শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ২৩ জুন, ২০১৯, ০৯:১৫:৪১

রাঙ্গামাটিতে আওয়ামীলীগের ৭০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

রাঙ্গামাটিতে আওয়ামীলীগের ৭০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

রাঙ্গামাটিঃ-পার্বত্য অঞ্চলের অশান্তি সৃষ্টিকারীদের রুখে দিয়ে পাহাড়ের মানুষের শান্তি ফিরিয়ে আনতে আওয়ামীলীগের সকল নেতাকর্মীদের জনগনের পাশে থাকার আহবান জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। বক্তারা বলেন, পাহাড়ের জনগনকে বাঁচাতে অবৈধ অস্ত্রধারীদের রুখতে আওয়ামীলীগের হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। তাই সকল জনগনকে সকল ভয়ভীতির উদ্ধে জনগনের পাশে থাকতে হবে।
রবিবার (২৩ জুন) রাঙ্গামাটিতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এ কথা বলেন।
রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর, যুগ্ম সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবুল, প্রচার সম্পাদক মমতাজুল হক, দপ্তর সম্পাদক রফিক উদ্দিন তালুকদার, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ কাজল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ শাওয়াল উদ্দিন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন, শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম, মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহতি চাকমা, যুব মহিলা লীগের সভাপতি রোকেয়া বেগম সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীরা বক্তব্য রাখেন।
বক্তারা বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনে পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন জেএসএস অস্ত্রের মুখে সকল কেন্দ্র দখল করে ভোটারদের অস্ত্রে ভয় দেখিয়ে ভোট ছিনতাই করেছে। কিন্তু ২০১৯ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের অতন্দ্র প্রহরায় ছিলো বলে ২০১৪ সালের মতো ভোট ডাকাতির সুযোগ করতে পারেনি। তার পরও পাহাড়ের কেন্দ্র গুলোতে ৯৫ শতাংশ ভোট ডাকাতি করেছে তারা। তার পরও আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের পহারার কারণে দীপংকর তালুকদার ৫০ হাজারো বেশী ভোট জয় লাভ করেছে।
বক্তারা বলেন, পাহাড়ের আওয়ামীলীগের যে উন্নয়ন করেছে অতীতে কোন সরকার তা করতে পারেনি। বর্তমানে বিভিন্ন উন্নয়ন সেক্টরের মাধ্যমে পার্বত্য অঞ্চলে শত শত কোটি টাকার উন্নয়ন করছে সরকার। সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হলে আওয়ামীলীগের জয় নিশ্চিত করতে হবে। আওয়ামীলীগ যদি জয় লাভ না করে তাহলে উন্নয়নেও বাধা গ্রস্থ হবে। বক্তারা বলেন আওয়ামীলীগ এমপি পদ না পেলে রাঙ্গামাটির উন্নয়ন
এর আগে গতকাল সকালে রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করে আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ। দুপুর ৩ টায় রাঙ্গামাটি প্রেসক্লাব থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। পরে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিশাল কেক কেটে জন্মদিনের উদ্্যাপন করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

এই বিভাগের আরও খবর

  কাউখালীতে চাঁদা না দেয়ায় বটতলী সড়কে যান চলাচল বন্ধ, চাঁদা চেয়ে ব্যবসায়ীদেরও চিঠি

  পাহাড়ে পিছিয়ে পরা জনগোষ্ঠিদের সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে নিতে মোনঘর প্রতিষ্ঠানটি একটি উজ্জ্বল বাতিঘর-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

  বাঘাইছড়িতে জেএসএস দুই কর্মীকে হত্যাকান্ডে সাবেক চেয়ারম্যান বড় ঋষি চাকমাকে প্রধান আসামী করে থানায় মামলা

  কাউখালীর সুগারমিল আদর্শগ্রাম সড়কের এক কিলোমিটার সড়ক যেন সড়ক নয় ফসলী জমি

  পার্বত্য অঞ্চলের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে-একেএম মামুনুর রশিদ

  পাহাড়ি ছড়া ও ঝরনার উৎস খুঁজে বের করে পানি সংকট দুরীকরণে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  দূর্গম এলাকায় গবাদী পশু পালনের উদ্যোগকে আরো বেশী বেগবান করতে হবে-রেমলিয়ানা পাংখোয়া

  বরকলে প্রাথমিক শিক্ষকদের ৭দফা দাবীতে প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে স্মারকলিপি

  রাঙ্গামাটি শহরের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী জেল হাজতে

  আইনের মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব নয়, প্রয়োজন দূর্বার গণ আন্দোলন-মাহবুবের রহমান শামীম

  উন্নতশীল দেশ গঠন ও প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তবায়নে সকলকে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

আওয়ামী লীগের দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকারের অনেক মন্ত্রী দুদকে হাজিরা দিচ্ছেন, আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী জেলে আছেন। তার এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি একমত?