মঙ্গলবার, ২১ মে ,২০১৯

Bangla Version
SHARE

রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯, ০২:৫৪:০৮

বরকলে এক হিল ভিডিপির প্লাটুন লীডারের বিরুদ্ধে অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ

বরকলে এক হিল ভিডিপির প্লাটুন লীডারের বিরুদ্ধে অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ

পুলিন বিহারী চাকমা, বরকলঃ-রাঙামাটির বরকল উপজেলার ৩নং আইমাছড়া ইউনিয়নের কলাবুনিয়ার ২৮নং হিল ভিডিপির (গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী) প্লাটুন লীডার মোঃ আবদুচ ছালামের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ উঠছে। স্বয়ং তার প্লাটুনের সদস্য জুলমত মোড়ল সহ ভুক্তভোগী অনেকেই তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেছেন। তবে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পুর্ন মিথ্যা বানোয়াট ও ষড়যন্ত্র মূলক বলে জানালেন প্লাটুন লীডার মোঃ আবদুচ ছালাম।
অভিযোগকারী জুলমত মোড়ল বলেন- হিল ভিডিপির নিয়ম অনুযায়ী ৫৯ বছর পর্যন্ত প্লাটুনে থাকা যায়। আমার চাকরীর মেয়াদ পুর্ন হওয়ায় আমার ছেলে আজগর আলীকে প্লাটুনে সদস্য হিসাবে ভর্তি করে দিই। গত ১৭ ফেব্রুয়ারী চট্টগ্রামে তার খালার বাড়িতে বেড়াতে গেলে চট্টগ্রামের চান্দঁগাও থানা পুলিশ রাস্তায় এক ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করার সময় তার ছেলে আজগর আলীকেও সন্দেহজনক ভাবে আটক করে। এক মাস জেলে থাকার পর জামিনে বেরিয়ে আছে। আমার ছেলে জেলে থাকা সময় আমার ছেলের চাকরী বাঁচানের নাম করে প্লাটুন লীডার আবদুচ ছালাম ২০হাজার টাকা দাবী করে। টাকা দিতে না পারলে চাকরী চলে যাবে। আমি বললাম গরীব মানুষ এত টাকা কোথায় পাবো। পরে মানুষের কাছ থেকে ধার করে ৫হাজার টাকা আবদুচ ছালামকে দিই। কিন্তু আবদুচ ছালাম তার দাবী অনুযায়ী ২০হাজার টাকা না পাওয়ায় আনসার ভিডিপির উপজেলা ও জেলা কর্মকর্তাকে অবগত করে বেতন ভাতা বন্ধ করে। অথচ একই প্লাটুনে বাপ ছেলে তিনজন চাকরী করছে। তার দুই ছেলের মধ্যে বড় ছেলে সাকিল উদ্দিন শেখ প্লাটুনে সদস্য পদে থাকলেও সেই চট্টগ্রামে গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীতে চাকরী করে আর ছোট ছেলে দশম শ্রেনীতে পড়া লেখা করছে। অপ্রাপ্ত বয়স্ক হলেও নিজের ক্ষমতার জোরে তাকেও হিল ভিপির সদস্য করা হয়েছে। আর এলাকার মজিবুর রহমানের ছেলে আল আমিন দীর্ঘ সময় ধরে এলাকায় নেই মাছের আড়তে চাকরী করে। অথচ এরাই কর্মস্থলে উপস্থিত না থাকলেও প্রতি মাসে তাদের বেতন ভাতা তুলে প্লাটুন লীডার আবদুচ ছালাম ভাগ বাটোয়ারা করে নিচ্ছেন। দীর্ঘ সময় ধরে এ অনিয়ম হয়ে আসলে ও তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেই। আর আমার ছেলেকে পুলিশ সন্দেহ জনক ভাবে আটক হয়েছে। কিন্তু সাজাতো হয়নি। তার পরেও আমার ছেলের বিরুদ্ধে কত ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে। কিন্তু আবদুচ সালাম তার ছেলে ও তার আত্মীয়দের ক্ষেত্রে কোন পদক্ষেপ নেয়নি। তার কারন এলাকার অন্য একজন ছেলের কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা নিয়ে আমার ছেলের পরিবর্তে সেই ছেলেকে সদস্য করার জন্য প্লাটুন লীডার এ সমস্ত অনিয়ম দূর্নীতি করছেন বলে জুলমত মোড়ল ক্ষোভের সঙ্গে জানান।
আবদুচ ছালামের ভাইরা মোঃ সেলিম হাওলাদার জানান- তার ছোট বোনের জামাই আবদুচ ছালাম দুষ্ট প্রকৃতির লোক। সেই এলাকার মসজিদে সভাপতি থাকাকালীন ৩০ হাজার টাকা ও কাফনের কাপড়ের টাকা আত্মসাৎ করে এলাকার মানুষ তাকে শাস্তি দিয়েছিল।
এছাড়াও এলাকার বাসিন্দা মোঃ বারেক হিল ভিডিপিতে চাকরীর জন্য প্লাটুন লীডার আবদুচ ছালামকে ২০ হাজার টাকা দিয়েছিল। দু বছর ধরে কেন চাকরী দিতে পারেনি। পরে মুরব্বীদের মাধ্যমে চাপ সৃষ্টি করে ১৫হাজার টাকা ফেরত পেয়েছেন। বাকী ৫হাজার টাকা আজ দেবো কাল দেবো করে ঘুরাচ্ছেন।
মামুন জমাদ্দার নামে একজন হিল ভিডিপির চাকরীর জন্য দিয়েছিলেন ১০হাজার টাকা। চাকরীও নেই টাকা ও ফেরত নেই। এলাকার সালমা নামে এক মহিলা তার ছেলে আতিক হাসান কে চাকরী দেবে বলে ২০হাজার টাকা নিয়েছে সপ্তাহ দুয়েক আগে প্লাটুন লীডার আবদুচ ছালাম। টাকা ফেরত দেইনি তবে এ চলতি মাসে চাকরীর ব্যবস্থা করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেই।
এ সবের ব্যাপারে জানতে চাইলে ২৮নং প্লাটুন লীডার আবদুচ ছালাম জানান- আমার বিরুদ্ধে যে সকল অভিযোগ আনা হয়েছে তা সম্পুর্ন মিথ্যা বানোয়াট ও ষড়যন্ত্রমূলক। আমার যদি এতো অনিয়ম দূর্নীতি থাকে তাহলে এতো দিন কেন আমার কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ দেয়া হয়নি। জুলমত মোড়লের ছেলে আজগর আলী ইয়াবা ব্যবসার অভিযোগে চট্টগ্রামের পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলে তার ব্যাপারে উপজেলা কর্মকর্তা ও জেলা এডজুট্যান্ট কে লিখিত ভাবে জানায়। সেটা কি আমার অপরাধ। প্লাটুন লীডার হিসাবে আমার প্লাটুনের সদস্য কোথায় গেছে কি করছে সেটা জানানো আমার দায়িত্ব। অভিযুক্ত তিনজন কর্মস্থলে না উপস্থিত না থেকে নিয়মিত তাদের বেতন ভাতা কিভাবে পাচ্ছে জানতে চাইলে প্লাটুন লীডার আবদুচ ছালাম বলেন- আমরা বাবা ছেলে তিনজন একই প্লাটুনে চাকরী করছি। তবে আমার বড় ছেলে সাকিল উদ্দিন শেখের পরির্বতে তার স্থলে অন্য একজনকে সদস্য করা হয়েছে। ছোট ছেলের বয়স কম হলেও তার লেখাপড়ার খরচ চালানোর জন্য জেলা এডজুট্যান্টের পরার্মশ ও সুপারিশে হিল ভিডিপিতে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
মজিবুর রহমানের ছেলে আল আমিন রাঙ্গামাটিতে থেকেই লেখাপড়া করে। সেই কর্মস্থলে না থাকলেও কোন কাজ থাকলে তার আত্মীয় স্বজনরা সেটা সমাধান করে দেই। এ ছাড়াও মানবিক দিক বিবেচনা করে তাকে স্ব পদে রাখার দলের নেতাকর্মীদের সুপারিশ রয়েছে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।
প্লাটুন লীডার আবদুচ ছালামের বিরুদ্ধে অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না এবং তাকে কেউই কিছুই বলেনি বলে জানান।

