বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১১ মার্চ, ২০১৯, ০৯:৩৬:১৫

রাঙ্গামাটি পৌরসভার মেয়রের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ

রাঙ্গামাটি পৌরসভার মেয়রের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ

রাঙ্গামাটিঃ-রাঙ্গামাটি পৌরসভার মেয়রের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ। দীর্ঘ ১ বছরেও জনস্বার্থে রাঙ্গামাটি ডিসি বাংলো পার্কের পাশের সিঁড়ি নির্মাণ কাজ না করায় ক্ষোভ জানালেন তিনি।
সোমবার (১১ মার্চ) রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে রাঙ্গামাটি পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আতিকুর রহমান সিড়ির বর্তমান অবস্থার কথা জেলা প্রশাসককে জানাতে গেলে জেলা প্রশাসক তাকে পৌরসভার কোন উন্নয়ন কর্মকান্ড জেলা প্রশাসনের লাগবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন। সকালে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদদের কাছে ধর্মীয় অনুষ্ঠানের দাওয়াত দিতে সাংবাদিকসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের কয়েকজনের সামনে জেলা প্রশাসক বলেন, আমি রাঙ্গামাটিতে যোগদানের পর পরই রাঙ্গামাটি ডিসি বাংলো পার্কের কোল ঘেষে কাপ্তাই হ্রদে নামার সিঁড়িটি ভেঙ্গে যাওয়ায় তা নির্মাণের জন্য রাঙ্গামাটি পৌরসভার মেয়রকে অনুরোধ করেছিলাম। তিনি আমার সামনে বসেই একজনকে ফোন করে সিঁড়িটি দ্রুত কাজ ধরার জন্য বলে দেন। কিন্তু বিগত একবছর হয়ে গেলে আজো সিঁড়িটি নির্মাণ করা সম্ভব হয়নি। জেলা প্রশাসক বলেন, এক বছরে আরো বেশ কয়েকবার মেয়রকে সিঁড়ি নির্মাণ করার তাগাদা দিয়েছি কিন্তু এখনো পর্যন্ত কোন সুফল পায়নি। বিভিন্ন ধরনের তালবাহনা করে কাজটি ঝুলিয়ে রেখেছে।
তিনি বলেন, আমি জনগনের স্বার্থের জন্য কথা বলেছি। আমিতো আমার বাংলোর ভিতরে কোন কাজ করতে মেয়রকে অনুরোধ জানাইনি। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, রাঙ্গামাটি পৌরসভার কোন উন্নয়ন কর্মকান্ড আমি নিবো না। যে ভাবে হোক আমি যাওয়ার আগে হলেও এই সিঁড়ি নির্মাণ করে জনগনকে এর সুফল ভোগ করাবো। পৌরসভার কোন সাহায্য সহযোগিতা আর দরকার নেই বলে সাফ জানিয়ে দেন তিনি। সিঁড়িটি ভেঙ্গে যাওয়ায় জননিরাপত্তায় ঘেরা বেড়া দিয়ে রাখা হয়েছে।
রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক এ,কে,এম মামুনুর রশিদ ও রাঙ্গামাটি পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আতিকুর রহমানের কথোকপথনের সময় রাঙ্গামাটির কর্মরত কয়েকজন সাংবাদিক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের লোকজন এ সময় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন এবং তাদের সম্মুখে এইসব কথা বলেন তিনি।
এ বিষয়ে রাঙ্গামাটি পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আতিকুর রহমান বলেন, জেলা প্রশাসক স্যারকে বিষয়টি আমি বলাই সুযোগ পায়নি। স্যার খুবই রাগ করেছে। তিনি বলেন, এখনো ব্রীজের একটু নিচে পানি রয়েছে। কাজ করতে গেলে পানির জন্য সমস্যা হতে পারে তাই করা যাচ্ছে না। আর এখানে বিশাল একটি আর সিসি ওয়াল দিতে হবে তা না হলে আগামীতে পার্কও থাকবে না।
উল্লেখ্য, রাঙ্গামাটি শহরের অনেক পাড়া মহল্লায় নদীর পাড়ে পাকা সিঁড়ি নির্মাণ করা হবে বলে প্রায় দেড় দুই বছর আগে সকল প্রস্তুতি গ্রহন করা হলেও আজও পর্যন্ত এইসব সিঁড়ি নির্মাণে কোন কার্যক্রম দেখা যায়নি। এইসব সিঁড়ি নির্মাণের জায়গায় পর্যন্ত মেয়র সরজমিনে ঘুরে দেখেছেন এবং তিনি এলাকাবাসীকে দ্রুত সিঁড়িগুলো নির্মাণ কাজ হাতে নেয়া হবে বলে জানালেও এলাকাবাসী সিঁড়ির মুখ এখনো দেখেনি।

এই বিভাগের আরও খবর

  রাঙ্গামাটি শহরের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী জেল হাজতে

  আইনের মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব নয়, প্রয়োজন দূর্বার গণ আন্দোলন-মাহবুবের রহমান শামীম

  উন্নতশীল দেশ গঠন ও প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তবায়নে সকলকে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

  শারদীয় দূর্গোৎসব আনন্দঘন পরিবেশে পালন করতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা থাকবে প্রশাসনের-এ,কে,এম মামুনুর রশিদ

  রাঙ্গামাটি শহরের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী জেল হাজতে

  রাঙ্গামাটি পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী রাষ্ট্রীয় কাজে বিদেশ সফর, ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল উদ্দিন

  মাইনীমুখ বাজারে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন লংগদু জোন কমান্ডার

  বাঘাইছড়িতে দূর্বৃত্তদের গুলিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির এমএন লারমা গ্রুপের দুই কর্মী নিহত

  দেশের ক্রীড়া উন্নয়নে বাংলাদেশ অনেক দূর এগিয়ে চলছে-সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার

  কাপ্তাই থেকে উৎপাদিত পরিবেশ বান্ধব সৌর বিদ্যুৎ সারা দেশে সঞ্চলিত যাচ্ছে

  সরকার কর্মজীবি মা ও শিশুদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত প্রদানের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে-এ কে এম মামুনুর রশিদ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তির প্রেক্ষাপটে আইইডিসিআরের সাবেক পরিচালক মাহমুদুর রহমান বলছেন, মৃত্যুর ঘটনাগুলো ‘রিভিউ’ করার কোনো প্রয়োজন নেই, চিকিৎসকদের কথাই যথেষ্ট। আপনি কি তাকে সমর্থন করেন?