বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০১৭, ০২:৫৩:০৪

কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়ার যাত্রা, পথে পথে বিএনপির শোডাউন

কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়ার যাত্রা, পথে পথে বিএনপির শোডাউন

ডেস্ক রিপোর্টঃ-রোহিঙ্গাদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণের উদ্দেশ্যে কক্সবাজারে যাত্রা করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি রবিবার বেলা সোয়া ১২ টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ থেকে কক্সবাজারের পথে রওনা হন। এদিকে, খালেদা জিয়াকে এক নজর দেখতে ও সংবর্ধনা জানাতে দক্ষিণ চট্টগ্রামের চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে জড়ো হয়েছেন বিএনপি নেতাকর্মীসহ হাজার হাজার মানুষ।
সকাল থেকেই দক্ষিণ চট্টগ্রামের পটিয়া, চন্দনাইশ, সাতকানিয়া ও লোহাগাড়া উপজেলার মূল সড়কে অবস্থান নিয়ে স্বাগত স্লোগান দিচ্ছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। সার্কিট হাউজ থেকে ফিরিঙ্গি বাজার, নতুন চাক্তাই, কর্ণফুলীর নতুন সেতু হয়ে দীর্ঘ পথের দুই ধারে ছিলো মানুষের স্রোত। প্লেকার্ড, ফ্যাস্টুন ব্যানার তোরণে ছাওয়া পুরো রাস্তা। দলের নেতা কর্মীদের শোডাউনে তাদের হাতে ছিলো স্থানীয় এমপি প্রার্থী হতে আগ্রহীদের ছবি।
বেগম খালেদা জিয়ার সামনে পিছনে বিশাল গাড়িবহর। নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসাহ-উদ্দীপনার আবহ। কোথাও কোথাও সড়কের পাশে মঞ্চ পেতে বক্তৃতা দিচ্ছেন স্থানীয় নেতারা। যেনো নির্বাচনী প্রচারণার মহড়া। দলীয় নেতাকর্মীদের পাশাপাশি গ্রামের সাধারণ নারী-পুরুষও খালেদা জিয়াকে দেখার জন্য রাস্তার পাশে দাঁড়িয়েছে। ভিড়ের কারণে ধীর গতিতে চলছে বহর।
আজ রবিবার কক্সবাজার শহরে রাত্রিযাপন করে আগামীকাল সোমবার সকাল ১১টায় উখিয়ায় বালুখালি পানবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্প, বালুখালি-২, হাকিমপাড়া ও শফি উল্লাহকাটা ঢালা ক্যাম্প পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণ করবেন খালেদা জিয়া। ওই দিন বিকেলে কক্সবাজার হয়ে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে তার রাত্রি যাপন করার কথা রয়েছে।
এদিকে তার সফরসূচি সফল ও তদারকি করতে শুক্রবারই কক্সবাজারে এসেছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খাঁন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম ও জাতীয় মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস। এছাড়া বেগম খালেদা জিয়ার সাথে রয়েছেন মির্জা ফখরুলসহ একডজন কেন্দ্রীয় নেতা। মির্জা আব্বাস ও নজরুল ইসলাম খাঁন কক্সবাজারে এসে জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দদের সাথে দফায় দফায় মিটিংয়ে বসে সবকিছু তদারকি করছেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে চালু হওয়া ‘না’ ভোট একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ সংশোধনের উদ্যোগের মধ্যে পুনঃপ্রবর্তনের প্রস্তাব করেছে নাগরিক সংগঠন সুজন। আপনি কি তা সমর্থন করেন?