বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ০৯ জুন, ২০১৯, ০৭:২৫:৫৩

ময়লা ও আবর্জনার দূগন্ধে সাঙ্গু নদীর পার, দেখার কেউ নেই

ময়লা ও আবর্জনার দূগন্ধে সাঙ্গু নদীর পার, দেখার কেউ নেই

শহিদুল ইসলাম (শহিদ) থানচিঃ-সুন্দরের লিলা ভুমিতে থানচিতে দিন দিন বাড়ছে ভ্রমন পিপাসু পযর্টকদের আনাগোনা। তবে সে ক্ষেত্রে বাড়েনি পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা। বাজার পরিচালনা কমিটির উদাসিনতা আর সেনেটারি ইন্সপেক্টর দ্বায়িত্বহীনতা মূল সমস্যা বলে মনে করেন নদীতে চলাচলকারিগন।
উপজেলা সদর থেকে ভ্রমন পিপাসুদের যে কয়েকটিতে যাওয়ার মাধ্যম হল তা সাঙ্গু নদী। কিন্তু এই সাঙ্গু নদীতে থানচি বাজারের হোটেল ও বিভিন্ন ক্রেতা বিক্রেতাদের ফেলে যাওয়া ময়লাগুলো নদীতে ফেলার কারনে নদীর পানি দুষিত হয়ে তা মানুষের মারাত্মক রোগের কারন হতে পারে। বিশেষ করে পর্যটক তথ্যসেবা কেন্দ্র এর নিচে সিঁড়ি থেকে শুরু করে বোট ঘাট পর্যন্ত ছেয়ে গেছে ময়লা যা নদীতে যাতায়াতকারি জনসাধারন ও ভ্রমন পিপাসুদের চলাচলে ব্যাঘাত সৃষ্টি ঘটছে।
এ বিষয়ে উপজেলা যুব উন্নয়ন ক্রেডিট অফিসার সেলিম রেজা প্রতিনিধিকে বলেন, অনেকবার বাজার কর্তৃপক্ষকে বলেছি ময়লা না ফেলার জন্য কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হইনী।
বাজার কমিটির সাধারন সম্পাদক জয়নাল আবেদিন সিকদার থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আসলে কি বলবো বাজার চৌধুরী যেগুলো টয়লেট বা ময়লা ফেলার নির্দিষ্ট জায়গা ছিল তা বিক্রি করে দিয়েছেন।
এদিকে নদীর পারে ফেলা ময়লাগুলো বৃষ্টি কিংবা বাতাসে নদীর পানির সাথে মিশে গিয়ে পানি যেমন দুষিত হচ্ছে নদীতে বাস করা জলপ্রানী কাকড়া ঝিনুক মাছ ইত্যাদি মরে ভেসে উঠতে দেখা গেছে বলে জানান নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক এক নৌকা চালক।
এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফুল হক (মৃদুল) থেকে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বান্দরবানের মিটিং এ আছি। আমি এসে কিভাবে এই সমাস্যা সমাধান করা যায় তা দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
যততত্র ময়লা আবর্জনা ফেলা বন্ধ করা না গেলে এই জনপদের বাসিন্দারা মারাত্মক রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছেন ভুক্তভোগিরা।

 

এই বিভাগের আরও খবর

  লামায় ৩ শত কর্মজীবি মা পেলেন পুষ্টি উন্নয়ন ভাতা

  থানচিতে ১০টাকা কেজি চাউল বিতরন

  সেবা ও অভিযোগ প্রতিকার ব্যবস্থাপনা বাস্তবায়নের কলসেন্টার ‘৩৩৩’ এর প্রচারণার লক্ষে বান্দরবানে সাংবাদিক সম্মেলন

  এ বিদ্যালয়ে ভর্তির আগে সাঁতার শিখতে হয় !

  নাইক্ষ্যংছড়ি ইউপি নির্বাচনঃ নুর মোহাম্মদের প্রত্যাহার, বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত আলী হোসেন

  এনজিওতে নিয়োগের অনিয়মের বিরুদ্ধে আলীকদমে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

  বান্দরবানে দুদকের হানা, গ্রেফতার সদর উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ক্যচিং অং মার্মা

  সংঘাতের পর নাইক্ষ্যংছড়ি মাদরাসায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কম, উৎকন্ঠায় অভিভাবকরা

  রুমার সামাখাল পাড়া থেকে ৬ জনকে অপহরণ করেছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা

  স্বামী ঘুমে, স্ত্রী ঝুলে আছে ফাঁসিতে !

  নাইক্ষ্যংছড়ি মদিনাতুল উলুম মাদরাসায় অধ্যক্ষ ও বহিরাগতদের উষ্কানীতে হামলা অধ্যক্ষসহ আহত-৩

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?