শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ০৫ মে, ২০১৯, ০৯:০৫:৩১

তিন দিন পর ফের সচল চট্টগ্রাম বন্দর

তিন দিন পর ফের সচল চট্টগ্রাম বন্দর

চট্টগ্রামঃ-ঘূর্ণিঝড় ফণী’র আশঙ্কামুক্ত হওয়ার পর চট্টগ্রাম বন্দরের বর্হিনোঙ্গর থেকে জেটিতে ফিরতে শুরু করেছে পণ্যবোঝায় জাহাজ। রবিবার (৫ মে) দুপুর দেড়টা পর্যন্ত মোট ১৩টি জাহাজ বিভিন্ন জেটিতে পণ্য খালাসের জন্য ভিগেছে। এর ফলে তিনদিন পর আবারও পুরোদমে সচল হয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর।
বন্দরের সচিব মো. ওমর ফারুক বলেন, পণ্য খালাসের জন্য আমাদের ২৪টি জাহাজের শিডিউল আছে। সকালের জোয়ারের সময় ১৩টি জাহাজ এসেছে। বিকেলের জোয়ারে আসবে আরও ৫টি। স্পেশাল বার্থে বাকিগুলোও আসবে বলে আশা করছি।’
গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপদসংকেত দেখানোর পর বন্দর কর্তৃপক্ষ অ্যালার্ট-থ্রি জারি করে। ওইদিন দুপুর থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে পণ্য উঠানামাসহ সব ধরনের অপারেশনাল কার্যক্রম বন্ধ থাকে। জেটি থেকে ২১টি জাহাজকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় বর্হিনোঙ্গরে। বন্দরের জেটি ও ইয়ার্ডে কনটেইনারসহ পণ্য ওঠানামার সরঞ্জামগুলোকে বেঁধে রাখা হয়। গত শুক্রবার পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দরে ১৭০টি জাহাজ ছিল। এর মধ্যে ফণী’র কারণে খোলা পণ্য ও কনটেইনার নিয়ে আটকা পড়ে ৪০টি জাহাজ।
বন্দরের সচিব বলেন, কনটেইনার ও খোলা পণ্য ডেলিভারি শনিবার বিকেল থেকেই শুরু হয়। এখন থেকে জেটিতেও জাহাজে পণ্য উঠানামা শুরু হয়েছে।
তবে সাগর উত্তাল থাকায় বর্হিনোঙ্গর এবং আভ্যন্তরীণ নৌরুটে লাইটারেজ জাহাজ, ফিশিং ভেসেলসহ অন্যান্য নৌযান চলাচল এখনও বন্ধ রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  চট্টগ্রামে নতুন করে আরো ৩১ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

  চট্টগ্রামে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

  কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণে প্রস্তুত চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন

  চট্টগ্রামের কোরবানির বাজারে অতিরিক্ত পশু, নেই কোন সঙ্কট

  সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর কবরে সাবেক ছাত্র নেতা সহকারী এ্যটর্ণি জেনারেল এডভোকেট এস.আর সিদ্দিকী সাইফের পুষ্পস্তপক অর্পণ

  বছর জুড়ে চলবে এডিস মশার বিরুদ্ধে অভিযান- মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন

  চট্টগ্রামেও ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ছে

  'ফেসবুকে গুজবের নিউজ শেয়ার করলে মামলা'

  লালদিয়ার চরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান শুরু

  চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে আবারও হাজিদের টাকা চুরি

  চট্টগ্রাম বোর্ডে বাড়ছে জিপিএ ৫, কমেছে পাসের হার

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?