সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ০১:৫৪:৫৫

দুর্নীতিবাজদের তথাকথিত জাতীয় ঐক্য হয়েছে-প্রধানমন্ত্রী

দুর্নীতিবাজদের তথাকথিত জাতীয় ঐক্য হয়েছে-প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্টঃ-সরকারের পতন ঘটাতে দুর্নীতিবাজদের তথাকথিত জাতীয় ঐক্য হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের কোনো আপত্তি নেই জানিয়ে তিনি বলেন, জনগণ তাদের ভোট দেবে না। নৌকা মার্কাই জয়ী হবে।
রবিবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের হোটেল হিলটনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের অপরাধটা কী? দোষটা কী? সরকার উৎখাত করতে হবে কেন? কী কারণে? কী কাজটা করিনি দেশের জন্য?”
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং তার দুই ছেলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগগুলো তুলে ধরে শেখ হাসিনা যুক্তফ্রন্ট ও ‘জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া’ নিয়ে বলেন, “এরা সব এক জায়গায়। কেউ সুদখোর, কেউ ঘুষখোর, কেউ মানি লন্ডারিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত, কেউ খুনী। এভাবে সব আজকে এক জায়গায়। যারা মানুষ হত্যাকারীদের সঙ্গে জোট করতে পারে, তাদের মুখে দেশের স্বার্থের কথা মানায় না।'
উন্নয়ন চাইলে আগামীতে আবারও নৌকাকে বিজয়ী করার আহ্বান জানিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, “আগামী ইলেকশনের আগে আমার তো আর আসার সুযোগ হবে না। তাই আপনাদের কাছে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে যাচ্ছি।”

এই বিভাগের আরও খবর

  চট্টগ্রামে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-৩

  চট্টগ্রামে সাড়ে তিন কোটি টাকার ইয়াবাসহ মডেল আটক

  কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ে রেকর্ড করেছে চট্টগ্রাম বন্দর

  সীতাকুণ্ড থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

  মাদকাসক্ত নির্মূলের প্রতিবেদন দিতে সিএমপিকে নির্দেশ

  অবশেষে রেলের সেই শতকোটি টাকার জায়গা উদ্ধার

  ৫২৮ কোটি টাকায় চার লেন হচ্ছে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সড়ক

  মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিলঃ খুন নয়, আত্মহত্যা করেছে তাসফিয়া

  ভোরের কাগজ প্রতিনিধি সম্মেলনঃ শ্রেষ্ঠ কাগজ প্রতিবেদক হিসাবে রাঙ্গামাটির নন্দন দেবনাথ পুরস্কৃত

  চট্টগ্রামে পুলিশকে গুলি, আটক-৩

  চট্টগ্রামে প্রশ্ন ফাঁসঃ অভিভাবকের জিম্মায় ১১ শিক্ষার্থীর জামিন

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে চালু হওয়া ‘না’ ভোট একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ সংশোধনের উদ্যোগের মধ্যে পুনঃপ্রবর্তনের প্রস্তাব করেছে নাগরিক সংগঠন সুজন। আপনি কি তা সমর্থন করেন?