সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ২৫ আগস্ট, ২০১৯, ০৮:৩৪:০৬

জাতীয় শোক দিবসে জাতির সাথে বিশ্বাস ঘাতকতা করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ

জাতীয় শোক দিবসে জাতির সাথে বিশ্বাস ঘাতকতা করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ

রাঙ্গামাটিঃ-জাতীয় শোক দিবসে জাতির সাথে বিশ্বাস ঘাতকতা করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ। জাতীয় শোক দিবসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা না করে বঙ্গবন্ধুর খুনের মদদদাতা জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা করেছে। খোদ চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও অন্যান্য কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে এমন একটি দিনে একটি রাষ্ট্রীয় শোক অনুষ্ঠানে তারা কিভাবে এই জঘন্য কাজ করেছে আমাদের বোধগম্য নয়। রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও অন্যান্য বক্তারা তাদের বক্তব্যে এই ন্যাক্কার জনক ঘটনার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যানের পদত্যাগ দাবী করেছেন।
রবিবার (২৫ আগষ্ট) রাঙ্গামাটি জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা এ দাবী জানান।
রাঙ্গামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, সহ সভাপতি হাজ্বী কামাল উদ্দীন, যুবলীগের সভাপতি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, আওয়ামীলীগ নেতা ও প্রেস ক্লাব সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন রুবেল, সহ ছাত্রলীগের বিভিন্ন অজ্ঞ সংগঠনের নেত্রী বৃন্দ, যুবলীগ ,স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগ, সহ আওয়ামীলীগের অজ্ঞ সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ এসময় বক্তব্য রাখেন।
রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড জামায়াত বিএনপির আখড়ায় পরিণত হয়েছে। উত্তরা ষড়যন্ত্র মামলার সাথে জড়িত এমন লোকও উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যানের দায়িত্ব রয়েছেন। তারা বলেন, উন্নয়ন বোর্ড মসজিদের মোয়াজ্জেম ওমর ফারুক জামায়াতের কর্মী ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ শাহিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মিলাদ পরিচালনা করা হয়েছে। তাহলে আমরা ধরে নিতে পারি রাষ্ট্রীয় শোক দিবসে এমন কাজ তার নেতৃত্বেই হয়েছে। এখানে দুই দুই বার জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা করা হয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরার হস্তক্ষেপে তৃতীয় বারে আবারো সংশোধন করা হয়। নেতৃবৃন্দ এই ন্যাক্কার জনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যানের পদত্যাগ দাবী করেছেন। বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ণ বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা এই ঘটনার দায় এড়াতে পারে না। তার উপস্থিতিতে কে ভাবে এই ধরনের একটি ঘটনার জন্ম দিতে পারে আমাদের কারো বোধগম্য নয়। তাহলে তিনিও কী এই ষড়যন্তের সাথে জড়িত।
বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। এই ষড়যন্ত্র রুখতে হবে। পার্বত্য অঞ্চলের শান্তি শৃঙ্খলার দায়িত্ব নিয়োজিত সেনাবাহিনীর উপর সন্ত্রাসীরা গুলি বর্ষণ করছে এটি কিসের ইঙ্গিত। বক্তারা সন্তু লারমাকে উদ্দেশ্যে করেন বলেন, সরকারের সকল সুযোগ সুবিধা নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। এটা ভালো হবে না। এর হিসাব দিতে হবে। পাহাড়ের মানুষের উপর জুলুম নির্যাতন বন্ধ করে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডে সহযোগিতা করতে সন্তু লারমার প্রতি আহবান জানান।

এই বিভাগের আরও খবর

  মানবাধিকার কমিশনের সদস্য হলেন রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান চিংকিউ রোয়াজা

  দেশের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র রাঙ্গামাটির সাজেক পাহাড়ে খোয়াল বুক রিসোর্টের যাত্রা শুরু

  ভোটার তালিকা হালনাগাদ যাতে স্বচ্ছ হয় তার জন্য দিক নিদের্শনা দিলেন নির্বাচন কমিশনার

  আজরা আতিকা আনানের অপহরণের ১২ দিনেও সন্ধ্যান না পাওয়া ও অপহৃতদের হুমকিতে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

  সকল দ্বিধা-দ্বন্দ্ব ভুলে বেগম জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে নেতাকর্মীদের ঝাপিয়ে পরার আহবান

  একটা জাতিকে সুস্থভাবে গড়ে তুলতে হলে তার ভিত্তিটাকে মজবুত করে তুলতে হবে-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

  কাপ্তাই থেকে সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ দুর করতে সেনাবাহিনী যে কোন ভূমিকা নিতে প্রস্তুত-তৌহিদ উজ্জামান

  রাঙ্গামাটিতে বিভিন্ন ক্লাবে জেলা প্রশাসনের অভিযানে ১২জনকে জরিমানা, সরঞ্জাম জব্দ

  রাঙ্গামাটিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১, আহত-৫

  কাউখালীতে চাঁদা না দেয়ায় বটতলী সড়কে যান চলাচল বন্ধ, চাঁদা চেয়ে ব্যবসায়ীদেরও চিঠি

  পাহাড়ে পিছিয়ে পরা জনগোষ্ঠিদের সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে নিতে মোনঘর প্রতিষ্ঠানটি একটি উজ্জ্বল বাতিঘর-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

আওয়ামী লীগের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকারের অনেক মন্ত্রী দুদকে হাজিরা দিচ্ছেন, আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী জেলে আছেন। তার এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি একমত?