শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

মঙ্গলবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৭, ০২:৩৫:২৮

সত্যিই ভয়ঙ্কর এই সর্বভুক প্রাণী, তাজ্জব বিজ্ঞানীরা!

সত্যিই ভয়ঙ্কর এই সর্বভুক প্রাণী, তাজ্জব বিজ্ঞানীরা!

ডেস্ক রির্পোটঃ-সভ্যতার প্রথম থেকেই মানুষের ইচ্ছে ‘দেখব এবার জগৎটাকে’। কিন্তু এত বছরের গবেষণার পরেও পৃথিবীর বিপুল জীবজগতের বৈচিত্র্যময় সম্ভারের সবটুকু মানুষের গোচরে এসেছে, একথা জোর দিয়ে বলা যায় না।
এই দুর্দান্ত শিকারি প্রাণীটির কথাই উদাহরণ স্বরূপ বলা যায়। এর অস্তিত্ব বহুদিন পর্যন্ত মানুষ জানত না। বিকটদর্শন এই প্রাণীটিকে দেখলে আঁতকে উঠতে হয়। সমুদ্রের তিন হাজার ফুট নীচে পাওয়া যায় একে। নাম ইউলাগিসকা। এন্টার্কটিক মহাসাগরের তলদেশে এই সৃষ্টিছাড়া প্রাণীটির বাস।
ছবি দেখলে মনে হতে পারে হলিউডের ছবিতে দেখানো ভিনগ্রহী  কোনও প্রাণী! এমনই অদ্ভুত শারীরিক গড়ন এর। যেন দুঃস্বপ্নে দেখা কোনও জীব।
শরীরে রয়েছে নানা পাতলা আস্তরণ। সমুদ্রের তলায় অবস্থিত পাথরের গায়ে আটকে বা বালির ভিতর লুকিয়ে থেকে শিকারের জন্য ওত পাতে এই ইউলাগিসকা। শিকার ধরার পরেই আবার শিকারের জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়ে এই লোভী প্রাণী। খাবারের ব্যাপারে কোনও বাছবিচার নেই এর। যা সামনে মেলে তাকেই উদরস্থ করে ফেলে! যা দেখে তাজ্জব বিজ্ঞানীরা।
বিজ্ঞানীরা একে ‘এলিয়েন ওয়ার্ম’ বলে ডাকেন। বহুদিন পর্যন্ত এমন আশ্চর্য প্রাণীটি অনাবিষ্কৃতই ছিল। সন্ধান মেলার পরেও অনেকদিন লেগে গিয়েছিল এর খাদ্যাভ্যাস সম্পর্কে জানতে। এর বিকট চোয়াল সত্যিই ভয়ঙ্কর। শিকারি এই প্রাণী কতটা বিপজ্জনক, তা এর চোয়াল দেখলেই বুঝা যায়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে চালু হওয়া ‘না’ ভোট একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ সংশোধনের উদ্যোগের মধ্যে পুনঃপ্রবর্তনের প্রস্তাব করেছে নাগরিক সংগঠন সুজন। আপনি কি তা সমর্থন করেন?