শনিবার, ২০ জুলাই ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৭ জুন, ২০১৯, ০৭:৪৭:৩৫

চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে যাত্রীসেজে ছিনতাইকারী সিন্ডিকেটের ৪ সদস্য কারাগারে

চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে যাত্রীসেজে ছিনতাইকারী সিন্ডিকেটের ৪ সদস্য কারাগারে

চট্টগ্রামঃ-চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে যাত্রী সেজে ছিনতাইকারী সিন্ডিকেটের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। সোমবার (১৭ জুন) আদালতের মাধ্যমে তাদের চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। গত শনিবার (১৫ জুন) ক্যাম্পাসে ফেরার পথে চুয়েট ছাত্র জিয়ান আহমেদ ছিনতাইকারীর শিকার হয়। ঘটনার পরপর পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে।
ছিনতাইকারী সিন্ডিকেটের সদস্যরা হলেন, বাঁশখালি উপজেলার ইলশা ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মাস্টার বাড়ির মো. ইউনুছের পুত্র মো. আরমান (২৩), বোয়ালখালী উপজেলার কদুরখীল ইউনিয়নের পাঠান পাড়া গ্রামের শেখ বাড়ির মো. নাছেরের পুত্র মহিউদ্দিন শরীফ (২৪), বোয়ালখালী উপজেলার চরনদ্বীপ ইউনিয়নের সৈয়দ নগর গ্রামের মোনাফ মাস্টারের বাড়ির মো. আবুল কালাম আজাদের পুত্র ইমন (১৯) ও নোয়াখাীল জেলার সুধারাম থানার সোনাপুর ইউনিয়নের ললু ভুইয়ার হাট গ্রামের মাহমুদুল হকের পুত্র সিনএজি টেক্সী চালক মো. রিপন (২০)।
পুলিশ জানিয়েছে, সন্ধ্যার পর পরই সিএনজি টেক্সী নিয়ে রাতে বের হয়ে পড়তো ওরা। যাত্রী সেজে ছুরি ধরে ছিনতাই করাই তাদের পেশা।
গত শনিবার ১৫ জুন চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) ইইই’১৭ বিভাগের ছাত্র জিয়ান আহমেদ সিএনজিযোগে ক্যাম্পাসে যাওয়ার পথে শিকার হন ছিনতাইয়ের।
উরকিরচর ইউনিয়নের মাইজ্জে মিয়ার ঘাটা এলাকায় চালকসহ যাত্রী ছদ্মবেশী ৪ জন সিএনজি অটোরিক্সাতে উঠে কোমড় থেকে ছুরি বের করে ভয় দেখিয়ে ছিনতাই করে এক হাজার দুইশত ত্রিশ টাকা। ঘটনাস্থলে লোকজনের উপস্থিতি দেখে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। পরে টহল পুলিশকে ঘটনার কথা জানালে তাৎক্ষণিক অভিযান চালায় তারা। অভিযান চালিয়ে সিএনজি টেক্সী চালক আরমানকে আটক করে।
সিএনজি টেক্সী চালককে সঙ্গে নিয়ে অভিযান চালিয়ে ছিনতাইকারী সিন্ডিকেটের আরো ৩ জনকে আটক করে পুলিশ। এসময় ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত সিএনজি টেক্সী (চট্টগ্রাম-থ-১২-০১৯১) ও একটি ছুরি ও চুয়েট ছাত্রের কাছ থেকে ছিনতাইকৃত টাকা উদ্ধার করা হয়।
এ প্রসঙ্গে রাউজান থানার সেকেন্ড অফিসার নুর নবী বলেন, ‘চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কের যাত্রী সেজে ছিনতাইকারী সক্রিয় চার সদস্যকে আটক করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

এলডিপি সভাপতি অলি আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশে এখন টাকা থাকলে সব রকম অন্যায় করে পার পাওয়া যায়। আপনি কি তা ঠিক মনে করেন?