মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১০ আগস্ট, ২০১৯, ০৭:৪৪:২১

রাঙ্গামাটিতে ঈদ-উল-আযহার ৫টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে

রাঙ্গামাটিতে ঈদ-উল-আযহার ৫টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে

রাঙ্গামাটিঃ-সারা দেশের ন্যায় রাঙ্গামাটিতে ও মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদ-উল আযহা যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ঈদুল আযহার দিনে রাঙ্গামাটিতে ৫টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
তবলছড়ি কেন্দ্রীয় ঈদগাঁ কোতয়ালী থানা মাঠে ঈদুল আযহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এখানে সকাল ৮টায় ও ৯টায় দু’দফায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
এ ছাড়াও রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদে সকাল সাড়ে ৮ টায়, বনরূপা আদালত প্রাঙ্গনে সকাল ৮টায় ও সকাল ৯টায় ২টি, ভেদভেদী আমানতবাগ মাঠে সকাল ৮টায় ও সকাল ৯টায় ২টি এবং পুরানপাড়া সরকারী প্রাথমিক স্কুল মাঠে সকাল ৯টায় ১টি ঈদুল আযহার জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
এদিকে ঈদ জামাত ও ঈদের দিনের নিরাপত্তায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। ঈদ উল আযহা উপলক্ষে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের আয়োজিত এক প্রস্তুতি সভায় জানানো হয় ঈদের দিনে মুসল্লীদের ঈদের জামাতে নামাজের পড়ার জন্য রাঙ্গামাটি জেলায় প্রতিবারের মতো ৫ টি স্থানে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া আবহাওয়া খারাপ থাকলে বিভিন্ন মসজিদে মসজিদেও ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে বলে মসজিদ কমিটির নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন।
ঈদ জামাতের এলাকাকে সুসজ্জিত করার ব্যবস্থা নিতে পৌরসভা ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এছাড়া ঈদের জামাতের জন্য নির্বাচিত স্থানে মুসল্লিদের অজু করার জন্য পানি ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এবং ঈদের দিন ঈদ জামায়াতের জন্য নির্ধারিত স্থানগুলোতে প্রয়োজনে সময়মত পানি ছিটানোর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সকে অনুরোধ জানানো হয়।
অন্যদিকে, ঈদের দিন এবং তার আগে কোরবানীর পশুর হাট বাজার গুলোতে আইন শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য পুলিশকে সতর্কাবস্থায় জোরদার করতে পুলিশ প্রশাসনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এবং পরিবেশ দূষণ রোধে কোরবানী পশু জবাই করার জন্য স্থান নির্ধারণ পূর্বক পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন বজায় রাখার জন্য এলাকাবাসীকে আবশ্যিকভাবে অবহিত করতে মসজিদের সংশ্লিষ্ট ইমামদের অবহিতকরণ। এছাড়া জরুরী অবস্থা মোকাবেলায় ফায়ার সার্ভিস, হাসপাতাল, পুলিশ ও বিজিবি কর্তৃপক্ষকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এছাড়া, প্রত্যেক মসজিদের ইমামগণকে স্ব-স্ব মসজিদের মাইকযোগে জামায়াতের সময়সূচী সর্ম্পকে একাধিকবার ঘোষণা প্রদান, ঈদের জামায়াতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক মাইক/হর্ণ সরবরাহ, জাতীয় পতাকা ও “ঈদ মোবারক” লেখা (আরবী ও বাংলায়) সম্বলিত পতাকা দিয়ে রাঙ্গামাটি শহরে প্রধান প্রধান সড়কসমূহ সজ্জিত করা, ঈদ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন, ঈদের দিন সকল সরকারী, আধা সরকারী ও বেসরকারী ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও আলোকসজ্জা, শিশু সদন, এতিমখানা, হাসপাতাল ও কারাগারে আটক হাজতী ও কয়েদীদের উন্নত মানের খাবারের ব্যবস্থা, পর্যটন হলিডে কমপ্লেক্সে বিনামূল্যে বেড়ানোর সুযোগের ব্যবস্থা, ঈদের পরে যে কোন দিন শিশু একাডেমীতে ও শিল্পকলা একাডেমীতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা।

এই বিভাগের আরও খবর

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?