মঙ্গলবার, ১৪ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৪ জুন, ২০১৮, ০৯:১৬:৩৩

চট্টগ্রাম বন্দর এলাকায় শক্তিশালী টর্নেডোর আঘাত, ১০জন আহত

চট্টগ্রাম বন্দর এলাকায় শক্তিশালী টর্নেডোর আঘাত, ১০জন আহত

চট্টগ্রামঃ-চট্টগ্রাম বন্দর এলাকায় শক্তিশালী টর্নেডো আঘাত হেনেছে। মাত্র ৩০ সেকেন্ড স্থায়ীত্বের এই টর্নেডোর আঘাতে বন্দরের জেটিতে বাঁধা ‘এমভি ওইএল স্ট্রেইটস’ নামের একটি কনটেইনারবাহী বিদেশি জাহাজের দড়ি ছিড়ে গেছে। ফলে জাহাজটি জেটি থেকে আলাদা হয়ে কর্ণফুলী নদীর মাঝ সীমানায় চলে গেছে। এছাড়া বন্দরের সিসিটি ইয়ার্ডের প্রায় অর্ধশতাধিক পণ্যভর্তি ও খালি কনটেইনার এলোমেলোভাবে পড়ে যায়। উড়িয়ে নিয়ে গেছে ৯, ১২ ও ১৩ নম্বর শেডের ছাউনি। ভেঙে গেছে ডক অফিসের সীমানা প্রাচীরও। এ সময় অন্তত ১০ জন শ্রমিক আহত হন বলে জানা গেছে।
টার্মিনাল ম্যানেজার গোলাম মো. সারওয়ারুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে নয়টার দিকে মাত্র ৩০ সেকেন্ড স্থায়ী টর্নেডো বন্দরের সিসিটি ইয়ার্ড এলাকায় আঘাত হানে। এ সময় কিছু পণ্যভর্তি ও খালি কনটেইনার এলোমেলোভাবে পড়ে যায়। জেটিতে অবস্থানরত একটি কনটেইনারবাহী জাহাজের দড়ি ছিড়ে যায় এবং কিছু শেডও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
বন্দরের সচিব মো. ওমর ফারুক জানান, টর্নেডোর প্রভাবে উল্লেখযোগ্য ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে এর স্থায়ীত্ব দীর্ঘায়িত হলে অকল্পনীয় ক্ষতি হতো। দড়ি ছিড়ে যাওয়া এমভি ওইএল স্ট্রেইটস জাহাজটি টাগ বোটের সহায়তায় পুনরায় জেটিতে আনা হয়েছে। শেডে আহত শ্রমিকদের প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  চট্টগ্রাম নগরের নির্ধারিত ৩৪১ স্থানে পশু জবাই

  চট্টগ্রামে বন্দুকযুদ্ধে ১৮ মামলার আসামি নিহত

  পানির ট্যাংকে প্রাণ গেল সহোদরসহ ৩ জনের

  চট্টগ্রামে অস্ত্রসহ চার যুবক গ্রেপ্তার

  চট্টগ্রামে তামাকজাত দ্রব্য ও ধূমপান বিরোধী অভিযান

  চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে শিক্ষার্থী-শ্রমিকের মধ্যে উত্তেজনা, পুলিশের হস্তক্ষেপে শান্তি

  চট্টগ্রামে ১৬ কেজি স্বর্ণের বারসহ গ্রেফতার-১

  পায়েল হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

  নিরাপদ সড়কের দাবিতে চট্টগ্রামেও রাস্তায় শিক্ষার্থীরা

  চট্টগ্রাম বন্দরে ১ কোটি ২০ লাখ টাকার ‘তাস’ আটক

  শিল্পকলা একাডেমির কমিটিকে বরণ করলেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?