বুধবার, ১৭ জুলাই ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ২১ জুন, ২০১৯, ০৭:৪৩:২৮

বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবসে বক্তারাঃ তামাকমুক্ত নগর গড়তে সম্মিলিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই

বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবসে বক্তারাঃ তামাকমুক্ত নগর গড়তে সম্মিলিত প্রচেষ্টার বিকল্প নেই

চট্টগ্রামঃ-চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেছেন, তামাকমুক্ত শহর গড়ে তুলতে সম্মিলিত প্রচেষ্টার কোনো বিকল্প নেই। কারো একার পক্ষে এ কাজ সফল এবং বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। একই সঙ্গে তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণাকে বাস্তবায়ন করতে হবে।’
বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ের উদ্যোগে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।  
অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ইপসা, বিটা, ইলমা, মমতা এবং ক্যাব। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (এমও) ডা. মো. ওয়াজেদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অভিফার ডা. মো. নুরুল হায়দার। বক্তব্য রাখেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. গোলাম মো. তৈয়ব আলী, ইপসার প্রোগ্রাম অফিসার মো. ওমর শাহেদ হিরো, বিটার প্রকল্প সমন্বয়ক প্রদীপ আচার্য প্রমুখ। এর আগে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের উদ্যোগে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালি উদ্বোধন করেন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মাশহুদুল কবীর। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগের পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির।  
সিভিল সার্জন বলেন, ‘ফুসফুসের বিভিন্ন রোগের প্রধান কারণ তামাক ব্যবহার এবং পরোক্ষ ধূমপান। তামাক ব্যবহার এবং তামাকজনিত বিভিন্ন রোগের কারণে দেশে প্রতিবছর প্রায় ১ লক্ষ ৬১ হাজার মানুষ মারা যায়। এমন অবস্থায় তামাক নিয়ন্ত্রণে সবাইকে সম্মিলিতভাবে উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।'

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

এলডিপি সভাপতি অলি আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশে এখন টাকা থাকলে সব রকম অন্যায় করে পার পাওয়া যায়। আপনি কি তা ঠিক মনে করেন?