শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ০৪ মে, ২০১৮, ০৪:৫৭:২৪

মিয়ানমারে নির্যাতনের লোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন রোহিঙ্গারা

মিয়ানমারে নির্যাতনের লোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন রোহিঙ্গারা

কক্সবাজারঃ-ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর ৬৮ জন প্রতিনিধি কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। প্রতিনিধিগণ ৪ টি ভাগে ভাগ হয়ে ২০ জন করে রাখা নির্যাতিত রোহিঙ্গা সদস্যদের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন।
শুক্রবার সকাল ১০ টায় প্রতিনিধি দল কক্সবাজারে পৌঁছলে হোটেল লং বিচে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী প্রতিনিধি দলকে রোহিঙ্গাদের সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করেন। প্রতিনিধি দল প্রথমে উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। ওআইসি’র নারী প্রতিনিধি দলের সদস্যরা কুতুপালং ক্যাম্পে মিয়ানমারে নির্যাতিত নারীদের সাথে কথা বলেন। এসময় মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর দ্বারা লোমহর্ষক যৌন নির্যাতনের কথা তুলে ধরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন রোহিঙ্গা নারী ও শিশু। এসময় সেনাবাহিনীর নির্যাতনের কথা শুনে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন ওআইসি’র প্রতিনিধি দলের সদস্যরাও।
প্রতিনিধি দলের সদস্যরা ক্যাম্প ভিজিটের পর সংবাদ সম্মেলনে ওআইসি’র সহকারী মহাসচিব হাশমি ইউসুফ বলেন, বাংলাদেশের রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সাথে জোরালোভাবে কাজ করবে ওআইসিভুক্ত দেশগুলো। রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরে যেতে চায়। তারা যাতে নিরাপদে নাগরিকত্ব নিয়ে স্বসম্মানে নিজ দেশে ফিরে যেতে পারে সেজন্য বাংলাদেশের পাশে থাকবে জাতিসংঘ। মিয়ানমারের ওপর রোহিঙ্গাদের টেকসই ও নিরাপদ প্রত্যাবাসনে সারাবিশ্বের চাপ রয়েছে বলে মত প্রকাশ করেন প্রতিনিধি দলের প্রধান হাশমি ইউসুফ।
এসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, ডিআইজি ড. এএসএম মনিরুজ্জামান, শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) মো. আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নিকারুজ্জামানসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?