বুধবার, ২০ মার্চ ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ, ২০১৯, ০৬:৫৪:১২

লামায় স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আলীকদমে নির্বাচন অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ

লামায় স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আলীকদমে নির্বাচন অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামাঃ-বান্দরবানের লামায় উপজেলা নির্বাচনে আচরণবিধি ভঙ্গের কারণে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন আওয়ামীলীগের প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট বাথোয়াইচিং মার্মা। অপরদিকে বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায়  ভারপ্রাপ্ত নির্বাচন অফিসার কর্তৃক বিতর্কিত ও প্রার্থীর আত্মীয়কে সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসার করায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আবুল কালাম।
লামা উপজেলার আওয়ামীলীগের প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট বাথোয়াইচিং মার্মার ১৩ মার্চ লামার সহকারী রিটার্নিং অফিসারের মাধ্যম দিয়ে বান্দরবান জেলার রিটার্নিং অফিসারের কাছে অভিযোগ করেন। অভিযোগে উল্লেখ করেন, লামায় স্বতন্ত্র উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আলমগীর, প্রতীক জোড়া ফুল নির্বাচনী আচরণবিধির “পরিপত্র ৮” এর বিধিমালা ৫ এর ৮/এ ভঙ্গ করেছেন। উক্ত বিধি লঙ্গন করে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আলমগীর উপজেলা পরিষদ প্রবেশদ্বারে মূল ফটকে উভয় পাশে তাহার নির্বাচনী প্রচারণা পোষ্টার লাগিয়েছেন। তিনি বিষয়টি আমলে নিয়ে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন জানান।
এদিকে আলীকদম উপজেলা নির্বাচনে দোয়াত কলম প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আবুল কালাম ৩জন সহাকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও ৮জন পোলিং অফিসারের প্রত্যাহার চেয়ে অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সাথে যোগসাজসে ভারপ্রাপ্ত নির্বাচন অফিসার নববিন্দু নারায়ণ চাকমা ভোট কারচুপির উদ্দেশ্যে পূর্বে অভিযোগ দেওয়ার পরেও বিতর্কিত ও প্রার্থী আত্মীয় হয় এমন ১১জনকে নির্বাচনে দায়িত্ব প্রদান করেছেন। অভিযুক্তরা হল, জয়নব আরা বেগম, আব্দুল আলম, উম্মেষন খীসা, হায়দার আলী, হাফিজুর রহমান, বদিউর রহমান রুস্তম, নুরুল হুদা ভূইয়া, সেলিম উদ্দিন, তানজিনা সুলতানা লিজা, মো. ইউনুচ ও আঁখি বড়–য়া। তিনি তাদের প্রত্যাহারের দাবী করে আরো বলেন, অভিযুক্তরা আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়েছেন। এছাড় সম্প্রতি সম্পাদিত আলীকদম উপজেলায় ভোটার তালিকায় ১০জন রোহিঙ্গাকে ভোটার করার অভিযোগও তিনি করেন।  
লামা উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও আলীকদম উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাচন অফিসার নববিন্দু নারায়ণ চাকমা বলেন, লামায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আলমগীরের বিরুদ্ধে নৌকার প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট বাথোয়াইচিং মার্মা আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগ করেছেন। আমরা বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিব। এছাড়া আলীকদমের স্বতন্ত্র প্রার্থীর করা অভিযোগ গুলো মিথ্যা দাবী করে বলেন, সুষ্ঠ ও সুন্দর একটি নির্বাচন উপহার দিতে আমরা কাজ করছি।

এই বিভাগের আরও খবর

  রাঙ্গামাটিতে ধারাবাহিক হত্যাকান্ডের ঘটনায় পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুরের তীব্র নিন্দা

  বান্দরবানে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনঃ আ'লীগ প্রার্থী ৬ উপজেলা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ১ উপজেলায় বিজয়ী

  থানচি উপজেলা নির্বাচনঃ জয়ের মালা গলায় পড়লেন থোওয়াইহ্ণামং মারমা

  লামার নির্বাচনে গাড়ি দূর্ঘটনায় আহত ১৬, অপর ঘটনায় নিহত-১

  বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আজ আমরা স্বাধীন দেশ পেতাম না-পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর

  উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে বান্দরবানের বিভিন্ন কেন্দ্রে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জাম

  নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার প্রতিবাদে লামায় মানববন্ধন

  উপজেলা নির্বাচন ঘিরে তেমন একটা আগ্রহ নেই বান্দরবানের ভোটারদের

  সৎভাবে আমাদের পণ্যগুলো যদি বাজারে বিক্রয় করি তাহলে আমরা সবাই সুস্থ থাকবো-মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম

  লামায় জীপের চাকায় পিষ্ট হয়ে রোহিঙ্গা শ্রমিক নিহত

  আলীকদমে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডাকসু নির্বাচনের সঙ্গে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তুলনা করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এতে ৩০ ডিসেম্বরের ‘ভোট ডাকাতি’র পুনরাবৃত্তি ঘটেছে। আপনি কি তা মনে করেন?