বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৭, ০৭:২৭:২৩

থানচি উপজেলায় পানির তীব্র সংকট, ১২টি টিউবওয়েল অচল, মানুষের ভোগান্তি

থানচি উপজেলায় পানির তীব্র সংকট, ১২টি টিউবওয়েল অচল, মানুষের ভোগান্তি

শহিদুল ইসলাম(শহিদ), থানচিঃ-পানির অপর নাম জীবন হলেও তা এখন মরনে পরিনত হচ্ছে যার কারন দায়িত্বশীলদের তদারকির অভাব, নিয়মিত অফিস না করা ইত্যাদি। বিশেষ করে টিএন্ডটি পাড়া, বাজার পাড়া, থানছি থানা, বাজার, নতুন পাড়াসহ অন্যান্য এলাকা। বাজারের মায়াগেষ্ট হাউসের প্রোপাইটর মোঃ রহিম জানান চাহিদা অনুযায়ী পানি না পাওয়ায় টয়লেট পর্যন্ত বন্ধ রাখতে হচ্ছে। যার কারনে পর্যটকসহ সুবিদাভোগিদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।
থানচি থানার অফিসার ইনচার্য আব্দুর সাত্তার ভুইয়া জানান, পানির সংকটের প্রসাব পায়খানা পর্যন্ত করা যাচ্ছেনা বার বার ফোন দিলে ঘন্টা দুয়েক ঠিক থাকে পুনরায় একই অবস্থা। বাসষ্টেশন এলাকার সিং গেষ্ট হাউসের মালিক উমং সিং মার্মা জানান, ভাই নিয়মিত পানি পাচ্ছিনা, অনিয়মিত যা পাচ্ছি তা ও আবার পরিমানে অল্প যা চাহিদার ৪ ভাগের ১ভাগ ও চাহিদা পুরন হচ্ছেনা।
এ বিষয়ে থানচি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ক্যাসাচিং মার্মা জানান, তিন বছর ধরে বিদ্যালয়ের টিউবওয়েলটি নষ্ট খাবার পানির চাহিদা পুরনে খুব কষ্ট হচ্ছে বাড়ি থেকে পানি নিয়ে খেতে হচ্ছে, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আয়সা আক্তার বলেন, আমাদের বিদ্যালয়ে প্রায় ৫শত শিক্ষার্থী আছে টিউবওয়েলটি নষ্ট হওয়ার কারনে সারাদিন পানি না খেয়ে থাকতে হয়। যতটুকু পারি বাড়ি থেকে নিয়ে আসি তা ও সহ-পাটিদেরকে নিয়ে ভাগ করে খায়।
টি এ্ন্ড টি পাড়ার বাসিন্দা কাসেম কারবারী জানান, আমার পাড়াতে কোন লাইনের পানি নাই দরখাস্ত দেওয়ার পর ও কোন কার্যকর ভুমিকা দেখা যাচ্ছেনা। উপজেলা চেয়ারম্যানকে যতবার বলেছি শুধুই আসার বাণী শুনিয়েছেন কাজের কাজ কিছুই হইনী। উপজেলা জনস্বাস্থ্য সহকারি প্রকৌশলীর কার্যালয়ে পাওয়া যায়নি দ্বায়িত্বশীল কর্মকর্তাকে। ফোনে যোগাযোগ করা হলে প্রকৌশলী মুজিবুর রাহমান জানান, জনবল সংকটের কারনে এই অবস্থা। তিনি আরো বলেন, যেখানে টিউবওয়েল অচল তার একটি লিষ্ট অফিসে এসে দেন তা বাস্তবায়ন করব। এখন কথা হল লিষ্ট দেওয়ার দায়িত্ব কি সংবাদকর্মীদের নাকি সংশ্লিষ্ট বিভাগের মাঠ পর্যায়ে দায়িত্বে থাকা কর্মচারীদের।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে চালু হওয়া ‘না’ ভোট একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ সংশোধনের উদ্যোগের মধ্যে পুনঃপ্রবর্তনের প্রস্তাব করেছে নাগরিক সংগঠন সুজন। আপনি কি তা সমর্থন করেন?