শনিবার, ২৩ জুন ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১২ জুন, ২০১৮, ০৯:২৪:৪৮

বান্দরবানে ভারী বৃষ্টিপাতে নিন্মাঞ্চল ও প্রধান সড়ক প্লাবিত, বান্দরবানের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিছিন্ন

বান্দরবানে ভারী বৃষ্টিপাতে নিন্মাঞ্চল ও প্রধান সড়ক প্লাবিত, বান্দরবানের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিছিন্ন

বান্দরবানঃ-চারদিনের টানা বর্ষণে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে বান্দরবানের সাংগু, মাতামুহুরী ও বাকঁখালী নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে নিমাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে।
বান্দরবান-চট্টগ্রামের প্রধান সড়কের বাজালিয়ার মাহালিয়া এলাকায় সড়কের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হওয়ায় মঙ্গলবার সকাল থেকে বান্দরবান-কেরানীরহাট-চট্টগ্রাম সড়ক বন্ধ হয়ে সারাদেশের সাথে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এদিকে গতকাল থেকে বান্দরবান-রাঙ্গামাটি সড়কে স্বর্ণ মন্দির এলাকায় বেইলী ব্রীজ ডুবে যানচলাচল এখনো বন্ধ রয়েছে।
এদিকে টানা চারদিনের প্রবল বর্ষনের ফলে পাহাড়ী ঢলে বান্দরবান জেলা শহরের নিম্নাঞ্চল পানিতে প্লাবিত হচ্ছে।
এ বিষয়ে বান্দরবান সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সজিব আহম্মেদ জানান, বান্দরবান কেরানীহাট এলাকার বাজালিয়ায় নিচু সড়কটি উচু করনের জন্য একটি প্লানিং পাঠানো হয়েছে। এর অনুমোদন হলে আগামী বর্ষার আগেই এ সড়কটি উচু করনের কাজ শুরু করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  বান্দরবানে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের ৩দিনের ফিচার তৈরির কর্মশালার উদ্বোধন

  বান্দরবানে আর্ন্তজাতিক পাবলিক দিবস পালিত

  লামায় স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে স্বামী গুরুতর আহত

  বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় বাঁশ-বেতের উপকরণে তৈরী হচ্ছে ‘শৈলকুঠির রিসোর্ট’

  লামায় ৭১ পিস ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক

  পার্বত্য এলাকায় শান্তি সম্প্রীতি রক্ষায় সকলকে একযোগে এগিয়ে আসতে হবে-বীর বাহাদুর এমপি

  লামায় ডেসটিনির আকাশমনি ও বেলজিয়াম বাগান উজাড়, থানায় মামলা

  রোয়াংছড়িতে সরকারি স্কুলের বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারে অভিযোগ

  নৈসর্গিক সৌন্দর্য ও প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর বান্দরবানের লামা, নেই উদ্যোগ

  বান্দরবানে হোটেলে মোবাইল কোর্টের অভিযান, যৌনকর্মীসহ আটক-৫

  লামায় মার্মা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?