মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ০১ জুন, ২০১৯, ০৮:১৫:৫১

রাঙ্গামাটিতে জমে উঠেছে শেষ মুর্হুতে ঈদের বেচাকেনা, ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড়

রাঙ্গামাটিতে জমে উঠেছে শেষ মুর্হুতে ঈদের বেচাকেনা, ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড়

রাঙ্গামাটিঃ-ঈদ আসতে আরো কয়েকদিন বাকী। এরই মধ্যে পাহাড়ি জেলা রাঙ্গামাটির ক্রেতাদের সমাগমে জমতে শুরু করেছে ঈদের বেচাকেনায়। মার্কেটগুলোতে এখন মানুষের উপচে পড়া ভিড়, দোকানীদের হাক-ডাক এবং কেনাবেচা দিনদিন বাড়ছে। শহরের বিভিন্ন মার্কেটে সমাগম বেড়েছে নানা বয়সী মানুষের।
আসন্ন ঈদুল-ফিতর উপলক্ষে জামা-কাপড়ের রংয়ের সাথে রং মিলিয়ে শখের চুড়ি থেকে শুরু করে কান ও গলার সেট কিনতে কসমেটিকসের দোকানে তরুণীদের লক্ষ্যণীয় ভিড় দেখা যাচ্ছে। কারণ ঈদের পূর্ব মুহুর্তে ভিড় আরো বেশি হতে পারে। তাই, একটু আগে ভাগেই দেখে শুনে ঈদের কেনাকাটা করতে শুরু করছেন অনেকেই। বিভিন্ন দোকানে ঘুরে পছন্দ মতো কাপড়, জুতো ও প্রসাধনী সামগ্রী কিনতে পেরে সন্তুষ্টি চিত্তে বাড়ি ফিরছেন ক্রেতারা। ক্রয় ক্ষমতার আওতায় ঈদ বাজার করতে পেরে সন্তুষ্টির কথা জানালেন ক্রেতা সাধারণ।
বনরূপা বি এম শপিং কমপ্লেক্সে তরুণীদের জন্য আকর্ষনীয় কসমেটিকস থেকে শুরু করে নানান রংয়ের চুড়ি, শাড়ি ও থ্রি-পিচের সমাহার ঘটেছে। এছাড়াও, আলিফ মার্কেট, নিউমার্কেট, রির্জাভ বাজার মসজিদ মার্কেট, টেক্সটাইল মার্কেট বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে তরুন তরুণীদের কাছে। মার্কেটগুলোতে এ বছর নতুন ডিজাইয়ের সব সামগ্রী পাওয়া পাওয়া যাচ্ছে। আর ক্রেতাদের সন্তুষ্টির পাশাপাশি ঈদবাজারে লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী বিক্রি করতে পেরে খুশি বিক্রেতারা।
এব্যাপারে রাঙ্গামাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ছুফি উল্লাহ বলেন, ঈদকে সামনে রেখে রাঙ্গামাটি জেলার আইন-শৃংঙ্খলা ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশের বিশেষ টিম কাজ করছে। তাছাড়া ঈদের মার্কেটগুলোতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশের কড়া নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পাশাপাশি জাল নোট পরীক্ষাকরণ মেশিন বসানো হয়েছে। যাতে গ্রাহকরা কোন রকম হয়রানির শিকার না হয়।
অন্যদিকে বনরূপা বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ আবু সৈয়দ জানান, মার্কেটগুলো আসা ক্রেতারা যাতে সুলভমূল্যে তাদের পছন্দ জিনিস কিনতে পারে তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তাছাড়া ক্রেতারা যাতে কোন ধরনের হয়রানী শিকার নায় হয় সে দিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে। এছাড়া মার্কেটগুলোতে নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।
মার্কেটগুলোতে পুরুষেরা পায়জামা পাঞ্জাবী জুতা আর মেয়েরা শাড়ি ও থ্রি-পিচের রংয়ের সাথে মিলিয়ে কিনছেন পাথর বসানো সিটি গোল্ডের সেট ও চুরি। দাম যা হোক সামর্থ্য অনুযায়ী কমবেশী কিছু না কিছু কিনে নিচ্ছেন ক্রেতারা। আর এবারের ঈদের বাজারে নতুন বাহারী ডিজাইয়ের সামগ্রীর সমাহার ঘটায় স্থানীয় পাহাড়ীরাও কেনাকাটা করছেন মনের আনন্দে।

এই বিভাগের আরও খবর

  ভারী বৃষ্টিতে কর্ণফুলী নদীতে পানি বৃদ্ধি পেলে বন্ধ হয় লিচুবাগান ফেরী পারাপার, দূর্ভোগে পড়ে হাজারো মানুষ

  পাহাড়ী ঢলে কাপ্তাই হ্রদে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় রাঙ্গামাটির চার উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

  কাপ্তাই পাহাড় ধ্বসে নিহত পরিবারকে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের চেক প্রদান

  বরকলে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে চিকিৎসা সেবা ও ত্রান সামগ্রী বিতরন

  লংগদুতে কৃষক মাঠ স্কুলের সদস্যদেরকে কৃষি সরঞ্জামাদি বিতরণ

  পাহাড়ী ঢলে বিলাইছড়িতে বন্যার অবনতি ফারুয়া বাজারসহ ৭টি গ্রাম প্লাবিত

  বিলাইছড়ি দূর্গম ফারুয়া বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শণে জেলা পরিষদ সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া, আর্থিক সহায়তা প্রদান

  লংগদুতে আরো ৩জনকে অর্থদন্ডসহ জাল ও নৌকা জব্দ

  বাঘাইছড়িতে বন্যা দুর্গতদের মাঝে মারিশ্যা বিজিবির ত্রাণ সহায়তা

  কাপ্তাই লেক থেকে অজ্ঞাত পরিচয় ব্যাক্তির লাশ উদ্ধার

  কর্ণফুলী নদীতে তীব্র ভাঙ্গনঃ হুমকির মুখে চন্দ্রঘোনা খ্রীষ্টিয়ান হাসপাতাল

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

এলডিপি সভাপতি অলি আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশে এখন টাকা থাকলে সব রকম অন্যায় করে পার পাওয়া যায়। আপনি কি তা ঠিক মনে করেন?