বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৮:৩৮:০৭

সোলারের আলো যেন আইন শৃংখলা ভঙ্গের কাজে ব্যবহার না হয়-মাহমুদুল হাসান পিএসপি

সোলারের আলো যেন আইন শৃংখলা ভঙ্গের কাজে ব্যবহার না হয়-মাহমুদুল হাসান পিএসপি

জুরাছড়িঃ-এই আলো যেন ঘরের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেয়, এই আলো পাহাড়ে সুপথে পরবর্তী প্রজম্মকে ভাল পথে চলার জন্য উৎসাহিত জোগায়। এই আলো যেন আইন শৃংখলা ভঙ্গের কাজে ব্যবহার না হয়। এই আলো যেন সমাজের উন্নয়ন কাজে ব্যবহৃত হয়।
জুরাছড়ি উপজেলার বনযোগীছড়া ইউনিয়নের গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার ও রক্ষাণাবেক্ষন (টিআর/কাবিটা) কর্মসূচীর আওয়াতায় ৫১ পরিবারের মাঝে সোলার হোম সিস্টেম বিতরণী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জোন অধিনায়ক লেপ্টেনেন কর্ণেল মাহমুদুল হাসান পিএসপি একথা বলেন।
বনযোগীছড়া ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে প্রঙ্গনে সোলার হোম সিস্টেম বিতরণী সভায় বনযোগীছড়া ইউপি চেয়ারম্যান সন্তোষ বিকাশ চাকমার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সুরেশ কুমার চাকমা, ভাইস চেয়ারম্যান রিটন চাকমা, জোন উপ অধিনায়ক মেজর এবিএম শাহ রেজা, হেডম্যান করুনা ময় চাকমাসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি ও সুফল ভোগীরা উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় জোন অধিনায়ক আরো বলেন, দুর্গম এলাকায় সৌর বিদুৎ প্রদান প্রকল্পের অংশ হিসেবে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পরিচালিত হয়ে আসছে। স্থিতিশীল পরিস্থিতি বিরাজ করার জন্য এসব উন্নয়নের ধারা বাহিকতা অব্যহত রাখা সম্ভব হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, এলাকায় উৎপাদিত পন্য বিক্রি করতে যারা বাঁধা দিচ্ছে কিংবা এ সব পন্যের উপর থেকে যারা  চাঁদা আদায়ের অপচেষ্টা চালায় তারা কারোর বন্ধু হতে পারে না এবং তারা এলাকায় উন্নয়ন চাইনা।
স্থানীয় হেডম্যান করুনা ময় চাকমার বরকল উপজেলার সুবলং এলাকা জৈনক এক চক্রে মালামাল পরিবহন বোটে বাঁধা ও বিভিন্ন হয়রানীর উত্তোরনের অর্জির ভিত্তিতে জোন অধিনায়ক বলেন, রাঙামাটি জোনের সমন্বয়ের মাধ্যমে এলাকার উৎপাদিত কাচামাল কৃষকরা সব রকম নিরাপত্তা নিয়ে গন্তব্যে বিক্রি করতে নিয়ে যেতে পারবে। তাদের নিরাপত্তা আইন শৃংখলা বাহিনী নিশ্চিত করবে।
এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান সুরেশ কুমার চাকমা বলেন, বর্তমান সরকার বিদুৎ বিনীন এলাকায় প্রতিটি ঘরে ঘরে সৌর আলো নিশ্চায়নে কাজ করে যাচ্ছে।
তিনি সেনা বাহিনীকে প্রশংসা করে বলেন, সেনা বাহিনী তথা জোন কমন্ডারের বিচক্ষনতার কারণে রাঙামাটির দশ উপজেলার মধ্যে সব চেয়ে শান্তি পূর্ন পরিবেশ বিরাজ করছে জুরাছড়িতে। সে লক্ষ্যে এই শান্তি পূর্ন্য পরিবেশ ধরে রাখার জন্য আগামীতে সকলকে আইন শৃংখলা বাহিনীকে সহযোগীতার অনুরোধ জানান।
এ সময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, আডিএফের ব্যবস্থাপক ললিত চাকমা, ওয়ার্ড সদস্য সুমন চাকমা প্রমূখ।

এই বিভাগের আরও খবর

  দেশের ক্রীড়া উন্নয়নে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে চলছে-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

  কাপ্তাই থেকে উৎপাদিত পরিবেশ বান্ধব সৌর বিদ্যুৎ সারা দেশে সঞ্চলিত যাচ্ছে

  সরকার কর্মজীবি মা ও শিশুদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত প্রদানের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে-এ কে এম মামুনুর রশিদ

  প্রশাসন আইনের শাসনকে সুপ্রতিষ্ঠিত করে ন্যায় ও সমতা ভিত্তিক পদক্ষেপ গ্রহনের আহবান-এ্যাড.দীপেন দেওয়ান

  রাঙ্গামাটির খাদ্য অফিসে প্রতি সিডিউল ৩শ টাকা বেশী নেয়ার অভিযোগ!

  রাঙ্গামাটি ডিসি অফিস সংলগ্ন এলাকায় প্রকাশ্যে ধুমপান করার দায়ে ৬ ব্যক্তিকে জরিমানা

  পাহাড়ি কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে গ্রীষ্মকালীন টমেটো উৎপাদন বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ

  একটি ব্রীজের অভাবে পাঁচ গ্রামের মানুষের চরম দূর্ভোগ

  রাঙ্গামাটি কলেজ গেইট এলাকার জমি বিরোধ নিয়ে প্রয়াত ডা.একে দেওয়ান পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

  রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে গুর্খা সম্প্রদায়ের সৌজন্য সাক্ষাৎ

  রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা এলাকায় পারিবারিক কলহের জের ধরে রাজমিস্ত্রীর বিষ পানে আত্মহত্যা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?