকের পর ইয়াবা উদ্ধারে গিয়ে 'বন্দুকযুদ্ধে' কারবারি নিহত

  কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-৩

  ফের সমুদ্রপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা, রোহিঙ্গা নারীসহ উদ্ধার-৮

  রোহিঙ্গা শিবিরে পাহাড় ধসে দুই শিশু নিহত

  টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক বিক্রেতা নিহত

  জলসীমা অতিক্রম করে মিয়ানমার অভ্যন্তরে প্রবেশের চেষ্টা নৌকাসহ বাংলাদেশী জেলে আটক

  কক্সবাজারে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত-২

  রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ২০ মাসে লক্ষাধিক শিশুর জন্ম, জনমনে উদ্বেগ!

  পাকস্থলীতে করে ইয়াবা পাচারকালে পটিয়ার মাহবুব আটক

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ভোটের পর থেকে সংসদে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে আসা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলের নির্বাচিতদের শপথ নেওয়ায় সম্মতি দিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সঠিক কাজটিই করেছেন। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?