মঙ্গলবার, ২১ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ০৮:৩৩:৪২

পাহাড়কে পাহাড়ের মত করে থাকতে দিতে হবে-বীর বাহাদুর এমপি

পাহাড়কে পাহাড়ের মত করে থাকতে দিতে হবে-বীর বাহাদুর এমপি

বান্দরবানঃ-পাহাড়কে পাহাড়ের মত করে থাকতে দিতে হবে। পাহাড়ের উপর অপরিকল্পিত বাড়ীঘর নির্মাণ ও পাহাড় কেটে ঝুঁকি তৈরি করছি আমরা নিজেরাই। বান্দরবানে বসবাসরত জনগোষ্টির সার্বিক নিরাপত্তা বিধান ও পাহাড় ধস সর্ম্পকে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং আগাম সতর্কতায় বান্দরবানে এক কর্মশালায় এসব কথা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
এসময় পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, পাহাড় ও বন রক্ষার মাধ্যমে আমরা আমাদের জীব বৈচিত্র্য রক্ষা করতে পারবো। বেশী লাভের আশায় পাহাড়কে আঘাত করে পাহাড়ের ভারসাম্য নষ্ট করলে পাহাড় ও তার সমীচিন জবাব দেবে আর এতে আমাদের সকলের জীবনে নেমে আসবে চরম দূর্ভোগ।
বান্দরবানে বসবাসরত জনগোষ্টির সার্বিক নিরাপত্তা বিধান ও পাহাড় ধস সর্ম্পকে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং আগাম সতর্কতায় বান্দরবানে এক কর্মশালা অনুষ্টিত হয়েছে ।
সোমবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ১০টায় বান্দরবান জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের আয়োজনে বান্দরবান জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সভাকক্ষে এই কর্মশালা অনুষ্টিত হয়।
এসময় দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব রাশিদা বেগমের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আলী হোসেন, বিজিবির বান্দরবান সেক্টরের কমান্ডার কর্ণেল মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার, সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমা বিনতে আমীন, জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর আলীনুর খান, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গ্যা, সদস্য তিং তিং ম্যা, স্থানীয় সরকার অধিদপ্তর (এলজিইডি) বান্দরবানের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু তালেব চৌধুরী, র্পাবত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ, কারিতাসের প্রোগ্রাম অফিসার রুপনা দাশ, বান্দরবান পৌরসভার সচিব মো: তৌহিদুল ইসলাম, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা শিলাদিত্য মুৎসুদ্দি, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সুম্মিতা খীসাসহ সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা, সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের উর্ধতন কর্মকর্তা এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
কর্মশালায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আসলাম হোসেন জানান, প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে বান্দরবানে পাহাড় ধসে বহু লোক আহত ও অনেকে মৃত্যুবরণ করে। সর্বশেষ ২০১৭ সালে পাহাড় ধসে বান্দরবানে ১৩ জনের প্রাণহানি ঘটে। এসময় সভায় বক্তারা বলেন, অপিরকল্পিত পাহাড় কর্তন, ঝুকিঁপূর্ণ পাহাড়ের চুড়ায় অবস্থান ও আবহাওয়ার পূর্বাভাস সর্ম্পকে ধারণা না থাকায় প্রতিবারই পাহাড় ধসে মৃত্যু ঘটছে পার্বত্য এলাকার বসবাসকারী জনসাধারনের।
কর্মশালায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আসলাম হোসেন বলেন, শীঘ্রই বান্দরবানে সাতটি উপজেলায় সাতটি আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে এবং পাহাড়ের সঠিক সংরক্ষণ ও পাহাড় ধস রোধে প্রশাসনসহ সবাইকে নজরদারি বৃদ্ধি করতে হবে।
এদিকে কর্মশালার আগে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়।  শোভাযাত্রাটি বান্দরবানের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সভাকক্ষে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রার ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্টানের কর্মকর্তা কর্মচারী, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ নেয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে ভারী অস্ত্র-সেনা বাড়াচ্ছে মিয়ানমার, সতর্ক অবস্থানে বিজিবি

  রোয়াংছড়িতে যৌথ বাহিনীর অভিযানে চোলাই মদ বিক্রয়ের অপরাধে আটক-৪, কারাদন্ড-১

  রুমায় জীপ চাপায় নিহত মংসাইশৈ মারমার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

  পাহাড়ে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে ‘চাইল্ড স্পন্সরশীপ প্রোগ্রাম’

  আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের জনসাধারণ উপকৃত হয়-বীর বাহাদুর এমপি

  লামায় পৃথক ঘটনায় নিহত-২

  লামায় তুচ্ছ ঘটনায় ৩ শিশু ও নারী গুরুতর আহত

  রুমায় চার ইউনিয়নে চাল বিতরণ চলছে

  রোয়াংছড়িতে ৩৪৪ জন মা ও শিশু পেল পুষ্টিকর খাবার হরলিস ও ডিপ্লোমা গুঁড়ো দুধ

  রুমা সাংগু কলেজকে সরকারিকরণের চূড়ান্ত অনুমোদনঃ শোভাযাত্রা ও মিষ্টি বিতরণ

  বান্দরবানে মোবাইল কোর্টের অভিযানঃ ২৭ হাজার টাকা জরিমানা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?