শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

বুধবার, ২২ মে, ২০১৯, ০৯:১১:২৬

পার্বত্য এলাকা আর শিক্ষা ক্ষেত্রে পিঁছনে পড়ে থাকবে না-শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি

পার্বত্য এলাকা আর শিক্ষা ক্ষেত্রে পিঁছনে পড়ে থাকবে না-শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি

বান্দরবানঃ-পার্বত্য এলাকা আর শিক্ষা ক্ষেত্রে পিঁছনে পড়ে থাকবে না, পাহাড়ের জন্য যা যা প্রয়োজন বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতিতে আগামী দিনে বাস্তবায়িত হবে এমনটাই মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি।
বুধবার (২২ মে) সকালে বান্দরবানের অরুণ সারকি টাউন হলে শিক্ষার জন্য আলো ও সোলার চালিত মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমের সরঞ্জাম প্রদান অনুষ্টান শেষে সাংবাদিকদের শিক্ষা মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এসময় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি আরো বলেন, বান্দরবানে আবাসিক বিদ্যালয় হবে, বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ চলমান রয়েছে আর এখানে পলিটেকনিক্যাল ইনিস্টিটিউট ও হবে। তিনি এসময় আরো বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যময় এই পার্বত্য জেলা বান্দরবানে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ছাত্র-ছাত্রীরা ছুটে আসবে এবং শিক্ষার জন্য বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানে ভর্তি হয়ে উন্নত শিক্ষা গ্রহণ করতে পারবে। তিনি পার্বত্য এলাকায় শীঘ্রই শিক্ষক সংকট দূর হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বক্তব্যে রাখতে গিয়ে বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। বর্তমান সরকারের আমলে পাহাড়ে শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এসময় পার্বত্য মন্ত্রী আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের ছেলে মেয়েরা সুশিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার জন্য শিক্ষা ক্ষেত্রে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
অনুষ্টানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
এসময় বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো: সোহরাব হোসাইন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব মো: মেসবাহুল ইসলাম, বান্দরবানের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদারসহ উপজেলা ইউএনও, উপজেলা চেয়ারম্যান, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক ও সরকারি কর্মকর্তাসহ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
সরঞ্জাম বিতরণ অনুষ্ঠানে শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য ১৯৭৩ সালে একটি আলাদা বোর্ড গঠনে নির্দেশ দিয়েছিলেন। এই অঞ্চলে জনগোষ্ঠীদের মান উন্নয়নের সরকার বহুমুখি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। পার্বত্য অঞ্চলে সার্বিক উন্নয়নের জন্য সপ্তম ও পঞ্চম বার্ষিক উন্নয়ন রয়েছে তাতে উন্নয়নের কৌশল ও অগ্রধিকার নির্মাণের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে উন্নয়ন কর্মসূচী হাতে নিয়েছে। দুর্গম পার্বত্য এলাকায় নতুন বিদ্যালয় স্থাপন এবং সংস্কারের মাধ্যমে বিশ হাজারের বেশি শিশুর লেখাপড়ার সুযোগ সৃস্টি হয়েছে। পার্বত্য এলাকায় যেন কোনভাবে একজন শিশু শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত না হয়। আশা করছি এখন আর শিক্ষক সংকট থাকবে না। অতি শীঘ্রই এর সমাধান করতে যাচ্ছি।
অনুষ্ঠান শেষে বান্দরবান সদর ভাগ্যকুল নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, লামা হারগাজা নিম্মমাধ্যমিক বিদ্যালয়,  আলীকদম সনে মেরিন চর পাড়া নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নাইক্ষ্যংছড়ি সোনাই ছড়ি নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, থানচি রেমাক্রী নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, রোয়াংছড়ি নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও রুমা কানন রেসিডেন্সিয়াল নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ ৭টি বিদুৎ বিহীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সোলার মাল্টিমিডিয়া সেটের সরঞ্জাম  প্রদান করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

এই বিভাগের আরও খবর

  চার শর্ত পূরণ হলে মিয়ানমারে ফিরবে রোহিঙ্গারা

  বান্দরবানে বর্ণাঢ্য আয়োজনে সনাতন ধর্মালম্বীদের শ্রী শ্রী জন্মাষ্টমী উৎসবের উদ্বোধন

  রুমায় ৩ ড্রাইভারকে অপহরণ ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

  ২১ আগস্ট নৃশংস গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে বান্দরবানে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

  থানচিতে মিছিল ও প্রতিবাদ সভাঃ গ্রেনেড হামলাকারীরা এখনও ষড়যন্ত্র করছে

  লামায় মাতামুহুরী নদী হতে বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার

  বান্দরবানের জীপ গাড়ির ৩ ড্রাইভারকে অপহরণ উদ্ধারে অভিযানে নেমেছে যৌথবাহিনী

  পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশের উদ্যোগে বান্দরবান বাজারে মশা নিধোক ওষুধ স্প্রে

  লামায় ১৩ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত, জনমনে আতংক

  বান্দরবা‌নের রুমায় তিন গাড়ি চালককে অপহর‌ণের অভিযোগ

  নাইক্ষংছড়ির ঘুমধুম সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে ৪০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?