রবিবার, ১৯ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ১০ আগস্ট, ২০১৮, ০২:৩৫:৫৭

দেশ সমৃদ্ধশালী করতে হলে নারী উন্নয়নে অগ্রাধিকার দিতে হবে

দেশ সমৃদ্ধশালী করতে হলে নারী উন্নয়নে অগ্রাধিকার দিতে হবে

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাইঃ-গণযোগাযোগ অধিদপ্তর কাপ্তাই তথ্য অফিসের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (৯ আগষ্ট) উপজেলা সভাকক্ষে আয়োজিত মহিলা সমবেশে কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন বলেন, বাংলাদেশ বর্তমানে সমৃদ্ধশালী একটি দেশ। তবে দেখকে আরো সমৃদ্ধশালী করতে হলে নারী উন্নয়নে অগ্রাধিকার দিতে হবে। শিক্ষা, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড, সামাজিক কর্মকান্ড সর্বপরি দেশ পরিচালনায় নারীর অংশ গ্রহণের সুযোগ আরো বেশি করে দিতে হবে।
কাপ্তাই তথ্য অফিস আয়োজিত গুরুত্বপূর্ণ ঐ মহিলা সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুইছাইন চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত বিকাশ তনচংগ্যা, নুর নাহার বেগম, ওসি সৈয়দ মোহাম্মদ নুর, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ নিতিশ চাকমা, আইসিটি অধিদপ্তর কাপ্তাই উপজেলার সহকারী প্রোগ্রামার সলিল চাকমা, কাপ্তাই পাড়া উন্নয়ন প্রতিনিধি মঞ্জু মনস ত্রিপুরা ও রহিমা বেগম।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে কাপ্তাই তথ্য কর্মকর্তা মোঃ হারুন বলেন, গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে প্রচার কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ প্রকল্পের আওতায় আয়োজিত এই মহিলা সমাবেশে কাপ্তাই উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নারীরা অংশ নেন। শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি, শিল্পী, সমাজসেবক, নারী নেত্রী, পাড়াকর্মী, ক্রীড়াবিদ, মানবাধিকার কর্মী, গৃহিনীসহ সমাজের সর্বস্তর থেকে নারীরা সমাবেশে যোগদিতে আসেন।
কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন তাঁর বক্তব্যে বলেন, নারী বলে মহিলাদের আর ঘরে বসে থাকার সুযোগ নেই। নারীকে সামনের দিকে পথ চলা শিখতে হবে। নারী অধিকার বুঝে নিতে হবে। তিনি বলেন এধরনের মহিলা সমাবেশে নারীদের মঞ্চে বসতে হবে। তিনি বলেন বাংলাদেশে নারীর উন্নয়ন চোখে পড়ারমত হয়েছে। দেশে প্রধানমন্ত্রী নারী, বিরোধী দলীয় নেতাও একজন নারী, জাতীয় সংসদে স্পিকারও একজন নারী। আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে নারী সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে নারীদের এখানে বসে থাকলে চলবেনা। তাকে আরো সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।
উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন বলেন, বর্তমান সরকারের সময়ে নারীর উন্নয়ন অভাবনীয় পর্যায়ে পৌঁচেছে। আর এই সুযোগ করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মেয়েদের লেখাপড়ার জন্য বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা সৃষ্টি করে দিয়েছেন তিনি। অল্প বয়সে মেয়েদের যাবে বিবাহ না হয় সে জন্য বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে নারীকে উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত করার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি বলেন বাংলাদেশে বর্তমানে নারী উন্নয়নের জোয়ার বইলেও ১৯৭৩ সাল থেকে কাপ্তাই উপজেলায় নারী নের্তৃত্ব্ দিয়ে আসছেন। তিনি বলেন কাপ্তাইয়ের বিশিষ্ট সাংবাদিক কাজী মোশাররফ হোসেনের মা বেগম শামছুনন্নাহার কাজী ১নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান ছিলেন। ৭৩ সালে যখন কোন নারী লেখাপড়া বা চাকরী করার কথাও ভাবতেননা সেই সময় ৬জন পুরুষের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বেগম শামছুনন্নাহার কাজী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। ভবিষ্যতে কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে একজন নারী চেয়ারম্যান হবেন বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।
উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন সফল মহিলা সমাবেশের আয়োজন করায় কাপ্তাই তথ্য কর্মকর্তা মোঃ হারুনকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এবং দুর দুরাস্ত থেকে যেসব নারী মহিলা সমাবেশে যোগ দিতে এসেছেন তিনি তাদেরও ধন্যবাদ জানান।

এই বিভাগের আরও খবর

  বনরূপায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের নগদ অর্থ সহায়তা

  রাঙ্গামাটি জেনারেল হাসপাতাল ২৫০শষ্যায় উন্নতি, নতুন ১০তলা ভবনের অনুমোদন

  বঙ্গবন্ধুর খুনীরা যাতে মাথাচারা দিয়ে উঠতে না পারে সেই দিকে সবাইকে সজাগ থাকার আহবান

  জাতীয় ফুটবল দলে পার্বত্য অঞ্চলের মহিলা ফুটবলাররা ভালো ভূমিকা রাখছে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  নতুন প্রজন্মকে উজ্জীবিত করতে রাঙ্গামাটি প্রতিটি বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে-আকবর হোসেন চৌধুরী

  কাউখালীতে বাঙ্গালী গরু ব্যবসায়ী হত্যাঃ ২৫ হাজার টাকার জন্যই খুন!

  জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জীবন নিয়ে কাঠ চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন

  দীর্ঘ ৩৬ বছর ধরে দৈনিক গিরিদর্পণ পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের মুখপাত্র হিসাবে কাজ করেছে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  যথাযোগ্য মর্যাদায় বরকল, জুরাছড়ি, বিলাইছড়ি, লংগদু ও রাজস্থলীতে জাতীয় শোক দিবস পালন

  শোক র‌্যালী, পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্যে দিয়ে রাঙ্গামাটিতে জাতির জনকের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত

  প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন তথা তাদের ক্ষমতায়নে সরকার বদ্ধ পরিকর-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

অনগ্রসর বিবেচনায় নারী, নৃগোষ্ঠীদের জন্য জন্য সরকারি চাকরিতে যে কোটা রয়েছে, তা তুলে দেওয়ার পক্ষে মত জানিয়ে কোটা পর্যালোচনা কমিটির প্রধান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, অনগ্রসররা এখন অগ্রসর হয়ে গেছে। আপনি কি তার সঙ্গে একমত?