শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯, ১২:১৯:৫০

আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে মৎস্য খাতের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-মোহাম্মদ ইয়াছিন

আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে মৎস্য খাতের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-মোহাম্মদ ইয়াছিন

রাঙ্গামাটিঃ-‘মৎস্য সেক্টরের সমৃদ্ধি, সুনীল অর্থনীতির অগ্রগতি’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৯ উদযাপন উপলক্ষে রাঙ্গামাটিতে মৎস্য অধিদপ্তরের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে রাঙ্গামাটি জেলা মৎস্য অধিদপ্তর আয়োজনে মৎস্য প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রাঙ্গামাটি জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইয়াছিন।
এ সময় সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো: ছরওয়ার জাহাঙ্গীর, উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মোঃ আজহার আলী, বিএফডিসির ডেপুটি ম্যানেজার মো: জাহিদুল ইসলাম, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ বিল্লাল হোসেন প্রমুখ।
রাঙ্গামাটি জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইয়াছিন তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, কৃষি নির্ভর বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে মৎস্য খাতের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দেশের মোট জনগোষ্ঠীর ১১ শতাংশের বেশি প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে মৎস্য খাতে নিয়োজিত। আর আর দেশের রপ্তানী আয়ের উল্লেখযোগ্য অংশ আসে মৎস্য খাত থেকে। আমাদের খাদ্যে প্রাণীজ আমিষের প্রায় ৬০ শতাংশ মৎস্য থেকে পায়।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, ২০১৬-১৭ সালের অর্থ বছরে বাংলাদেশে মৎস্য উৎপাদন হয়েছিল ৪১ দশমিক ৩৪ লক্ষ মে. টন। ২০১৭-১৮ সালের অর্থ বছরে উৎপাদন বেড়ে ৪২ দশমিক ৭৭ লক্ষ মে. টন যা গত বছরের চেয়ে ১ দশমিক ৪৩ লক্ষ মে. টন বেশি। এবার বাংলাদেশ ২০১৮-১৯ সালের অর্থ বছরে মৎস্য রপ্তানী থেকে আয় করেছে ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা (৭৩১৭১ মে. টন মৎস্য ও মৎস্যজাত)। বর্তমানে অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয়ে মাছ উৎপাদনে ৪র্থ এবং বদ্ধ জলাশয়ে মাছ উৎপাদনে ৫ম স্থানে রয়েছে এবং বাংলাদেশ প্রাকৃতিক উৎসের মাছ উৎপাদনে ৩য় স্থানে রয়েছে।
তিনি আরও জানান, এবাব ২০১৭-১৮ সালে রাঙ্গামাটিতে মাছ উৎপাদন হয়েছে ১৩ হাজার ৩৬৩ মেঃ টন। মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি ও মৎস্য সম্পদ উন্নয়নের পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে মৎস্য চাষ উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ শীর্ষক ১টি প্রকল্প ২০১২-১৮ সাল মেয়াদে বাস্তবায়িত হয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় ৩২২টি ক্রীক ও ১৭টি নার্সারী উন্নয়ন করা হয়েছে। রাঙ্গামাটির কাউখালী উপজেলায় ১টি হ্যাচারি নির্মাণ করা হয়েছে। বর্তমানে হ্যাচারিতে রেনু ও মাছের পোনা উৎপাদনের কার্যক্রম চলছে।
এ ছাড়াও পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন শীর্ষক ১টি প্রকল্প বর্তমানে অনুমোদনের জন্য প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানানো হয় সাংবাদিক সম্মেলনে।
এদিকে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে সপ্তাহ ব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচী হাতে নিয়েছেন বলে জানান তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর

  ভগবান শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী উপলক্ষে রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশের নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা

  কেপিএমে গ্যাসের পূর্ণ সংযোগ দিয়ে কাগজ উৎপাদন সচল করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

  উন্নয়নের সুফল তৃণমূল পর্যায়ে পৌছে দিতে নিরাপত্তার প্রয়োজন-জোনায়েত কাউসার

  ৭২ ঘন্টায় রাঙ্গামাটিতে কোন ডেঙ্গু রোগী পাওয়া যায়নি

  পার্বত্য চট্টগ্রামকে নিয়ে দেশ ও দেশের বাইরে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

  বাঘাইছড়িতে যৌথ বাহিনীর বিশেষ অভিযানে দুই নেতার হত্যা মামলার আসামি আটক

  পর্যটকদের পদচারণায় মুখর রাঙ্গামাটি ঘাগড়া কলা বাগানে অবস্থিত ঘাগড়া ঝর্ণা

  বাঘাইছড়িতে জেএসএস দুই নেতা হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহভাজন একজন আটক

  রাজস্থলীতে সেনা সদস্য নিহতের ঘটনায় রাজস্থলী-চন্দ্রঘোনা-বান্দরবান সড়কে যৌথবাহিনীর বিশেষ অভিযান, টহল জোড়দার

  রাজস্থলীতে সেনা টহল দলের উপর সন্ত্রাসীদের গুলিবর্ষণঃ স্থল মাইন বিষ্ফোরণ ও গুলিবিদ্ধ হয়ে ৪ সেনা সদস্য আহত

  তিন পার্বত্য জেলা পরিষদকে শক্তিশালী করতে জনবল বৃদ্ধিসহ নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে-সচিব

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?