মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯, ০৪:৪২:০১

বান্দরবা‌নের রুমায় তিন গাড়ি চালককে অপহর‌ণের অভিযোগ

বান্দরবা‌নের রুমায় তিন গাড়ি চালককে অপহর‌ণের অভিযোগ

বান্দরবানঃ-বান্দরবা‌নের রুমায় তিন গাড়ি চালককে অপহর‌ণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মিন‌জি‌রি পাড়ার কা‌ছে সোমবার বিকালে এ ঘটনা ঘ‌টে। অপহৃতরা হলেন- নয়ন জলদাস, মোঃ মিজান ও বাসু কর্মকার। রুমা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
বাসুর বাড়ি উপজেলার লেমুঝিরি পাড়ায়, নয়নের বাড়ি বড়ুয়া পাড়ায় এবং মিজানের বাড়ি চট্টগ্রামের আমিরাবাদ এলাকায় বলে জানা গেছে।
পুলিশ জানায়, রুমা বাজার থেকে সোমবার বিকেলে যাত্রী নিয়ে মুনলায় পাড়ায় যান ওই তিন চাঁদের গাড়ির (জিপ গাড়ি) চালক। মুনলা পাড়ায় যাত্রীদের নামিয়ে রুমা সদরে ফেরার পথে মিনঝিরি এলাকার মুখে এলে তাদের অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।
রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কমকর্তা (ওসি) মো. আবুল হো‌সেন জানান, মিনঝিড়ি পাড়া মুখ থেকে চাঁদের গাড়ির (জিপ গাড়ি) তিন চালককে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। কারা তাদের নিয়ে গেছে তা আমরা এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি। অপহৃতদের উদ্ধারে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

এই বিভাগের আরও খবর

  বান্দরবানে দুদকের হানা, গ্রেফতার সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ক্যচিং অং মার্মা

  সংঘাতের পর নাইক্ষ্যংছড়ি মাদরাসায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কম, উৎকন্ঠায় অভিভাবকরা

  রুমার সামাখাল পাড়া থেকে ৬ জনকে অপহরণ করেছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা

  স্বামী ঘুমে, স্ত্রী ঝুলে আছে ফাঁসিতে !

  নাইক্ষ্যংছড়ি মদিনাতুল উলুম মাদরাসায় অধ্যক্ষ ও বহিরাগতদের উষ্কানীতে হামলা অধ্যক্ষসহ আহত-৩

  আলীকদমে দুইদিন পর নারীর লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ আরেকজন

  লামায় দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে মুখ চেপে ধরে তুলে নিয়ে রাতভর ধর্ষণ

  রামুর গর্জনিয়া সেতুর পাশে উপজাতির লাশ উদ্ধার

  বান্দরবানে ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের মধু পূর্ণিমা উদযাপন

  ২৪ ঘন্টায়ও উদ্ধার হয়নি আলীকদমে নিখোঁজ দুই নারী শ্রমিক দেহঃ উদ্ধার অভিযান শেষ

  আলীকদমে নৌকা ডুবে দুই নারী শ্রমিক নিখোঁজ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?