সোমবার, ২২ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ০৬:৩৬:৫১

লামায় একাধিক রোহিঙ্গার হাতে পাসপোর্ট !

লামায় একাধিক রোহিঙ্গার হাতে পাসপোর্ট !

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামাঃ-বান্দরবানের লামায় একাধিক রোহিঙ্গা নাগরিক পাসপোর্ট পাওয়ার বিষয়টি গভীর উদ্বেগজনক বলে জানিয়েছেন স্থানীয় জনসাধারণ। জন্মনিবন্ধন, চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট, আইডি কার্ড ও জায়গার কাগজ জাল-জালিয়াতি করে এবং মোটা অংকের উৎকোচের বিনিময়ে পাসপোর্ট বানিয়ে আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, কাতার, কুয়েত, সোদিআরব, মালয়েশিয়া ও ইতালী সহ বিভিন্ন উন্নত দেশে পাড়ি দিচ্ছে রোহিঙ্গারা।  
সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার ৩নং ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড কাঁঠালছড়া মুসলিম পাড়ার মৃত বদিউজ্জামান এর ছেলে মতিউর রহমান (৫৫) সম্প্রতি পাসপোর্ট পেয়েছে। মতিউর রহমান ৭/৮ বছর আগে স্ব-পরিবারে মিয়ারমার হতে বাংলাদেশে অবৈধভাবে প্রবেশ করে কক্সবাজারের উখিয়া হতে পালিয়ে লামার ফাঁসিয়ালীতে অবস্থান করছে। ইতিমধ্যে সে স্থানীয় ইউপি মেম্বারের সহায়তায় মোটা অংকের টাকা খরচ করে জন্মনিবন্ধন ও চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট করে নিয়েছেন। তার ৪ ছেলে ১ মেয়ে নিয়ে সে কাঁঠালছড়া মুসলিম পাড়ায় বসবাস করে। গত দুই বছর আগে তার বড় ছেলে মো. আইয়ুব (৩৮) জাল কাগজপত্র দিয়ে পাসপোর্ট তৈরি করে আমেরিকায় পাড়ি জমিয়েছে। বছরখানেক আগে তার ২য় ছেলে মো. ওমর (২৯) একইভাবে পাসপোর্ট সংগ্রহ করে মালয়েশিয়া পাড়ি জমিয়েছে। বর্তমানে তার পরিবারের সবাই পাসপোর্ট তৈরি করে স্ব-পরিবারে উন্নত দেশে পাড়ি জমানো মতলব করছে বলে স্থানীয়রা জানান।
স্থানীয়রা বলেন, তারা বাংলাদেশের নামে ভিসা পাসপোর্ট দিয়ে দেশের বাহিয়ে গিয়ে নানান অপকর্ম করে দেশের বদনাম করছে। বিশেষ করে যারা এইভাবে বিভিন্ন দেশে যাচ্ছে তারা সেখান থেকে টাকা পাঠিয়ে দেশেও নানা ধরনের অপরাধমূলক কাজে সহায়তা করছে। তাদের পাঠানো টাকার একটি অংশ মিয়ানমারের আরসা’র মত সশস্ত্র বিচ্ছিন্নবাদী সংগঠনের ফান্ড সৃষ্টিতে সহায়তা করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে। এইভাবে পার্শ্ববর্তী শামুকছড়া এলাকায় বছরখানেক আগে আসা বার্মাইয়া ফয়েজ উদ্দিন (৪২) ও বার্মাইয়া মো. এনাম (৩৭) ১৫/২০ দিনের মধ্যে পাসপোর্ট পেতে যাচ্ছেন। স্থানীয় ওসমান গণি (৫০) নামে একজন বলেন, আমার কাছে চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট ও জন্মনিবন্ধনের জন্য মেম্বার সাহেব ১০ হাজার টাকা চেয়েছেন।    
এই বিষয়ে ইউপি মেম্বার কামাল উদ্দিন বলেন, লোকগুলো আমার ওয়ার্ডে বাস করে ঠিক আছে। কিন্তু তারা কিভাবে জন্মনিবন্ধন ও চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট পেয়েছে আমি জানিনা।
ফাঁসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান জাকের হোসেন মজুমদার বলেন, মেম্বাররা আবেদন যাচাই-বাচাই করে দিলে আমি জন্মনিবন্ধন ও চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট দিতে বলি। এই ধরনের বিষয় অনেকের মুখে শুনলেও কোন অভিযোগ না পাওয়ায় ব্যবস্থা নিতে পারিনি।
লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, পাসপোর্টে পুলিশ ভেরিফিকেশনে চাহিদা মত কাগজপত্র সত্যতা যাচাই-বাচাই ও সত্যতা আমরা যাচাই করি। জন্মনিবন্ধন ও চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট গুলো ইউনিয়ন পরিষদ প্রদান করে। তাদের জিজ্ঞাসা করলে বলে এইসব ঠিক আছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি বলেন, রোহিঙ্গা নাগরিকরা যদি পাসপোর্ট পেয়ে থাকেন তাহলে বিষয়টা অত্যান্ত দুঃখজনক। সামনে থেকে কঠোর সতর্কতা অবলম্বন করে জন্মনিবন্ধন, চেয়ারম্যান সার্টিফিকেট ও ভোটার করতে মেম্বার ও চেয়ারম্যানদের আমরা বলে দিব।

এই বিভাগের আরও খবর

  নাইক্ষ্যংছড়ির পাহাড়ী পল্লীতে চলছে প্রবারনা পূর্ণিমার প্রস্তুতি

  বর্তমান সরকারের আমলে পার্বত্যাঞ্চলে ব্যাপক উন্নয়ন সম্পাদন করছে-বীর বাহাদুর এমপি

  বান্দরবানে শারদীয় দুর্গোৎসবের সমাপ্ত

  থানচি'র পর্যটন কেন্দ্র ঙাফাঁখুম ভ্রমনে এসে লাশ হয়ে ফিরল আরিফুল হাসান

  দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে শেখ হাসিনা সরকারের কোন বিকল্প নেই-বীর বাহাদুর এমপি

  বান্দরবানে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের মানববন্ধন

  রাতে স্বামীর সাথে ঝগড়া, সকালে ঘরে গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ

  থানচি সড়কে হিউম্যানটোরিয়ান ফাউন্ডেশনের পরিস্কার পরিচ্ছন্ন অভিযান

  শৈল জ্যোতি উপাধীতে ভুষিত হলেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি

  থানচিতে নদীতে ডুবে এক পর্যটক নিখোঁজ

  শান্তিচুক্তির সুফল: পার্বত্য অঞ্চল আজ উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে-বীর বাহাদুর এমপি

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, গুজব সনাক্তকরণে যে সেল করা হয়েছে, তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মতপ্রকাশ নিয়ন্ত্রণ বা সোশ্যাল মিডিয়া পুলিশিং করবে না। আপনি কি এতে আশ্বস্ত?