রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৮, ০৭:৪২:০২

দক্ষিণ চট্টগ্রামের ত্রাস 'দা বাহিনী' প্রধান পিতা-পুত্র ২টি অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার

দক্ষিণ চট্টগ্রামের ত্রাস 'দা বাহিনী' প্রধান পিতা-পুত্র ২টি অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামঃ-পাহাড়ে ও লোকালয়ে বসবাসকারী সাধারণ মানুসের আতংঙ্ক চট্টগ্রামের বাঁশখালী-কক্রাবাজারের পেকুয়া এলাকার দা বাহিনীর প্রধান পিতা-পুত্রকে দুটি দেশীয় অস্ত্র ও চার রাউন্ড কার্তুজসহ গ্রেপ্তার করেছে বাঁশখালী থানা পুলিশ। দীর্ঘদিন র‌্যাব পুলিশ 'দা বাহিনী'র আস্তানায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করতে পারেনি। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার পুঁইছড়ী ইউনিয়নের জঙ্গল পুঁইছড়ীর রিজার্ভ এলাকার গহীন পাহাড়ে তাদের আস্তানায় অভিযান চালায়।
শনিবার গভীর রাত থেকে রবিবার সকাল পর্যন্ত টানা ৬ ঘন্টার অভিযানে নেতৃত্বে দেন থানা পুলিশের ওসি তদন্ত মো: কামাল উদ্দীন ও এস. আই. মোঃ ফারুকসহ ৩০ জনের পুলিশ সদস্য। অভিযানে দা বাহিনীর প্রধান নুরুল হুদা পুইন্যা ডাকাত (৪৮) ও তার পুত্র জসিম উদ্দীন জইস্যা ডাকাতকে আটক করতে সক্ষম হয়। এ সময় তাদের আস্তানা হতে একটি দেশীয় একনলা বন্দুক, একটি দেশীয় এল.জি. চার রাউন্ড কার্তুজসহ ডাকাতিতে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করে পুলিশ।
আটক পিতা-পুত্রের বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি, অপহরণ, বন আইনে ও অস্ত্রসহ বাঁশখালী কুতুবদীয়া, পেকুয়া, চকরিয়াসহ বিভিন্ন থানায় ১৮টির অধিক মামলা রয়েছে বলে থানাসূত্রে জানা যায়। এদিকে 'দা বাহিনী'র প্রধান পিতা-পুত্র আটক হওয়ায় এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে আনন্দ পরিলক্ষিত হয়েছে।
আটক ও অস্ত্র উদ্ধারের সত্যতা স্বীকার করে থানা পুলিশের ওসি মো: কামাল হোসেন বলেন, আটককৃত পিতা-পুত্র বাঁশখালী পেকুয়ায় দীর্ঘদিন বিভিন্ন অপরাধ সংগটিত করে সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক জীবন যাপনের বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আটক পিতা-পুত্রের বিরুদ্ধে দুটি নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, কয়েক বছর যাবৎ বাঁশখালী-পেকুয়া সীমান্তে পাহাড়ি এলাকায় 'দা বাহিনী' নামে একটি গ্রুপ মানুষের জান-মালের ক্ষতি সাধন করে আসছিল। এলাকার সাধারণ মানুষের কাছে আতংকের অপর নাম 'দা বাহিনী'। এলাকায় সাধারণ মানুষের কাছে প্রচার রয়েছে 'দা বাহিনী'র পৃষ্টপোষকতায় রয়েছে পেকুয়ার টৈটং ইউপির চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ও বাঁশখালীর পুঁইছড়ী ইউপির ২ সদস্য।

এই বিভাগের আরও খবর

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিদায়ী সরকারের অধিকাংশ মন্ত্রীকে বাদ দিয়ে সরকার গঠন ‘স্বাভাবিক হয়নি’ মন্তব্য করে বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘অস্বাভাবিক’ নির্বাচনের পর এই ‘অস্বাভাবিক’ সরকার বেশি দিন টিকবে না। আপনি কি তা মনে করেন?