সোমবার, ২৭ মে ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯, ০৮:৪৮:৪১

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মফিজুল হক একক প্রার্থী

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মফিজুল হক একক প্রার্থী

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-আগামী ১৮ মার্চ কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনকে ঘিরে এতদিন ব্যাপক আলোচনা ছিল। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয় চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান এবং রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মফিজুল হককে। দলের পক্ষে মফিজুল হক মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেও আওয়ামী লীগের নেতা বিপ্লব মারমাও মনোনয়ন সংগ্রহ করেন। বিএনপি নির্বাচন বর্জন করায় বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন এবার প্রার্থী হননি। আওয়ামীলীগের ২ নেতা মফিজুর হক এবং বিপ্লব মারমাকে ঘিরে শুরু হয় আলোচনার ঝড়।
তবে এই ঝড় থামাতে ভূমিকা রাখেন রাঙ্গামাটি ২৯৯ আসনের সাংসদ দীপংকর তালুকদার। তিনি ২ চেয়ারম্যান প্রার্থী মফিজুল হক এবং বিপ্লব মারমাসহ কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল নেতা কর্মীর সাথে জরুরী বৈঠক করেন। তিনি বিপ্লব মারমাকে মনোনয়ন ফরম জমা নাদিতে অনুরোধ জানান। ব্যাপক আলোচনার পর বিপ্লব মারমা দলীয় সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিয়ে এবং সাংসদ দীপংকর তালুকদারকে সম্মান জানিয়ে মনোনয়ন ফরম জমা দেননি। যার ফলে বর্তমানে মফিজুল হক কাপ্তাই উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী।
এ ব্যাপারে বিপ্লব মারমা বলেন, আমি দৃঢ় অঙ্গীকারবদ্ধ ছিলাম এবার নির্বাচন করবো। কিন্তু মানণীয় সাংসদ দীপংকর তালুকদারের অনুরোধ আমি ফেলতে পারিনি। দীপংকর তালুকদার এবং মফিজুল হক দুই জনকেই সম্মান জানিয়ে আমি নির্বাচন থেকে সরে এসেছি।
কাপ্তাই উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, মফিজুল হকসহ কাপ্তাই উপজেলায় বর্তমানে প্রার্থী হয়েছেন মোট ৯ জন। মফিজুল হকের কোন প্রতিদ্বন্দ্বি না থাকলেও তাঁর নামে নৌকা প্রতিক বরাদ্ধ থাকবে। ২০ ফেব্রুয়ারি যাচাইবাছাইয়ে বাদ না পড়লে মফিজুল হককে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় উপজেলা চেয়ারম্যান বলা যেতে পারে। এ ব্যাপারে কাপ্তাই উপজেলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহমেদ রাসেল বলেন, ২৭ ফেব্রুয়ারি প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। প্রত্যাহারের শেষ দিন অতিবাহিত না হওয়া পর্যন্ত বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান বলা ঠিক হবেনা।
এ ব্যাপারে মোঃ মফিজুল হক বলেন, সাংসদ দীপংকর তালুকদারের পরামর্শে দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁকে কাপ্তাই উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী ঘোষণা করেন। আমার ছোট ভাই বিপ্লব মারমা দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন। তবে সকলের পরামর্শে শেষ পর্যন্ত বিপ্লব মারমা মনোনয়ন ফরম জমা দেননি। যার ফলে এখন আমি (মফিজুল হক) একক প্রার্থী হিসেবে আছি। দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোয় বিপ্লব মারমাকে মফিজুল হক ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি তাঁকে একক প্রার্থী করার জন্য যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন তিনি তাদের সকলকেও ধন্যবাদ জানান।
তবে কাপ্তাই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ২য় প্রার্থী না থাকলেও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন প্রার্থী রয়েছেন বলে জানান উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম। ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হচ্ছেন ৪ জন। তাঁরা হলেন মোঃ আলম, মোঃ নাসির উদ্দিন, সুব্র্রত বিকাশ তনচংগ্যা ও অংলাচিন মারমা। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদেও প্রার্থী হচ্ছেন ৪ জন। তাঁরা হলেন নুর নাহার, ফারহানা আহমেদ পপি, মনোয়ারা বেগম ও উমেচিং মারমা।

এই বিভাগের আরও খবর

এই বিভাগের আরও খবর

  ক্ষুধা, দারিদ্রমুক্ত ও উন্নয়নশীল দেশ রূপান্তরে সকলে নিষ্টা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করুন-বৃষ কেতু চাকমা

  দীর্ঘ বছর ধরে মানুষের প্রাণের দাবী চন্দ্রঘোনা ফেরিঘাট সংযোগ সেতু নির্মাণ কাজ অনুমোদন

  সরকার আক্রোসের বশবর্তী হয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটক রেখে মেরে ফেলার ষড়যন্ত্র করছে-এ্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান

  সরকারের বার্ষিক বাজেট রাষ্ট্রের উন্নয়ন দর্শনের অবিচ্ছেদ্য পথনিদের্শক দলিল-অধ্যক্ষ প্রফেসর মঈন উদ্দিন

  অসাম্প্রদায়িক পার্বত্য অঞ্চল গড়ে তুলতে মারমা জাতি গোষ্ঠী কাজ করে চলেছে-অংসুই প্রু চৌধুরী

  আমাদের দেশের জন্য যেসব সুচক দরকার সেগুলো বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যেতে হবে-মোঃ এসএম শফি কামাল

  নানিয়ারচরে মিনি ট্রাক উল্টে একজন নিহত, আহত-১

  পার্বত্যাঞ্চলে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের অপকর্মকান্ড বন্ধ, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সেনাক্যাম্প পূর্ণস্থাপনের দাবি

  আত্মনির্ভরশীল ও হতদরিদ্র মৎস্যজীবী মানুষের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছে আওয়ামী মৎস্যজীবীলীগ

  কাপ্তাইয়ে মহিলাদের অংশ গ্রহণে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত

  বাঙ্গালহালিয়াতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত যুবলীগের নেতা হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

ভোটের পর থেকে সংসদে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে আসা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলের নির্বাচিতদের শপথ নেওয়ায় সম্মতি দিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সঠিক কাজটিই করেছেন। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?