বুধবার, ১৯ জুন ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ২৬ মে, ২০১৯, ০৮:১৯:৫২

দীর্ঘ বছর ধরে মানুষের প্রাণের দাবী চন্দ্রঘোনা ফেরিঘাট সংযোগ সেতু নির্মাণ কাজ অনুমোদন

দীর্ঘ বছর ধরে মানুষের প্রাণের দাবী চন্দ্রঘোনা ফেরিঘাট সংযোগ সেতু নির্মাণ কাজ অনুমোদন

রাঙ্গামাটিঃ-অবশেষে সব জল্পনা কল্পনা ছাড়িয়ে রাঙ্গামাটি, চন্দ্রঘোনা, রাজস্থলী, কাপ্তাই, রাঙ্গুনিয়া, বান্দরবান ও মানুষের দাবী চন্দ্রঘোনা ফেরিঘাট সংযোগ সেতু নির্মাণ কাজ অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এই এলাকার প্রাণের দাবী ছিল সংযোগ সেতু নির্মাণের। ফলে যোগাযোগ সুবিধার্থে সড়ক ও সেতু মন্ত্রানালয় সংযোগ সেতু নির্মাণ করতে যাচ্ছে। সম্প্রতি সড়ক ও জনপদ বিভাগে এক বৈঠকে সেতুটি নির্মাণের জন্য অনুমোদন প্রদান করা হয়েছে। এসময় তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
দীর্ঘ বছর ধরে একটি জেলা ও তিনটি উপজেলার সাধারণ মানুষের প্রাণের দাবী ছিলো কর্ণফুলী নদীতে একটি সংযোগ সেতু নির্মাণ করে দেয়ার। সেতুটি নির্মিত হলে কাপ্তাই-রাজস্থলী, বান্দরবানের সাথে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার যোগযোগ ব্যবস্থার উন্নতি ঘটবে। আর অবশেষে এসব উপজেলার বাসিন্দাদের কাঙ্খিত স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে।
দীর্ঘদিন ধরে অনেক কষ্ট করে এসব এলাকার মানুষ ফেরি পারাপার করে যোগাযোগ করতে হয়েছে। অনেক সময় যাওয়া আসা করা যাত্রীরা ঘন্টার পর ঘন্টা সময় ব্যয় করতে হয়। সন্ধ্যা হলে ফেরি পারাপার বন্ধ হয়ে যায়। এসময় যাত্রী ও সাধারণ মানুষ চরম বিপাকে পড়তে হয়। এবার সংযোগ সেতুটি নির্মান করা হলে এ ধরনের সমস্যার হাত থেকে রক্ষা পাবে এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী হবে বলে স্থানীয়দের অভিমত।
এব্যাপারে রাঙ্গামাটি ও বান্দরবানের বাস চালকরা জানান, রাঙ্গামাটি থেকে বান্দরবান যেতে সময় লাগে ৩ থেকে ৪ ঘন্টাও বেশী সময়। এখন সংযোগ সেতুটি নির্মান হলে ২ ঘন্টার মধ্যে বান্দরবান যাওয়া যাবে। এতে করে যাত্রীদের সময় বেচে যাবে এবং পরিশ্রমও কম হবে বলে জানান তারা। এছাড়াও সংযোগ সেতুটি নির্মিত হলে কক্সবাজারের বাস ও পর্যটনবাহী গাড়ি এই সেতু দিয়ে খুব সহজে চলাচল করতে পারবে।
অন্যদিকে সরকারের এই মহান উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে এই বিষয়ে কাপ্তাই সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন ও সাবেক নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমীন সেতুটি নির্মাণের অনুমোদন পাওয়ায় সরকারের প্রশংসা করেন। অন্যদিকে চন্দ্রঘোনা ফেরিঘাট সংযোগ সেতুটি অনুমোদন ও নির্মাণে নিরলস ভূমিকা রয়েছে ড. হাসান মাহমুদ ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও রাঙ্গামাটি ২৯৯ নং আসন সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদারের। আর এই সংযোগ সেতুটি অনুমোদন দেওয়ায় পাহাড়ের জনসাধারণ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান।

এই বিভাগের আরও খবর

  স্বাস্থ্য বিভাগের সংবাদ সম্মেলনঃ রাঙ্গামাটিতে ৭৯ হাজার শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর হবে

  জুরাছড়িতে ভোটার তালিকা হালনাগাদ উপলক্ষে তথ্য সংগ্রহকারী-সুপাভাইজারদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ

  পাহাড়ে উন্নয়নের আলো পৌছে দিতে সব রকম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সরকার-জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা

  পার্বত্যাঞ্চলে দক্ষ জনশক্তি গড়ার লক্ষ্যে সরকারের বিশেষ পরিকল্পনা রয়েছে-মোঃ আরিফ আহমদ

  বরকলের প্রতিবন্ধী স্বপ্না খীষার আড়াই বছরেও জুটেনি প্রতিবন্ধীর ভাতা

  রাঙ্গামাটির নানিয়ারচরে চাঁদাবাজীর অভিযোগে ইউপিডিএফ ৩কর্মী আটক

  রাঙ্গামাটিতে ট্রাক চালক কল্যাণ সমিতির মৃত্যুবরণকারী সদস্যের পরিবারদের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান

  রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদে ডুবে পাহাড়ী যুবকের মৃত্যু

  আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের সদস্য আমাকে নয়, করেছে রাঙ্গামাটিবাসীকে-দীপংকর তালকদার

  কাপ্তাইয়ে তুঁত চারা উৎপাদন বিষয়ে ৪ দিনের প্রশিক্ষণ কোর্স উদ্বোধন

  সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের সদস্য মনোনিত হওয়ায় স্বেচ্চাসেবক লীগের ফুলেল শুভেচ্ছা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ঈদের চাঁদ দেখা নিয়ে বিভ্রান্তির জন্য সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এটা সুশাসনের অভাবের ফল। আপনি কি তা মনে করেন?