বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৮ আগস্ট, ২০১৮, ০৭:৫২:১৫

প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করতে হলে বন সৃষ্টি করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করতে হলে বন সৃষ্টি করতে হবে-বৃষ কেতু চাকমা

বরকলঃ-জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে প্রকৃতি তার ভারসাম্য হারিয়ে ঘন ঘন প্রাকৃতিক বিপর্যয় সৃষ্টি হচ্ছে। এতে পরিবেশ ও জীব বৈচিত্রের উপর নীতিবাচক প্রভাব ফেলছে বলে মন্তব্য করেছেন রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। তিনি বলেন, প্রাকৃতিক মৌজা বন রক্ষা করে এলাকার মানুষ শুধু নিজেরাই উপকৃত হচ্ছে না, আমাদের সকলকে রক্ষা করছে। এলাকার মানুষ বিভিন্নভাবে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে এই মৌজা বনের পাশাপাশি নতুন নতুন বন সৃষ্টি করতে পারলেই আগামীতে সরকারের আরো সুযোগ সুবিধা তারা পাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
বুধবার (৮ আগষ্ট) উপজেলা পরিষদ কনফারেন্স কক্ষে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা শাইনিং হিলের উদ্যোগে ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয়ের অর্থায়নে গ্রামীন সাধারণ বন রক্ষা (ভিসিএফ) প্রকল্পের আওতায় বরকল উপজেলায় ৬টি গ্রামীন সাধারন বন রক্ষা কমিটির সদস্যদের নগদ অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা এসব কথা বলেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া পারভীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য সুবির কুমার চাকমা, বরকল মডেল থানার ওসি মফজল আহমদ খান, ইউএনডিপি জেলা ম্যানেজার ঐশ্চর্য্য চাকমা ভিসিএফ প্রকল্পের উপজেলা মনিটরিং অফিসার শুভাশীষ চাকমা, ইউএনডিপি’র কর্মকর্তা ঝুমা দেওয়ানসহ মৌজার হেডম্যান কার্বারী ও প্রকল্পের সুফলভোগীরা উপস্থিত ছিলেন।
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা আরো বলেন, বন রক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন আয় বর্ধনমূলক কার্যক্রমের উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। বর্তমান সরকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠির উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।
চেয়ারম্যান বলেন, পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নে বর্তমান সরকার খুবই আন্তরিক। কিন্তু সরকারের আন্তরিকতার সাথে আমাদের আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে। সরকারের একার পক্ষে এই চুক্তি বাস্তবায়ন কখনোই সম্ভব নয়। তিনি বলেন, ভূমি কমিশনের কাজ শুরু করতে আমরা বার বার বৈঠক করেছি। ভূমি কমিশনের কাজ শুরু হলেই পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত হবে। এ জন্য ভূমি কমিশনের সদস্যদেরকে কাজ শুরু করতে আন্তরিক হওয়ারও আহবান জানান তিনি।
আলোচনা সভা শেষে উপজেলার ৬টি গ্রামীন সাধারন বন রক্ষা কমিটির (ভিসিএফ) ৩শ ১৮ জনের মাঝে প্রতি জনকে নগদ ৭ হাজার টাকা করে ২২ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা বিতরণ করেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা।

এই বিভাগের আরও খবর

  কাউখালীতে বাঙ্গালী গরু ব্যবসায়ী হত্যাঃ ২৫ হাজার টাকার জন্যই খুন!

  জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জীবন নিয়ে কাঠ চিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন

  দীর্ঘ ৩৬ বছর ধরে দৈনিক গিরিদর্পণ পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের মুখপাত্র হিসাবে কাজ করেছে-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  যথাযোগ্য মর্যাদায় বরকল, জুরাছড়ি, বিলাইছড়ি, লংগদু ও রাজস্থলীতে জাতীয় শোক দিবস পালন

  শোক র‌্যালী, পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্যে দিয়ে রাঙ্গামাটিতে জাতির জনকের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত

  প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন তথা তাদের ক্ষমতায়নে সরকার বদ্ধ পরিকর-নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা

  যোগদানকৃত নতুন রিজিয়ন কমান্ডারের সাথে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সৌজন্য সাক্ষাৎকার

  ৩০ লক্ষ শহীদের শ্রদ্ধার্ঘ্যে রাঙ্গামাটিতে পুলিশের উদ্যোগে সবুজায়ন কর্মসূচী

  এতিমখানা ও মোনঘর শিশু সদনে রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদের নগদ অর্থ বিতরণ

  বরকলের আইন-শৃঙ্খলা যাতে বিঘ্ন না ঘটে তার জন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে-সাজিয়া পারভীন

  বর্ণাঢ্য আয়োজনে কাপ্তাইয়ে স্কাউটসের ডে ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

  0

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে, এখানে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। বাস্তবে তা ঘটবে বলে মনে করেন?