রবিবার, ১৯ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ১০:৪৬:৪৫

বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের সাথে সেনাবাহিনীর গোলাগুলি

বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের সাথে সেনাবাহিনীর গোলাগুলি

বান্দরবানঃ-বান্দরবান সীমান্তে সন্ত্রাসীদের সাথে নিরাপত্তা বাহিনীর থেমে থেমে গুলিবিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারী) সকালে এ ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে।
বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গুলিবিনিময়ের খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলসহ আশপাশ এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।
আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও স্থানীয়রা জানায়, জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নের দুর্গম লতাঝিরি এলাকায় অস্ত্রধারী ১০-১২ জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ অবস্থানের খবর পেয়ে সেনাবাহিনীর একটি দল অভিযান শুরু করে। সন্ত্রাসীরা অভিযানের উপস্থিতি টের পেয়ে নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। এসময় সেনাবাহিনীর সদস্যরাও পাল্টা গুলি বর্ষণ করে।
দু পক্ষের মধ্যে থেমে থেমে কয়েকদফায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। এ সংবাদ লিখাপর্যন্ত সেনাবাহিনীর অভিযান অব্যাহত ছিল। এ ঘটনায় কাউকে আটক কিংবা কোনো হতাহতের খবরও পাওয়া যায়নি। গোলাগুলির বিষয়টি স্বীকার করেছেন সেনাবাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হোসেন জানান, লতাঝিরি পাহাড়ে অস্ত্রধারী কিছু সন্ত্রাসী কয়েকদিন ধরে অবস্থান করছিল। খবর পেয়ে সেনাবাহিনী ঘটনাস্থলে অভিযানে গেলে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের সেনা সদস্যদের গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। গোলাগুলি বন্ধ হলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ঘটনাস্থল’সহ আশপাশের এলাকাগুলোতে সেনাবাহিনী’সহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত দুই গাড়ি সদস্য পাঠানো হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গ্রুপটি রুমা উপজেলার পাইন্দু মৌজার আলিচু পাড়া হয়ে রোয়াংছড়ি উপজেলার লতাঝিরি পাহাড়ের অরণ্যে অবস্থান নেয়। ছয় সাতদিন ধরে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা লতাঝিরি পাহাড়ের বিভিন্নস্থানে আনাগোনা করতে দেখা গেছে। সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা মারমা ভাষায় কথা বললেও তারা এই অঞ্চলের নয়। তারা রাঙ্গামাটি এবং খাগড়াছড়ি জেলার লোকজন হতে পারে। হঠাৎ করেই পাহাড়ে চাঁদাবাজ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের আনাগোনা বেড়েছে বলে দাবি স্থানীয়দের।

এই বিভাগের আরও খবর

  আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের জনসাধারণ উপকৃত হয়-বীর বাহাদুর এমপি

  লামায় পৃথক ঘটনায় নিহত-২

  লামায় তুচ্ছ ঘটনায় ৩ শিশু ও নারী গুরুতর আহত

  রুমায় চার ইউনিয়নে চাল বিতরণ চলছে

  রোয়াংছড়িতে ৩৪৪ জন মা ও শিশু পেল পুষ্টিকর খাবার হরলিস ও ডিপ্লোমা গুঁড়ো দুধ

  রুমা সাংগু কলেজকে সরকারিকরণের চূড়ান্ত অনুমোদনঃ শোভাযাত্রা ও মিষ্টি বিতরণ

  বান্দরবানে মোবাইল কোর্টের অভিযানঃ ২৭ হাজার টাকা জরিমানা

  নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারলে জাতিগোষ্ঠী ও দেশের পরিবর্তন আনা সম্ভব-খুশিরায় ত্রিপুরা

  বঙ্গবন্ধু মুক্তির সংগ্রামের ডাক দিয়েছিলেন বলেই আজ আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি-বীর বাহাদুর এমপি

  থানচিতে ঈদুল আযাহা উপলক্ষে ভিজিএফ চাল পেল ১৬শত ৩৫ পরিবার

  বান্দরবান অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?