বুধবার, ২৪ জুলাই ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ০৯ জুলাই, ২০১৯, ০৮:৫৬:১৫

রাঙ্গামাটির ৭টি আশ্রয় কেন্দ্রে ১ হাজারের বেশী লোকের আশ্রয়, আশ্রিতদের মাঝে জেলা প্রশাসনের ত্রাণ ও খাবার বিতরণ

রাঙ্গামাটির ৭টি আশ্রয় কেন্দ্রে ১ হাজারের বেশী লোকের আশ্রয়, আশ্রিতদের মাঝে জেলা প্রশাসনের ত্রাণ ও খাবার বিতরণ

রাঙ্গামাটিঃ-গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণে রাঙ্গামাটির জনজীবন বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকাল থেকে থেমে থেমে বৃষ্টিপাত হলেও ভারী বৃষ্টি না হওয়ায় মানুষের মাঝে কিছুটা স্বস্থি ফিরে এসেছে। তারপরও মঙ্গলবার পর্যন্ত রাঙ্গামাটি শহরের ৬ নং ওয়ার্ডের প্রায় ৭ টি আশ্রয় কেন্দ্রে ঝুঁকিপুর্ণ এলাকা থেকে প্রায় ১ হাজার ২ শত লোক আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে।
রাঙ্গামাটির ৭ টি আশ্রয় কেন্দ্রে গতকাল রাত থেকে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হয়েছে। রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর উত্তম কুমার দাশ জানান, রাতের খাবারের জন্য রাঙ্গামাটি পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলারকে ৫৫ কেজি চাল, ১৫ কেজি ডাল, ১০ কেজি আলু, ৫ লিটার তৈল, পেয়াজ রসুন ১০ কেজি সহ অন্যান্য সামগ্রী দেয়া হয়েছে।
কয়েক দিনের বৃষ্টিতে রাঙ্গামাটি শহরের বিভিন্ন এলাকায় বাড়ীঘর ভেঙ্গে না পারলেও ফাটল দেখা দিয়েছে বেশ কিছু স্থানে। গতকাল রাতে বৃষ্টি কিছুটা কম থাকলেও সকাল থেকে আবারো ভারী বর্ষণে মানুষের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।
রাঙ্গামাটি শহরে যে কোন দুর্ঘটনা এড়াতে রাঙ্গামাটি পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের ঝুঁকিপূর্ণ প্রতিটি ঘরে ঘরে গিয়ে লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে এসেছেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ। ৮ জুলাই বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৮ টা পর্যন্ত টানা ৫ ঘন্টা পাহাড়ের খাদে খাদে বসবাস করা লোকজনকে বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে চলে যেতে রেড ক্রিসেন্ট, স্কাউট ও পুলিশ ও সেনাবাহিনী সদস্যদের দিয়ে ঘর থেকে টেনে বের করে নিয়ে এসেছেন।
রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ ৪ টি মোবাইল টিমের মাধ্যমে রাঙ্গামাটির পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের শিমুলতলী, নতুন পাড়া, সনাতন পাড়া, কিনা মোহন ঘোনা, রূপনগর সহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় লোকজনকে বুঝিয়ে সুজিয়ে ও জোর করে ঘরে তালা দিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যেতে বাধ্য করেন।
রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে বলেন, ভারী বর্ষণের আভাস রয়েছে কাপ্তাই উপজেলায় ইতিমধ্যে ২ জনের প্রাণহানী ঘটেছে। যে কোন মুহুর্তে রাঙ্গামাটি শহরের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা গুলোতেও পাহাড় ধ্বসের সম্ভাবনা রয়েছে। এই সম্ভাবনা এড়াতে আমাদেরকে মাঠে নামতে হয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্র গুলোতে আশ্রয় গ্রহণকারীদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। তবে প্রশাসন সচেতন থাকায় এখনো পর্যন্ত রাঙ্গামাটিতে বড়ো ধরনের কোন দুর্ঘটনা ঘটেনি।

এই বিভাগের আরও খবর

  জনগনের উন্নয়নের জন্যই জেলা পরিষদ সৃষ্টি-বৃষ কেতু চাকমা

  শেখ হাসিনা ও তার সরকার খেলাধুলনার উন্নতির জন্য বদ্ধ পরিকর-মেয়র আ জ ম নাসির উদ্দিন

  রাঙ্গামাটিতে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবসের র‌্যালী ও আলোচনা সভা

  যৌথ বাহিনীর অভিযানে কাউখালী বাজার থেকে ইউপিডিএফ (মুল) এর চাঁদা আদায়কারী গ্রেফতার

  জুরাছড়িতে ফলদ বৃক্ষমেলা ও বৃক্ষারোপনঃ পরিবেশ বিপর্যয় রোধে বৃক্ষরোপন

  লংগদুতে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সাইফুল ও ইউএনও প্রবীর কুমার সংবর্ধিত

  কাপ্তাইয়ে বাংলাদেশ স্কাউটসের শাপলা কাব এওয়ার্ড পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

  লংগদুতে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের ৩জন সাময়িক বহিস্কার

  সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা পাহাড়ে বনায়নে বাধাগ্রস্ত করছে-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

  আন্দোলনে পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীঃ রাঙ্গামাটি শহরে আবর্জনার স্তুপ, দুর্গন্ধে নাকাল পৌরবাসী

  বরকলে বিজিবির উদ্যোগে বিভিন্ন মালামাল সামগ্রি ও নগদ অর্থ বিতরন

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

এলডিপি সভাপতি অলি আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশে এখন টাকা থাকলে সব রকম অন্যায় করে পার পাওয়া যায়। আপনি কি তা ঠিক মনে করেন?