এই বিভাগের আরও খবর

  রাজস্থলীতে যুবলীগ নেতাকে হত্যাঃ প্রতিবাদে রাঙ্গামাটি জেলা যুবলীগের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ

  পার্বত্য এলাকার মানুষ শ্বাসরুদ্ধকর ও নিরাপত্তাহীনতার মধ্যদিয়ে বসবাস করতে হচ্ছে-উষাতন তালুকাদার

  নানিয়ারচরে সরকারের উন্নয়নের ধারা ও শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক রয়েছে-কাইয়ুুম হোসেন, পিএসসি

  পানির অভাবে কাপ্তাই বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৪টি জেনারেটরে উৎপাদন বন্ধ

  লামার হায়দারনাশী উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম অভিযোগ

  রাজস্থলীতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি ক্যহ্লাচিং মারমা নিহত

  মাতৃভাষা শিক্ষাদান সঠিকভাবে হচ্ছে কিনা তা মনিটরিং এ শিক্ষা কর্মকর্তাকে তদারকি করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  বঙ্গবন্ধু কন্যা সুযোগ দিয়ে ছিল বলেই পার্বত্য মানুষের সেবা করতে পেরেছি-ফিরোজা বেগম চিনু

  লংগদুতে অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জাম সরবরাহ দিলেন জোন কমান্ডার

  বান্দরবানে পরিত্যক্ত শেল বিস্ফোরণে নিহত সেনা সদস্যের রাঙ্গামাটিতে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাহক্রিয়া সম্পন্ন

  বাঙ্গালহালিয়া কুতুরিয়া পাড়া শিব মন্দিরটি অবকাঠামোর সমস্যায় জর্জরিত

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ভোটের পর থেকে সংসদে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে আসা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলের নির্বাচিতদের শপথ নেওয়ায় সম্মতি দিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সঠিক কাজটিই করেছেন। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?