মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৯, ০৯:০৫:৫৮

জনগনের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে সরকারের যা করার দরকার তাই করবে-বীর বাহাদুর ঊশৈসিং

জনগনের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে সরকারের যা করার দরকার তাই করবে-বীর বাহাদুর ঊশৈসিং

রাঙ্গামাটিঃ-পার্বত্য অঞ্চল নিয়ে ষড়যন্ত্রকারী কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর ঊশৈসিং এমপি। তিনি বলেন, জনগনের জানমাল নিরাপত্তা বিধানে সরকার যে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারে। তিনি বলেন, সরকার পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নে নানামুখী উন্নয়ন গ্রহণ করেছে। এই উন্নয়ন কর্মকান্ড কেউ যদি বাধা গ্রস্থ করে তাদের বিরুদ্ধে দলমত নির্বিশষে সকলকে ঐক্য বদ্ধ হতে হবে। তিনি পার্বত্য অঞ্চলের পানির স্তর গুলোতে যাতে নতুন করে জীবন দেয়া যায় তার জন্য পানি ধরে রাখে এরকম গাছ লাগানোর যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান।
শনিবার (১৭ আগষ্ট) রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদে সম্মেলণ কক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের আয়োজনে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে টেকসই পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক সেমিনারে পার্বত্য মন্ত্রী একথা বলেন।
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নযন বোর্ড চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরার সভাপতিত্বে সেমিনারে গেষ্ট অব অনার হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব মোঃ মেসবাহুল ইসলাম, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার মোঃ আলমগীর কবির সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ শাহীনুল ইসলাম।
সেমিনারে তিন পার্বত্য জেলার উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এনজিও প্রতিনিধি সহ বিভিন্ন সরকারী বেসকরকারী কর্মকর্তা ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
দীপংকর তালুকদার তার বক্তব্যে বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের পানির উৎস গুলো একদিনে নষ্ট হয়নি। নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন করে আমরা আস্তে আস্তে করে উৎস গুলো নষ্ট করে দিয়েছি। তার মধ্যে পানির উৎস গুলো নতুন করে সৃষ্টি করতে আমরা উদ্যোগ গ্রহণ করলে আঞ্চলিক পরিষদ থেকে বাধা সৃষ্টি করা হচ্ছে। দীর্ঘ বছর ধরে পার্বত্য অঞ্চলের সরকারী বনাঞ্চলে বৃক্ষ রোপন করা যাচ্ছে না। তিনি বলেন, এই অঞ্চলে কোন কাজ করতে গেলেই বাধা সৃষ্টি করে আঞ্চলিক সংগঠন গুলো। আমরা মানবতার সেবায় ক্ষতিগ্রস্থদের হাতে খাদ্য শষ্য তুলে দিবো এখানেও বাধা সৃষ্টি করা হয়েছে। তারপর আমরা বাধ্য হয়ে সেনাবাহিনীকে কাজে লাগাতে হয়েছে। তাহলে আমরা উন্নয়ন কিভাবে করবো। তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলে স্থিতিশীল পরিবেশ যতদিন সৃষ্টি করা যাবে না, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার হবে না ততক্ষণ পার্বত্য এলাকার উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে না। তিনি পার্বত্য অঞ্চলের স্থিতিশীল পরিবেশ ফিরেয়ে আনতে পাহাড়ের সকল মানুষকে সমন্বিত ভাবে এগিয়ে আসতে হবে।
সেমিনারে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের সচিব মোঃ কবির বিন আনোয়ার বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নে বেশ কযেকটি মেঘা প্রকল্প হাতে নিয়েছে। দেশের বেশ কিছু নদী ড্রেজিং এর মাধ্যমে নাব্যতা ফিরিয়ে আনার কাজ হাতে নিয়েছে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়। তিনি বলেন, এই প্রকল্পের আওতায় পার্বত্য অঞ্চলের কর্ণফুলী, রাইংখিং, মাইনী, মাতামুহুরী সহ বেশ কিছু নদীও ড্রেজিং করা হবে। তিনি বলেন, এই সকল উন্নয়নের পূর্বশর্ত হচ্ছে শান্তি। পার্বত্য এলাকার শান্তিশৃঙ্খলা খুবইদার। খুন চাঁদাবাজী বন্ধ করতে হবে। সবাই একসাথে কাধে কাঁধ মিলিয়ে চললে উন্নয়ন ত্বরান্তিত হবে। তিনি বলেন, উন্নয়ন বোর্ড, আঞ্চলিক পরিষদ, জেলা পরিষদ ও জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনের মাঝেও সমন্বয় থাকতে হবে। সকল প্রতিষ্ঠানের মাঝে সমন্বয় থাকলে ৫ বছরের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়ন তরান্বিত হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  রাঙ্গামাটির খাদ্য অফিসে প্রতি সিডিউল ৩শ টাকা বেশী নেয়ার অভিযোগ!

  রাঙ্গামাটি ডিসি অফিস সংলগ্ন এলাকায় প্রকাশ্যে ধুমপান করার দায়ে ৬ ব্যক্তিকে জরিমানা

  পাহাড়ি কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে গ্রীষ্মকালীন টমেটো উৎপাদন বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ

  একটি ব্রীজের অভাবে পাঁচ গ্রামের মানুষের চরম দূর্ভোগ

  রাঙ্গামাটি কলেজ গেইট এলাকার জমি বিরোধ নিয়ে প্রয়াত ডা.একে দেওয়ান পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

  রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে গুর্খা সম্প্রদায়ের সৌজন্য সাক্ষাৎ

  রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা এলাকায় পারিবারিক কলহের জের ধরে রাজমিস্ত্রীর বিষ পানে আত্মহত্যা

  শিক্ষকদের পাঠদানের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মাঝে সঠিক মুল্যবোধ প্রদান করতে হবে-একে এম মামুনুর রশিদ

  দখলকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা না হলে ১৭ সেপ্টেম্বর সড়ক অবরোধ-সংবাদ সম্মেলনে এ্যাড.দীপেন দেওয়ান

  মোটরসাইকেলের ধাক্কায় কাপ্তাই রাইখালীর ব্যবসায়ী সুসঙ্গ ভট্টাচার্য্যরে মৃত্যু

  প্রতিষ্ঠার ৩৫ বছরে এমপিও ভূক্ত না হওয়ায় হতাশ চন্দ্রঘোনা কেআরসি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?