বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯, ০৩:১০:১৯

আসছে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া ২’, পরিচালকের টুইটে জল্পনা তুঙ্গে!

আসছে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া ২’, পরিচালকের টুইটে জল্পনা তুঙ্গে!

বিনোদন ডেস্কঃ-প্রায় ৩০ বছরেরও ওপর হয়ে গেছে মুক্তি পেয়েছে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’। কিন্তু ছবির প্রত্যেকটি দৃশ্য এবং প্রেক্ষাপট আজও যেন জ্বলজ্বল করছে সিনেপ্রেমীদের মনে। ১৯৮৭ সাল থেকে এখন পর্যন্ত সেই উৎসাহ যেন এতটুকুও কমেনি।  তাই ছবির সিক্যুয়েল আনার কথা ভাবা হয়েছিল বলে শোনা যায়। কিন্তু শ্রীদেবীর অকাল মৃত্যুতে স্তব্ধ হয়ে যায় ‘মিস্টার ইন্ডিয়া ২’ ছবি নিয়ে যাবতীয় পরিকল্পনা।
এবার অনিল কাপুর টুইটারে যে ছবিটি পোস্ট করেছেন, তাতে আবার কৌতূহলী হয়ে উঠেছে দর্শক। মনে হচ্ছে এবার হয়তো পর্দায় আবার দেখা যাবে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ম্যাজিক। টুইটারে সম্প্রতি একটি ছবি পোস্ট করেছেন অনিল কাপুর। তাতে লিখেছেন, তিনি আর শেখর কাপুর নতুন প্রজেক্ট আনতে চান। তাই একসঙ্গে আলোচনা করছেন। ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ছবির আগে ঠিক যেমন ম্যাজিক তারা তৈরি করেছিলেন, এবারও তেমনটাই করতে চান। তবে জল্পনা উসকে দিয়েছে শেখর কাপুরের টুইট। তিনি সরাসরি লিখেছেন, “মিস্টার ইন্ডিয়া ২ বা অন্য ছবি নিয়ে আলোচনা করছি।”
২০১২ সালে বনি কাপুর ঘোষণা করেছিলেন তিনি ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ছবির সিক্যুয়েল বানাবেন। কিন্তু শ্রীদেবীর মৃত্যুর পর তা চাপা পড়ে যায়। নির্মাতাদের মতে যেখানে শ্রীদেবী আর অমরেশ পুরী, দু’জনেই সেই, সেখানে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ছবির সিক্যুয়েল হবে কী করে? এদিকে বেঁকে বসেছিলেন শেখর কাপুরও। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিলেন, বনি কাপুর যা পরিকল্পনা করছেন, সেই প্রজেক্টে তিনি হাত দেবেন না। তার উপর আবার শ্রীদেবী প্রয়াত। অতএব ওই ছবি করার কোনও প্রশ্নই ওঠে না।
চলতি বছরের গোড়ার দিকে একই কথার প্রতিধ্বনিত হয়েছিল অনিল কাপুরের গলাতেও। তিনি বলেছিলেন, এখনও কোনো গল্প ঠিক হয়নি। আর তাছাড়া এই ছবিতে তিনি হাতও দিতে চান না। কারণ এক তো বনি কাপুর ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ ছবির সিক্যুয়েল করবেন বলে ঠিক করেছেন। তার উপর শ্রীদেবী ও অমরেশ পুরীর মতো অভিনেতার বদলে অন্য কাউকে ভাবাই যায় না।   

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?