বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ১০ নভেম্বর, ২০১৭, ০৮:৫২:৫১

বান্দরবানে মানবেন্দ্র নারায়ন লারমার ৩৪তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

বান্দরবানে মানবেন্দ্র নারায়ন লারমার ৩৪তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

বান্দরবানঃ-বান্দরবানে আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মানবেন্দ্র নারায়ন লারমার ৩৪তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার সকালে কালো ব্যাজ ধারণ এবং শোক র‌্যালী কর্মসূচি পালন করেছে জেএসএস। বান্দরবানের মধ্যমপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে একটি র‌্যালী বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক পদক্ষিণ করে মধ্যমপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষে হয়। পরে দলীয় কার্যালয়ে এক শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি বান্দরবান সদর থানা শাখার সভাপতি উচসিং মারমার সভাপতিত্বে শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য এবং জনসংহতি সমিতি’র কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক উ: কে এস মং মারমা। শোক সভায় এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য সাধুরাম ত্রিপুরা মিল্টন, পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)র কেন্দ্রীয় কমিটির শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জলি মং মারমা, কেন্দ্রীয় কমিটির ভূমি বিষয়ক সম্পাদক চিংহ্লামং চাক, জেলা জনসংহতি সমিতির সভাপতি উচোমং মারমা, সাংগঠনিক সম্পাদক শম্ভু কুমার তংঞ্চঙ্গ্যা, থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক পুশৈথোয়াই মারমা, যুব সমিতির সভাপতি মস্তু মার্মা, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইংথোয়াই মারমা, মহিলা সমিতির সভাপতি শান্তি দেবী তংঞ্চঙ্গ্যা, জেলা পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) এর সভাপতি অজিত তংঞ্চঙ্গ্যা সহ পার্টির কেন্দ্রীয় ও জেলার নেতৃবৃন্দরা।
মানবেন্দ্র নারায়ন লারমা পার্বত্য চট্টগ্রামে আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠন জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) এর প্রতিষ্ঠাতা এবং ১৯৭০, ১৯৭৩ সালে জাতীয় সংসদে নির্বাচিত সদস্য ছিলেন। ১৯৮৩ সালে ১০ নভেম্বর তিনি প্রতিপক্ষের গুলিতে নিহত হন।
শোক দিবস উপলক্ষ্যে দিনটি স্মরণে সন্ধ্যায় ফানুস উত্তোলন এবং মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করা হয়।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে চালু হওয়া ‘না’ ভোট একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ সংশোধনের উদ্যোগের মধ্যে পুনঃপ্রবর্তনের প্রস্তাব করেছে নাগরিক সংগঠন সুজন। আপনি কি তা সমর্থন করেন?