মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ,২০১৭

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ১৮ জুন, ২০১৭, ০৮:১৮:৩২

বান্দরবানে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের নিরাপদে আনতে অভিযান

বান্দরবানে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের নিরাপদে আনতে অভিযান

লামা (বান্দরবান): পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণস্থানে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার জন্য বান্দরবান জেলা প্রশাসন অভিযান শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে পাহাড়ের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনার জন্য ১৯ দফা নির্দেশনা দিয়ে পত্র জারি করেছেন।
 
বান্দরবান জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার আলী নুরের নেতৃত্বে শহরের কালাঘাটা, বড়ুয়ার টেক, ফেনসি ঘোনা, রাজার গোদা, বীর বাহাদুর নগর, গর্জনিয়া পাড়াসহ বিভিন্ন পাড়ায় ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের সরিয়ে আনতে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। সেখানে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসে ৪৫ থেকে ৫০ পরিবারকে পাওয়া গেছে। বসবাসকারীদের সর্তক করার পাশাপাশি নিরাপদে সরে যেতে নির্দেশ প্রদান করা হয়। যদি নিরাপদ আশ্রয়ে সরে না যায় তবে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান জেলা প্রশাসনের এই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।
 
বান্দরবান জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রাশাসক (সার্বিক) দিদারে আলম মাকসুদ চৌধুরী বলেছেন, পাহাড় ও নিচু এলাকায় যারা ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাস করছে তাদের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। তালিকা তৈরি শেষ হলে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  আলীকদমে অপ্রতিরোধ্য পাথর পাচার, নিরব প্রশাসন

  নাইক্ষ্যংছড়িতে কৃষি সম্প্রসারণ অফিস ভবন উদ্বোধন করলেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর

  বান্দরবানে আর্ন্তজাতিক রোকেয়া দিবস পালিত

  দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ হয়ে তাদের নিমূল করতে হবেই

  লামায় বালুর ট্রাকের চাপায় বৃদ্ধা নিহত

  থানচিতে বেগম রোকেয়া দিবস পালন ও শ্রেষ্ট জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

  ইউকেচিং বীর বিক্রমের নামে বান্দরবান স্টেডিয়ামের নাম করণ করা হবে-বীর বাহাদুর এমপি

  বান্দরবানে কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে লাঙ্গী পাড়া মতবিনিময় সভা

  বেতন-ভাতা ও পেনশনের দাবিতে বান্দরবানে পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

  থানচিতে কৃষকের মাঠ দিবস পালিত

  লামায় বিষপানের ১দিন পরে কিশোরীর মৃত্যু

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহিদুল হক বলেছেন, ‘দেশকে জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত করতে হলে পুলিশের পাশাপাশি জনগণকে কাজ করতে হবে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন?