বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ০৮ এপ্রিল, ২০১৮, ০৮:৩৫:৩০

জেলমুক্ত সালমান মুম্বাইয়ের পথে, দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

জেলমুক্ত সালমান মুম্বাইয়ের পথে, দেশ ত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

বিনোদন ডেস্কঃ-জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন সালমান খান। শনিবার সন্ধ্যায় তিনি যোধপুর সেন্ট্রাল জেল থেকে ছাড়া পান। জেলা থেকে বেরিয়ে তিনি বিমানবন্দরে যান। সেখান থেকে তিনি একটি চার্টার্ড বিমানে মুম্বাই রওনা হন।
তবে আদালত বলেছে, ৭ মে সালমানকে আদালতে হাজিরা দিতে হবে। বিদেশ যেতে হলে তাকে আদালতের অনুমতি নিতে হবে।
কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে দুই রাত কাটানো পর জামিন পান বলিউড সুপারস্টার সালমান খান।  শনিবার বিকেল ৩টায় বিচারক রবীন্দ্র কুমার জোশী তার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেছেন। রায় প্রদানের সময় সালমানের বোন আলভিরা ও দেহরক্ষী শেরা আদালতে ছিলেন। ৫০,০০০ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন পেয়েছেন তিনি।  সেশনস কোর্ট থেকে জামিনের আবেদন যায় ট্রায়াল কোর্টে। সেখান থেকে সালমানের জামিনের কাগজপত্র সন্ধ্যার আগে জেলে পৌঁছায়। তারপর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।
এর আগে কৃষ্ণসার শিকার মামলায় অপরাধী সাব্যস্ত হলে সালমান খানকে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে পাঠানো হয়। আজ তার জামিনের আবেদনের রায় হওয়ার কথা থাকলেও শুক্রবার বদলি হয়ে যান সংশ্লিষ্ট বিচারক। ফলে অনেকেই বলেন, যতদিন না নতুন বিচারক কাজ বুঝে নিচ্ছেন, ততদিন জেলেই কাটাতে হবে সালমান খানকে।
এ দিন সকাল সাড়ে ১০টায় জোধপুর সেশনস কোর্টে শেষ হয় সালমান খানের জামিনের শুনানি। তার পর বিচারক জোশী জানান, দুপুরে এ বিষয়ে রায় শোনানো হবে। দুপুর তিনটার দিকে সালমানের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেছেন তিনি।
২০ বছর আগেকার কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার পর সালমানকে রাখা হয়েছে জোধপুর সেন্ট্রাল জেলে। শুক্রবার রাতে তাকে ডাল, রুটি, তরকারি খেতে দেয়া হয়। জেল সূত্রে খবর, বিচারক বদলির খবর পেয়ে তিনি নাকি অস্থির হয়ে পড়েছিলেন। রাতে দু’চোখের পাতা এক করতে পারেননি।

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?