রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০১ মার্চ, ২০১৭, ০৩:৪৩:৫৩

হুয়াওয়ের পি১০ ও পি১০ প্লাস: এখন পকেটেই ফটো স্টুডিও

হুয়াওয়ের পি১০ ও পি১০ প্লাস: এখন পকেটেই ফটো স্টুডিও

ঢাকা : স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠেয় মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসের এবারের আসরে  হুয়াওয়ে পি১০ ও পি১০ প্লাস উন্মোচনের ঘোষণা দিলো হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপ। পোর্ট্রেট ফটোগ্রাফিকে নতুন মাত্রা দিতে ফোন দুইটিতে রয়েছে ‘প্রফেশনাল স্টুডিও লাইক এফেক্টস’।

ফোনের রিয়ার ক্যামেরার সম্পূরক হিসেবে স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে প্রথমবারের মতো পি১০ ও পি১০ প্লাসের সামনে দেওয়া হয়েছে লাইকা ফ্রন্ট ক্যামেরা। এর বিশেষ ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘স্টুডিও লাইক রি-লাইটিং’ ও ‘থ্রিডি ফেসিয়াল ডিটেকশন’ প্রযুক্তি। যার ফলে যেকোনো পরিবেশেই এর মাধ্যমে তোলা যাবে চমৎকার ছবি। এছাড়াও হুয়াওয়ে হাইব্রিড জুমের সাহায্যে ব্যবহারকারীরা পাবেন ছবি তোলার সময় পুরো ছবির শার্পনেস ঠিক রেখে ছবির নির্দিষ্ট জায়গায় ফোকাস করার সুবিধা।

কালার ও ডিজাইনের ক্ষেত্রে হুয়াওয়ে পি১০ ও পি১০ প্লাস এক নতুন নজির স্থাপন করেছে। প্যানটোন কালার ইন্সটিটিউটের সাথে যৌথভাবে ডিভাইস দুইটিতে ব্যবহার করা হয়েছে বিশেষভাবে নির্বাচিত দু্টই প্যানটোন কালার। এর মধ্যে একটি হচ্ছে ‘প্যানটোন অফিসিয়াল কালার অব দ্য ইয়ার ২০১৭’ প্যানটোন গ্রিনারি এবং আরেকটি ‘ডিপ ব্লু শেড’ যা হুয়াওয়ে দিচ্ছে ড্যাজলিং ব্লু হিসেবে।

হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের সিইও রিচার্ড ইউ বলেন, ‘হুয়াওয়ে পি১০ ও হুয়াওয়ে পি১০ প্লাস পোর্ট্রেট ফটোগ্রাফিতে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনবে এবং একে নতুনভাবে সংজ্ঞায়িত করবে। এক্ষেত্রে লাইকা ক্যামেরার সাথে আমাদের অংশীদারিত্বের কারণে এখন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা লাইকা রিয়ার ক্যামেরার মতো পাচ্ছেন লাইকা ফ্রন্ট ক্যামেরা। বাইরের সাথে ভেতরেও নতুন উদ্ভাবন নিয়ে আসতে এবং স্মার্টফোনের ভেতরে ও বাইরে একইসাথে আকর্ষণীয় করে তুলতে হুয়াওয়ে যৌথভাবে কাজ করেছে প্যানটোন কালার ইন্সটিটিউটের সাথে। হুয়াওয়ে পি১০ ও পি১০ প্লাস একইসঙ্গে যেমন ফ্যাশনেবল তেমনি ফাংশনাল।’

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

আওয়ামী লীগের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকারের অনেক মন্ত্রী দুদকে হাজিরা দিচ্ছেন, আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী জেলে আছেন। তার এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি একমত?